অ্যান্ডারসনকে আইসিসির জরিমানা

0
1018

ইংল্যান্ডের ফাস্ট বোলার জেমস অ্যান্ডারসনকে আইসিসির ‘কোড অব কন্ডাক্ট’ এর নিয়ম ভঙ্গ করায় ম্যাচ ফির ১৫ শতাংশ জরিমানা করা হয়েছে। এই টেস্টের আম্পায়ার প্যানেলের সিদ্ধান্ত মেনে নিয়েছেন অ্যান্ডারসন। ২০১৬ সালের পর এই প্রথম নামের পাশে ডিমেরিট পয়েন্ট যুক্ত হলো অ্যান্ডারসনের।

অ্যান্ডারসনকে আইসিসির জরিমানা
আম্পায়ার ধর্মসেনার সিদ্ধান্তে হতাশ অ্যান্ডারসন। ছবিঃ গেটি ইমেজ

ওভালে পাচ ম্যাচ টেস্ট সিরিজের পঞ্চম ও শেষ টেস্টে লড়ছে স্বাগতিক ইংল্যান্ড ও সফরকারী ভারত। ম্যাচে এখনো স্বাগতিকদের থেকে ভারত পিছিয়ে থাকলেও দুঃসংবাদ যোগ হলো ইংল্যান্ড দলের নামের পাশে। আইসিসি ‘কোড অব কন্ডাক্ট’ লেভেল-১ এর নিয়ম ভঙ্গ করায় আইসিসির পক্ষ থেকে জরিমানা করা হয়েছে ইংলিশ ফাস্ট বোলার অ্যান্ডারসনকে।

‘কোড অব কন্ডাক্ট’ এর ২.১.৫ আর্টিকেল অনুযায়ী অনফিল্ড আম্পায়ারের সিদ্ধান্তের ভিন্নমত পোষণ করলে পড়তে হবে জরিমানার মুখে। আর সেটিই হয়েছে অ্যান্ডারসনের সাথে। ঘটনা ঘটেছে ভারতের ইনিংস চলাকালীন। প্রথম ইনিংসের দলীয় ২৯তম ওভার করতে আসেন অ্যান্ডারসন। সেই ওভার মোকাবিলা করেন ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি।

Advertisment

ওভারের তৃতীয় বলে কোহলিকে এল্বিডব্লিউর ফাঁদে ফেলে আউটের জন্য আবেদন করলে সেটি ফিরিয়ে দেন কুমার ধর্মসেনা। পরবর্তীতে রিভিউ নিলে ‘আম্পায়ার্স কল’ সিদ্ধান্ত আসলে আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে নাখোশ হন অ্যান্ডারসন। যার কারণে জরিমানার কবলে পড়তে হয়েছে এই ফাস্ট বোলারকে। অ্যান্ডারসনের সঙ্গে ছোটখাটো কথার যুদ্ধ চলে কোহলির সঙ্গেও।

ফলে ম্যাচ ফির ১৫ শতাংশ জরিমানার পাশপাশি নামের পাশে যুক্ত হয়ে এক ডিমেরিট পয়েন্টও। ২০১৬ সালের পর এই প্রথম ডিমেরিট পয়েন্ট পেলেন অ্যান্ডারসন। মাঠে এমন ব্যবহারের কারণে তার উপর অভিযোগ আনেন কুমার ধর্মসেনা, উইলসন। আম্পায়ারের আনা সিদ্ধান্তে মেনে নেন অ্যান্ডারসন। যার কারণে প্রয়োজন পড়েনি কোন অফিসিয়াল ঘোষণার।

লেভেল-১ এর সর্বোচ্চ শাস্তি ম্যাচ ফির ৫০ শতাংশ জরিমানা এবং এক কিংবা দুই ডিমেরিট পয়েন্ট।

উল্লেখ্য, কোহলির উইকেট অ্যান্ডারসন না পেলেও, পেয়েছেন বেন স্টোকস। ব্যক্তিগত ৪৯ রানে দ্বিতীয় স্লিপে থাকা রুটের হাতে ক্যাচ তুলে দেন কোহলি।

আরও পড়ুনঃ ক্রিকেটার থেকে ধারাভাষ্যকার ‘কুক’!