Score

আইসিসির সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ আয়ারল্যান্ড অধিনায়ক

২০০৭ সালে খেলেছিল বিশ্বকাপ। সেবার পাকিস্তানকে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় করে দিয়েছিল আয়ারল্যান্ড। পরবর্তী বিশ্বকাপে চমক দেখায় আয়ারল্যান্ড। ইংল্যান্ডের দেওয়া বড় টার্গেট তাড়া করে হারিয়ে দেয় আয়ারল্যান্ড। ২০১৫ বিশ্বকাপেও উইন্ডিজের দেওয়া ৩০৫ রানের টার্গেট তাড়া করে জিতে নেয় আয়ারল্যান্ড।

আইসিসির সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ আয়ারল্যান্ড অধিনায়ক

তাছাড়া গত বিশ্বকাপেও দারুণ খেলেছিল দলটি। ৬ ম্যাচে জয় পেয়েছিলো ৩টি’তে। ভাগ্যের সহায়তা পেলে হয়ত উইন্ডিজকে টপকে কোয়ার্টার ফাইনালেও উঠতে পারত দলটি। গত ৩ বিশ্বকাপে ভালো খেলা দলটিই নেই ২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপে! আইসিসির করা নতুন নিয়ম অনুযায়ী মাত্র ১০টি দল অংশগ্রহণ করতে পারবে বিশ্বকাপে।

Also Read - কাউন্টি খেলবেন কোহলি

তার মধ্যে প্রথম ৮টি দল সরাসরি বিশ্বকাপে অংশ নিবে এবং বাকি দুইটি দল কোয়ালিফাই বিশ্বকাপ খেলে আসতে হবে মূল পর্বে। আইসিসির করা নতুন নিয়মে ৩৬ বছর পর বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে গেলো জিম্বাবুয়ে। আরব আমিরাতের কাছে ৩ রানে হেরে স্বপ্নভঙ্গ হয়েছে দলটির। এছাড়াও স্কটল্যান্ডও প্রায় কোয়ালিফাই করেই ফেলেছিল বিশ্বকাপে কিন্তু বৃষ্টির কারণে ভাগ্য তাঁদের সঙ্গ দেয়নি।

অথচ গত বিশ্বকাপে বাংলাদেশকে ৩১৯ রানের টার্গেট দিয়েছিল দলটি। তাছাড়া কোয়ালিফাই বিশ্বকাপেও অসাধারণ খেলেছে দলটি। গতকাল আফগানিস্তানের কাছে ৫ উইকেটে হেরে বিশ্বকাপ খেলার স্বপ্নভঙ্গ হয়েছে আয়ারল্যান্ডেরও। আইসিসির এমন সিদ্ধান্তে ক্ষুদ্ধ আইরিশ অধিনায়ক উইলিয়াম পোর্টারফিল্ড।

‘এই আইসিসি ব্যস্ত বড় দলগুলোকে নিয়ে। প্রতি চার বছর পরপর যে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়, সেটিতে বাছাইপর্ব থেকে মাত্র ২টি দল কীভাবে যায়। ছয় সপ্তাহের এই প্রতিযোগিতায় কয়েকটি বড় দল একে অন্যের সঙ্গে ৯টি করে ম্যাচ খেলবে। এতে ব্যবসা হবে ঠিকই। কিন্তু বাকি দলগুলোর কী লাভ হবে? আমরা তো তাও খেলে হেরেছি। কিন্তু স্কটল্যান্ড? ওদের জন্য সত্যিই খারাপ লাগছে।’

আপাতত আয়ারল্যান্ড ছাড়া বাদ পড়া বাকি দলগুলোর সামনে কোন ব্যস্ততা নেই। জিম্বাবুয়ে, স্কটল্যান্ডের খেলা কার সঙ্গে সেটিও এখনো নিশ্চিত নয়। তবে ২০১৯ এর শুরুতে বাংলাদেশ সফর করবে জিম্বাবুয়ে। আইসিসির করা নতুন নিয়মে বাদ পড়া দলগুলোর জন্য দুঃখপ্রকাশ করেছেন আয়ারল্যান্ড অধিনায়ক পোর্টারফিল্ড।

‘বিশ্বকাপে যেতে না পারার কারণে আমি এসব বলছি, ব্যাপারটা তা নয়। আমি ক্রিকেটের বড় দলের বাইরে অন্য দলগুলোকে দেখেই বলছি। তাদের জন্য আমার খারাপই লাগে। পরের সপ্তাহে তারা কী করবে, সেটা তারা জানে না।’

আগামী দেড় মাস কোন ব্যস্ততা নেই আয়ারল্যান্ডের। তবে আগামী মে’তে মাঠে নামবে তারা। গত বছর আইসিসির পূর্ণ টেস্ট সদস্যর স্ট্যাটাস পেয়েছিলো আয়ারল্যান্ড। তবে এখনো খেলা হয়নি কোন টেস্ট প্লেয়িং দেশের সাথে। একই সঙ্গে টেস্ট স্ট্যাটাস পাওয়া আফগানিস্তান প্রথম টেস্ট খেলবে ভারতের বিপক্ষে। বসে নেই আয়ারল্যান্ডও। আগামী ১২ মে থেকে ডাবলিনে পাকিস্তানের বিপক্ষে একটি টেস্ট খেলবে আয়ারল্যান্ড।

আরও পড়ুনঃ কাউন্টি খেলবেন কোহলি

Related Articles

আইসিসি ওয়ানডে র‍্যাংকিংয়ে রস টেলরের রাজসিক উত্থান

কমলো অস্ট্রেলিয়ার সাথে বাংলাদেশের পয়েন্ট ব্যবধান

আকিলা ধনঞ্জয়ার বিরুদ্ধে অবৈধ অ্যাকশনের অভিযোগ

আইসিসির দিকে আল-জাজিরার অভিযোগের তীর

আইসিসির নতুন র‍্যাঙ্কিং সিস্টেমে চ্যালেঞ্জ দেখছেন পাপন