Scores

অশ্বিনের বীরত্বে জয়ের ভেঁপু শুনছে ভারত

চেন্নাইয়ে চার ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে জয়ের ভেঁপু শুনছে ভারত। তৃতীয় দিন শেষে ইংল্যান্ড দ্বিতীয় ইনিংসে পিছিয়ে আছে ৪২৯ রানে। 

অশ্বিনের বীরত্বে জয়ের ভেঁপু শুনছে ভারত

রবিচন্দ্রন অশ্বিনের বোলিং তোপে ইংল্যান্ডের প্রথম ইনিংস থেমেছিল ১৩৪ রানে। প্রথম ইনিংসে ৩২৯ রানের সুবাদে ভারত পেয়েছিল ১৯৫ রানের লিড। বিশাল সেই লিড পাহাড়ের আকার ধারণ করে সেই অশ্বিনেরই শতকে।

Also Read - সাকিবকে ছাড়িয়ে গেলেন অশ্বিন


১ উইকেটে ৫৪ রান নিয়ে তৃতীয় দিন শুরু করা ভারতের দ্বিতীয় ইনিংস থামে ২৮৬ রানে। আগের ইনিংসের শূন্যর দুঃস্মৃতি ভুলতে প্রতিরোধ গড়ে তুলেছিলেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি। অন্যদের ব্যাট তেমন চওড়া না হলেও কোহলিকে সঙ্গ দিয়েছেন অশ্বিন। একসময় তার ইনিংস ছাড়িয়ে গেছে কোহলির ইনিংসকেও।

১৪৯ বলে ৬২ রানের দৃঢ়চেতা ইনিংস উপহার দিয়ে কোহলি সাজঘরে ফিরে গেলে লিড বাড়ানোর লক্ষ্যে একাই লড়ে যান অশ্বিন। দলীয় ২৮৬ রানে শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে যখন সাজঘরে ফিরেছেন, তখন তার নামের পাশে জ্বলজ্বল করছে ১০৬ রান। অলরাউন্ডারদের এলিট ক্লাবে প্রবেশের রেকর্ডগড়া এই শতকে দলের লিড দাঁড়ায় ৪৮২ রান। পাহাড় বটে!

সেই পাহাড়ের লক্ষ্য তাড়া করতে নামা ইংলিশরা স্বস্তিতে নেই। সিরিজে এগিয়ে থাকলেও দ্বিতীয় টেস্টে স্পষ্টত পিছিয়ে জো রুটের দল। দ্বিতীয় ইনিংসে ৫৩ রান জড়ো করতেই হারিয়ে ফেলেছে তিনটি উইকেট, যার একটি অশ্বিনের এবং অপর দুটি অক্ষর পেটেলের শিকার।

১৯ রান নিয়ে ক্রিজে রয়েছেন ড্যান লরেন্স। চতুর্থ দিন তার সাথে ম্যাচ বাঁচানোর লড়াই শুরু করবেন ২ রানে অপরাজিত সফরকারী অধিনায়ক।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (৩য় দিন শেষে)

ভারত ১ম ইনিংস : ৩২৯/১০ (৯৫.৫ ওভার)
রোহিত ১৬১, রাহানে ৬৭, পান্ট ৫৮*
মঈন ১২৮/৪, স্টোন ৪৭/৩, লিচ ৭৮/২

ইংল্যান্ড ১ম ইনিংস : ১৩৪/১০ (৫৯.৫ ওভার)
ফোকস ৪২*, পোপ ২২
অশ্বিন ৪৩/৫, ইশান্ত ২২/২, অক্ষর ৪০/২

ভারত ২য় ইনিংস : ২৮৬/১০ (৮৫.৫ ওভার)
অশ্বিন ১০৬, কোহলি ৬২
মঈন ৯৮/৪, লিচ ১০০/৪

ইংল্যান্ড ২য় ইনিংস : ৫৩/৩ (১৯ ওভার)
বার্নস ২৫, লরেন্স ১৯*, রুট ২*
অক্ষর ১৫/২, অশ্বিন ২৮/১

জয়ের জন্য ইংল্যান্ডের প্রয়োজন আরও ৪২৯ রান।

Related Articles

দলে ফিরতে পিসিবিকে ‘ব্ল্যাকমেইল’ করছেন আমির!

মালিককে নিয়ে বিস্ফোরক দাবি আফ্রিদির

বল টেম্পারিং কাণ্ডে আবারও প্রশ্নের মুখে অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটাররা

আমার স্বপ্ন অনেক বড় : তাসকিন

আল জাজিরার প্রতিবেদনে দুর্নীতির প্রমাণ পায়নি আইসিসি