অস্ট্রেলিয়ার সাথে ব্যবধান কমানোর সুযোগ বাংলাদেশের

0
6828

সফরকারী উইন্ডিজের বিপক্ষে সফল টেস্ট সিরিজ শেষে এবার ওয়ানডে সিরিজের পালা। আর তিন ম্যাচ ওয়ানডের এ সিরিজ দিয়ে বাংলাদেশ সুযোগ পাচ্ছে আইসিসি ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিংয়ে রেটিং বাড়ানোর। যা টাইগারদের সামনে হাতছানি দিচ্ছে তালিকায় ওপরের অবস্থানে থাকা অস্ট্রেলিয়ার সাথে রেটিং ব্যবধান কমানোর।

র‍্যাঙ্কিংয়ে বাংলাদেশ ও উইন্ডিজের বর্তমান অবস্থান
আইসিসি ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিংয়ে ৯৩ রেটিং নিয়ে বর্তমানে সপ্তম অবস্থানে রয়েছে মাশরাফি বিন মুর্তজার নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। স্বাগতিকদের চেয়ে ২১ রেটিংয়ে পিছিয়ে র‍্যাঙ্কিংয়ের নবমস্থানে অবস্থান সফরকারী উইন্ডিজের।

Advertisment

এর ফলে উইন্ডিজের চেয়ে ওপরের অবস্থানে থাকায় আসন্ন সিরিজে জয় পেলে র‍্যাঙ্কিংয়ে খুব বেশি একটা উন্নতির দেখা মিলবে না বাংলাদেশের। তবে বাংলাদেশকে হারাতে পারলে র‍্যাঙ্কিংয়ে বড় প্রাপ্তি মিলবে সফরকারীদের।

বাংলাদেশ সফরে উইন্ডিজ অধিনায়ক ব্র্যাথওয়েট
দু-দলের মধ্যকার সবশেষ ওয়ানডে সিরিজটি ২-১ ব্যবধানে জিতে নেয় বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জিতলে
আসন্ন তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের স্বাগতিকরা যদি প্রথম ও শেষ ওয়ানডে কিংবা শেষের দুই ম্যাচ জিতে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ নিশ্চিত করে তবে বাংলাদেশের রেটিংয়ে কোনো পরিবর্তন আসবে না। অর্থাৎ ৯৩ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে র‍্যাঙ্কিংয়ের সপ্তমস্থানে থেকেই সিরিজ শেষ করবে মাশরাফিরা। সেক্ষেত্রে একই পরিণতি হবে ক্যারিবীয়ানদেরও।

তবে বাংলাদেশ যদি প্রথম দুই ওয়ানডে জয়ের পর সিরিজের শেষ ম্যাচে হেরে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জয় লাভ করে সেক্ষেত্রে বাংলাদেশের রেটিং কমে দাঁড়াবে ৯২তে। বাংলাদেশের ১ রেটিং খোয়ানোর বিপরীতে সেক্ষেত্রে নিজেদের নামের পাশে ১ রেটিং যুক্ত হবে সফরকারী উইন্ডিজের।

শ্বাসরুদ্ধকর শেষ ওভারে ম্যাচ জয়ের পর বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ ৩-০ ব্যবধানে সিরিজ জিতলে
টেস্ট সিরিজের পর ওয়ানডে সিরিজের সবকয়টি ম্যাচে বাংলাদেশ জিতলে সেক্ষেত্রে র‍্যাঙ্কিংয়ে অবস্থানের পরিবর্তন না আসলেও রেটিং বাড়বে বাংলাদেশের। ৩-০ ব্যবধানের সিরিজ জয়ে নিজেদের নামের পাশে আরও ২ রেটিং যোগ হবে টাইগারদের। আর তা হলে র‍্যাঙ্কিংয়ের ছয়ে থাকা অস্ট্রেলিয়ার সাথে ব্যবধান কমে তা পরিণত হবে ৫ রেটিংয়ে।

উইন্ডিজ ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জিতলে
সিরিজের ফলাফল যদি এমন হয় সেক্ষেত্রে সিরিজ শেষে ৩ রেটিং হারিয়ে বাংলাদেশের রেটিং পয়েন্ট দাঁড়াবে ৯০ এ। আর অবস্থানের কোনো পরিবর্তন না আসলেও উইন্ডিজের রেটিং বেড়ে দাঁড়াবে ৭৫ এ।

বাজে ফিল্ডিংকে দুষলেন মাশরাফি
উইন্ডিজের সামনেও র‍্যাঙ্কিংয়ে বড় অর্জনের হাতছানি।

উইন্ডিজ ৩-০ ব্যবধানে সিরিজ জিতলে
ঘরের মাটি ও ওয়ানডে ফরম্যাটে বাংলাদেশ বর্তমান সময়ে অপ্রতিরোধ্য হলেও আসন্ন সিরিজের ফলাফল এমন হলে বাংলাদেশের রেটিং কমে দাঁড়াবে ৮৮ রেটিংয়ে। পক্ষান্তরে ৭৭ রেটিং নিয়ে শ্রীলঙ্কাকে টপকে তালিকার অষ্টমস্থানে আরোহণের আরও এক ধাপ ওপরে ওঠে আসবে ক্যারিবিয়ানরা।

এক নজরে সবশেষ হালনাগাদকৃত আইসিসি ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিং-

১. ইংল্যান্ড- ১২৬ রেটিং।

২. ভারত- ১২১ রেটিং।

৩. নিউজিল্যান্ড- ১১২ রেটিং।

৪. দক্ষিণ আফ্রিকা- ১১০ রেটিং।

৫. পাকিস্তান- ১০২ রেটিং।

৬. অস্ট্রেলিয়া- ১০০ রেটিং।

৭. বাংলাদেশ- ৯৩ রেটিং।*

৮. শ্রীলঙ্কা- ৭৯ রেটিং।

৯. উইন্ডিজ- ৭২ রেটিং।

১০.আফগানিস্তান- ৬৭ রেটিং।

১১. জিম্বাবুয়ে- ৫২ রেটিং।

১২. আয়ারল্যান্ড- ৩৯ রেটিং।

১৩. স্কটল্যান্ড- ৩৩ রেটিং।

১৪.আরব আমিরাত- ২১ রেটিং।

 


আরও পড়ুনঃ ‘আমি শচীন টেন্ডুলকার বা গ্লেন ম্যাকগ্রা নই’