Scores

অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটারদের সতর্কবার্তা দিল সিএ

চলমান বোর্ড-খেলোয়াড় দ্বন্দ্বে এবার চটে বসেছে অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট নিয়ন্ত্রক সংস্থা ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ)। সমস্যা নিরসনে সম্প্রতি খেলোয়াড়দের সতর্কবার্তা দিয়েছে সংস্থাটি।

বোর্ড ও খেলোয়াড়দের সমঝোতা চুক্তির মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী ৩০শে জুন, অর্থাৎ ঠিক একদিন পর। নতুন কোনো সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে না পারায় এরপর রীতিমতো বেকার হয়ে পড়বেন অস্ট্রেলিয়ার চুক্তিভিত্তিক ক্রিকেটাররা। তবে পেশাদার ক্রিকেটারদের শেষ নেই আয়ের উৎসের। জাতীয় দলের হয়ে না খেলেও বিশ্বের বিভিন্ন ঘরোয়া টুর্নামেন্টে খেলে কাড়িকাড়ি টাকা উপার্জন করার সক্ষমতা আছে তাদের।

Also Read - স্ত্রী নির্যাতনের অভিযোগে নিজেকে নিষ্পাপ দাবি করলেন শহীদ

তবে ঠিক এই ব্যাপারেই খেলোয়াড়দের সতর্কবার্তা দিয়েছে সিএ। তাদের হুমকি, বোর্ডের অনুমতি ছাড়া কোনো খেলোয়াড়ই ভিনদেশী টুর্নামেন্টে খেলতে পারবেন না। সেক্ষেত্রে নির্দেশ অমান্য করলে শাস্তি হিসেবে পেতে হবে ছয় মাসের নিষেধাজ্ঞা। অর্থাৎ মিস হবে মর্যাদার অ্যাশেজ সিরিজ!

সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ার টিম পারফরম্যান্স ম্যানেজার প্যাট হাওয়ার্ড এক ই-মেইল বার্তায় লিখেন, ‘খেলোয়াড়েরা ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার অনুমতি ছাড়া আইসিসি অনুমোদিত ক্রিকেট ম্যাচ-টুর্নামেন্টে খেলতে পারবেন না। যারা অননুমোদিত ক্রিকেট খেলবেন তারা আইসিসি অনুমোদিত ক্রিকেট থেকে ছয় মাস নিষিদ্ধ হবেন।’

ক্রিকইনফোর দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, বোর্ডের অনুমতি ছাড়া কোনো টুর্নামেন্টে অংশ নিলে নিষেধাজ্ঞার বিধান হয়েছে আইসিসির নিয়ম অনুসারেই। এই বিবেচনায় অস্ট্রেলিয়ার বোর্ড-খেলোয়াড় টানাপড়েনে এবার কিছুটা বেকায়দায় পড়ে গেলেন আন্দোলনকারী খেলোয়াড়েরাই।

তবে এখনও খেলোয়াড়দের কোর্টেই বল রেখেছে সিএ। ১ জুলাই থেকে ১৪ জুলাই পর্যন্ত চুক্তিতে সাক্ষর করার সুযোগ পাচ্ছেন স্মিথ-ওয়ার্নাররা। এই সময়ের মধ্যেও খেলোয়াড়দের ইতিবাচক সাড়া নে মিললে কঠিন সিদ্ধান্তে আসতে পারে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া।

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম

Related Articles

‘ওয়ার্নারকে ফিরে পাওয়া ভাগ্যের ব্যাপার’

পাকিস্তানের বোলিং আক্রমণকে নির্বিষ বললেন মার্ক ওয়াহ

দুই নারী ক্রিকেটার বিয়ে করলেন একে অপরকে

অভিজ্ঞতার বিচারে বিশ্বকাপে যে দল যত এগিয়ে

স্মিথ-ওয়ার্নারের প্রতি পূর্ণ আস্থা আছে ফিঞ্চের