Scores

আইপিএল : পরের বছরও চেন্নাইয়ের নেতৃত্বে থাকছেন ধোনি!

আইপিএলের পরের আসরেও চেন্নাই সুপার কিংসের অধিনায়ক হিসেবে থাকবেন মহেন্দ্র সিং ধোনি, এমনটাই আশা করছেন ফ্র্যাঞ্চাইজিটির প্রধান নির্বাহী কাসি বিশ্বনাথন। সেই সাথে পরের আসরে দলে বড় পরিবর্তনও আসবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

এবারের আইপিএলে সবার চোখ ছিল ধোনির উপর। কেননা বিশ্বকাপের পর দীর্ঘ সময় ধরে খেলার বাইরে ছিলেন চেন্নাই সুপার কিংসের এই অধিনায়ক। সবমিলিয়ে সমর্থকদের আশা ছিল আইপিএলে হয়ত ভালো কিছু করবে ধোনি এবং তার দল। তবে আইপিএল মাঠে গড়ানোর পর ঘটলো উল্টো ঘটনা। প্রথমবারের মতো আইপিএলের গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নিয়েছে চেন্নাই সুপার কিংস।

Also Read - বিগ ব্যাশ থেকে নাম প্রত্যাহার করে নিলেন ডি ভিলিয়ার্স

এছাড়াও ব্যাট হাতেও খুব একটা ভালো সময় কাটেনি ধোনির। ১২ ম্যাচে ১১৮.৪৫ গড়ে করেছেন মাত্র ১৯৯ রান। সেই সাথে আইপিএল থেকে বাদ পড়ার পর ধোনিকে ঘিরে সমলোচনা কম হয়নি। এমন বাজে পারফরম্যান্সের পর সবার মনে ধারণা জন্মেছে তবে কী এটাই ধোনির শেষ আইপিএল? এই প্রশ্নের জবাব দিয়েছেন চেন্নাই সুপার কিংসের প্রধান নির্বাহী। তার আশা পরের বছরও চেন্নাইকে নেতৃত্ব দিবেন ধোনি।

“হ্যাঁ, অবশ্যই। আমি অত্যন্ত আত্মবিশ্বাসী যে, ধোনি ২০২১ আইপিএলেও চেন্নাই সুপার কিংসকে নেতৃত্ব দেবে। ও আমাদের তিনটি আইপিএল ট্রফি এনে দিয়েছে। এই প্রথমবার আমরা প্লে-অফের যোগ্যতা অর্জন করতে ব্যর্থ হয়েছি। অন্য কোনও দলের এমন ধারবাহিকতা নেই। একটা খারাপ আসর মানে এই নয় যে, অপনাকে সবকিছু বদলে দিতে হবে।”

কয়েকদিন আগেই চেন্নাইয়ের হেড কোচ বার্তা দিয়েছিলেন পরের আসরে নতুন করে দল সাজাবে ফ্র্যাঞ্চাইজিটি। যার জন্য কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে পারে তারা। ফ্লেমিংয়ের সঙ্গে একমত পোষণ করেছেন সিএসকের প্রধান নির্বাহীও।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

Related Articles

“এটি ভারতের ‘বি’ দল না, এটি আইপিএলের সুফল”

দেশের খেলা বাদ দিয়ে আইপিএল খেলবেন উইলিয়ামসন-বোল্টরা?

আজীবনের নিষেধাজ্ঞা, ৭ বছরেই মুক্তি পেলেন ভারতীয় ক্রিকেটার

আইপিএলের জন্য আইসিসির প্রস্তাবে রাজি বিসিসিআই

‘টাকার জন্য ইংরেজরা ভারতের পিছু পিছু ঘোরে’