আইপিএল ছাড়লেন নিতিন, পারলেন না পল

0
810

খেলোয়াড়দের পর এবার ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) মাঝপথেই টুর্নামেন্ট থেকে সরে দাঁড়াতে শুরু করেছেন আম্পায়াররাও। ভারতীয় আম্পায়ার নিতিন মেনন ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে টুর্নামেন্টটি থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন। চলে যেতে চেয়েছিলেন অজি পল রেইফেলও কিন্তু তিনি দেশে ফিরতে পারেননি। অপরদিকে, সুস্থ হয়ে দলের সাথে যোগ দিয়েছেন মুত্তিয়া মুরালিধরন।

আইপিএল ছাড়লেন নিতিন, পারলেন না পল
নিতিন মেনন

নিতিন ও পল দুইজনই আইসিসির এলিট প্যানেলের আম্পায়ার। আইপিএলেও তারা নিয়মিত আম্পায়ারের দায়িত্ব পালন করে আসছেন। তবে এবারই প্রথম টুর্নামেন্টের মাঝপথে দায়িত্ব ছাড়ার সিদ্ধান্ত নেন তারা। করোনা পরিস্থিতির শিকার হয়েই এই সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে তাদেরকে।

Advertisment

ভারতে করোনা পরিস্থিতি খুবই শোচনীয়। দেশটিতে প্রায় প্রতিদিন ৩ হাজারের অধিক ব্যক্তি মারা যাচ্ছে এবং আক্রান্ত হচ্ছেন ৩ লাখের অধিক মানুষ। বর্তমানে সবচেয়ে শোচনীয় অবস্থা যাচ্ছে ভারতে। অক্সিজেন ও চিকিৎসার অভাবে বিনা চিকিৎসায় অনেক মানুষ মারা যাচ্ছেন। এর ধাক্কা লেগেছে নিতিনের পরিবারেও।

নিতিনের স্ত্রী ও মা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। প্রিয়জন করোনায় আক্রান্তের খবরে আর পেশাগত দায়িত্ব পালন করে যাওয়া সম্ভব হয়নি নিতিনের পক্ষে। পারিবারিক দায়িত্ব পালন করতে তিনি আইপিএল থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন।

একই দিনে আইপিএল থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নেন অজি আম্পায়ার পল। ভারতের সাথে সরাসরি ফ্লাইট বন্ধ হয়ে যাওয়ায় আগেভাগেই আইপিএল ছেড়ে পাড়ি জমানোর সিদ্ধান্ত নেন। কিন্তু কাতার হয়ে অস্ট্রেলিয়ায় যাওয়া ফ্লাইটে তার জায়গা হয়নি। নিয়মের জটিলতায় একজন অস্ট্রেলিয়ান হিসেবেও ভারত থেকে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার সুযোগ পাননি তিনি। তাই হোটেল ছাড়ার ঠিক ১০ মিনিট আগেই আবার সিদ্ধান্ত বদলাতে হয়েছে তাকে।

করোনাভাইরাস ও দেশে ফেরার শঙ্কা নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার আরও ৩ ক্রিকেটার দেশে ফিরে গিয়েছেন। তারা হলেন, অ্যান্ড্রু টাই, অ্যাডাম জাম্পা ও কেন রিচার্ডসন। এছাড়া ভারতীয় রবিচন্দ্রন অশ্বিন ও ইংলিশ লিয়াম লিভিংস্টোনও করোনার চাপে আইপিএল ছেড়েছেন।

তবে শ্রীলঙ্কান মুরালিধরন সুস্থ হয়ে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের সাথে দিয়েছেন। হায়দরাবাদের এই কোচ টুর্নামেন্ট চলাকালীনই অসুস্থ হয়ে চেন্নাইয়ের অ্যাপেলো হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। তাকে অ্যাঞ্জিগ্রাফি ও অ্যাঞ্জিপ্ল্যাস্টির মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছিল।