আইসিসির সভায় চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি নিয়ে দ্বন্দ্বের উত্তাপ?

কলকাতায় সোমবার থেকে শুরু হয়েছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সংস্থার (আইসিসি) সভা। চলবে ২৬ এপ্রিল পর্যন্ত। আর এ সভার বড় একটি বিষয় হবে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি। পরবর্তী আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির আয়োজক দেশ ভারত। ভারতের ক্রিকেট নিয়ন্ত্রক সংস্থা বোর্ড অব কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়া (বিসিসিআই) এবং আইসিসির মধ্যে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি নিয়ে চলছে দ্বন্দ্ব। অনুমিতভাবেই এ দ্বন্দ্বের উত্তাপ থাকবে সভাতেও।চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি নিয়ে আইসিসির সঙ্গে দ্বন্দ্ব ভারতের

আইসিসি ২০২১ সালের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি টি-২০ ফরম্যাটে আয়োজন করতে প্রস্তাব দিয়েছে। কিন্তু এ প্রস্তাব মানতে নারাজ বিসিসিআই। তারা ওয়ানডে ফরম্যাটেই এ টুর্নামেন্ট আয়োজন করতে চায়। ভারতের গণমাধ্যমগুলো বলছে সভায় টি-২০ ফরম্যাটের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির প্রস্তাব নিয়ে আপত্তি জানাবে বিসিসিআইয়ের কর্তারা।

Advertisment

ভারতের এক বোর্ড কর্তা কলকাতার আনন্দবাজার পত্রিকাকে বলেন, ‘‘আইসিসি যা খুশি তাই শুরু করে দিয়েছে। আমরা টুর্নামেন্টটা করতে চেয়েছিলাম পঞ্চাশ ওভারের হবে বলে। এখন টি-টোয়েন্টি করে দিলেই আমরা মেনে নেব কেন?’’

ভারতীয় বোর্ডের দাবি এর আগে কখনোই বলা হয়নি যে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি টি-২০ ফরম্যাটে আয়োজন করা হবে। আইসিসির এমন হঠাৎ প্রস্তাব মোটেও মেনে নিতে পারছে না তারা।

এছাড়া সভায় কথা হবে ভারত-পাকিস্তান দ্বিপাক্ষিক সিরিজ নিয়েও। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের চেয়ারম্যান নাজাম শেঠিও হাজির হয়েছেন সেখানে। দ্বিপাক্ষিক সিরিজের বল এখন ভারতের কোর্টে বলে মন্তব্য করেছেন পিসিবি সভাপতি। বর্তমানে ক্রিকেট বিশ্বের এ দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দলের লড়াই বহুজাতিক প্রতিযোগিতায় দেখা যায়। সর্বশেষ দ্বিপাক্ষিক সিরিজে তারা মুখোমুখি হয়েছে ২০১২ সালে। পিসিবি সভাপতি জানিয়েছেন বিসিসিআই এগিয়ে আসলেই দ্বিপাক্ষিক সিরিজ আয়োজন সম্ভব।

সভায় ক্রিকেটারদের আচরণবিধি, ২০১৯ বিশ্বকাপের সূচি সহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়েও আলোচনা হবে।

আইসিসির সাথে সম্পর্কটা বিসিসিআইয়ের খুব একটা ভালো নয়। আইসিসির বর্তমান সভাপতি ভারতের শশাঙ্ক মনোহর হলেও তার সাথে বিসিসিআইয়ের কর্তাদের রয়েছে টানাপোড়েন।


আরো পড়ুন ঃ এবার ইনজুরিতে মাহমুদউল্লাহ্‌ রিয়াদ