আইসিসি ট্রফি জিতে ‘সবথেকে দামি’ জিনিস পান পাইলট

এখন পর্যন্ত বাংলাদেশ ক্রিকেটের সেরা অর্জন ধরা হয় ১৯৯৭ সালের আইসিসি ট্রফি জয়। কেনিয়ার বিপক্ষে সেই ম্যাচ জয়ের জন্য সৃষ্টিকর্তার কাছে প্রার্থনা করেছিলেন খালেদ মাসুদ পাইলট। সবথেকে দামি জিনিস বিসর্জন দিয়ে হলেও ম্যাচটা জিততে চান। তবে কোনকিছুই হারাতে হয়নি তাকে, উল্টো সবথেকে দামি জিনিসটা পেয়েছেন তিনি।

করোনাকালে মানসিক অবসাদ কাটাতে অসাধারণ এক উদ্যোগ হাতে নিয়েছেন বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়ক তামিম ইকবাল। নিয়ম করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সরাসরি ভিডিও আড্ডা দিচ্ছেন তিনি। যেখানে এর আগে অনেক অতিথির সাথে আলাপকালে ১৯৯৭ সালের ট্রফি জয়ের ইতিহাস নিয়ে আলোচনা করেন তামিম।

Also Read - পাকিস্তানের সাথে বাংলাদেশি পেসারদের পার্থক্য জানালেন ওয়াসিম


মঙ্গলবার (১৯মে) তামিমের আড্ডার অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের সাবেক তিন ক্রিকেটার। যাদের অবদানেই প্রথমবারের মত বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে টাইগাররা। উপস্থিত ছিলেন আকরাম খান, মিনহাজুল আবেদিন নান্নু ও পাইলট। সেখানেও দীর্ঘ সময় আলোচনা চলে আইসিসি ট্রফি জয়ের স্মৃতি নিয়ে।

কেনিয়ার বিপক্ষে ফাইনাল ম্যাচে শেষ ওভারে এসে জয়ের জন্য বাংলাদেশ দলের প্রয়োজন ছিল ১১ রান। ক্রিজে ছিলেন উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান পাইলট। সেদিন শেষ ওভারে ১১ রান করে জয় ছিনিয়ে নেবার পাশাপাশি দেশকে গৌরবে ভাসাতে নিজের সবথেকে দামি জিনিস বাজি ধরেছিলেন তিনি।

পাইলট সেই সময় সৃষ্টিকর্তার কাছে প্রার্থনা করেন তার জীবনের সব থেকে দামি জিনিসটা নিয়ে হলেও যেন ম্যাচটা জিতিয়ে দেন। ম্যাচ জয়ের পর সগৌরবে দেশে ফেরে টাইগাররা। তবে এর জন্য নিজের সবথেকে দামি জিনিসটা বিসর্জন দিতে হয়নি পাইলটকে, উল্টো সবথেকে দামি জিনিসটা পেয়েছিলেন তিনি।

সেই ম্যাচের শেষ ওভারের আগে ঠিক কি হয়েছিল জানাতে গিয়ে পাইলট বলেন, ‘ক্রিকেটাররা অনেক কিছু বিসর্জন দেয়। এইটা কিন্তু অনেকেই বোঝেনা। ঐদিন বাইরে থেকে অনেকেই অনেক কিছু বলতেছে, তবে আমার কিন্তু আসলে মাঠের ভিতরে মনোযোগ ছিল। সবকিছু দেখলেও আমার মনের ভিতর শুধু একটাই কথা চলছিল যে, জিততে হবে। যেভাবেই হোক জিততে হবে।’

‘তখন আমি আল্লাহর কাছে দোয়া করলাম। বললাম, আল্লাহ যেভাবেই হোক এই ম্যাচটা জিতিয়ে দাও। যা কিছু লাগে, আমার জীবনের সবথেকে প্রিয় জিনিসটা তুমি নিয়ে নাও, কিন্তু তার বিনিময়ে ম্যাচটা জিতিয়ে দাও।’– সাথে যোগ করেন তিনি।

পরে পাইলটের কথার সূত্র ধরে আকরাম বলেন, ‘পাইলট যেটা বলল যে, আল্লাহর কাছে দোয়া করেছিল। শেষ ওভারে যেন ১১ রান করতে পারে, তার বিনিময়ে আল্লাহ তার সেরা জিনিসটা নিয়ে যাক। আল্লাহ আইসিসি ট্রফির পর সব থেকে ভালো জিনিসটা তো নেয়নি, সবথেকে ভালো জিনিসটা ওকে দিয়ে দিয়েছে।’

সেই দামি জিনিসটার কথাও উল্লেখ করেন আকরাম, ‘পাইলট যখন আইসিসি ট্রফি খেলতে যায়, তার আগে সে বিয়ে করে যায়। কিন্তু ওর শ্বশুর ওকে সহ্য করতে পারতো না। যখন আমরা জিতে দেশে ফিরলাম, দেখলাম ওর শ্বশুরের মাথায় রঙ, দাড়িতে রঙ। ওকে জড়িয়ে ধরে ওর গলায় স্বর্ণের চেইন পরিয়ে দিল। এই জিনিসটা আমি জীবনে ভুলতে পারবো না।’

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন