Scores

আগ্রাসী বোলিংয়ের সমালোচনায় কর্ণপাত নেই ওয়াগনারের

হ্যামিল্টন টেস্টে নেইল ওয়াগনারের গতি, বাউন্স আর সুইংয়ের ক্ষত হয়ত এখনও ভুলেনি বাংলাদেশ। সাপের ফণার মত উঠে আসা বোলিং এত সহজে ভুলতে পারার কথাও নয়! এরই মাঝে ওয়াগনার আবারও ত্রাস হয়ে দেখা দিয়েছেন ওয়েলিংটন টেস্টে।

আগ্রাসী বোলিংয়ের সমালোচনায় কর্ণপাত নেই ওয়াগনারের

বৃষ্টিতে ভিজে আর টানা দুই দিন আবরণের নিচে থেকে স্যাঁতসেঁতে হওয়া পিচের সুবিধা কাজে লাগিয়ে এদিন ক্রমাগত শর্ট বল করে গেছেন ওয়াগনার। বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানরা এমনিতেই পেসে অপেক্ষাকৃত দুর্বল। ওমন পেস বান্ধব সবুজ উইকেটে ব্যাট করতে নেমে যখন মোকাবেলা করতে হয় ওয়াগনারের গোলাগুলো, যা কিনা ছুঁয়ে যায় ঘাড়ের পাশটা… ওয়াগনারকে তো তখন টাইগারদের জন্য ‘আতঙ্ক’ এর আরেক প্রতিশব্দই বলা যায়!

Also Read - জাতীয় দলে ফিরলেই ফিরবে মোসাদ্দেকের সন্তুষ্টি


ওয়েলিংটন টেস্টের তৃতীয় দিন শুরু হওয়া খেলার নায়ক এখন পর্যন্ত ওয়াগনারই। শর্ট বলে ব্যাটসম্যানদের নাকাল বানিয়ে তিনি তুলে নিয়েছেন ৪টি উইকেট। দিনের খেলা শেষে সংবাদমাধ্যমের সাথে আলাপকালে ওয়াগনার জানালেন, শুরুতে উইকেটে সুইংয়ের সুবিধা না পাওয়ায় সবুজ পিচে শর্ট বল ছুঁড়ে দেওয়াতেই দিয়েছিলেন মনোযোগ।

তিনি বলেন, ‘শুরুতে ওই সময় কোনও সুইং ছিলো না। তাই সারফেস থেকে যতটুকু বাউন্স পাওয়া যায় সেদিকে নজর রাখছিলাম।’

বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের বাউন্স ছুঁড়ে দ্রুত সাজঘরে ফেরানোই ছিল ওয়াগনারের লক্ষ্য, যাতে তিনি সফলও হয়েছেন। ৩২ বছর বয়সী এই বাঁহাতি পেসার বলেন। ‘আমার লক্ষ্য ছিলো সেই বাউন্সের সুযোগটা কাজে লাগানো। যাতে করে হালকা খোঁচা অথবা গ্লাভসে বল স্পর্শ করে ব্যাটসম্যানদের আউট করা যায়।’

যদিও ওয়াগনারের এমন আগ্রাসী বোলিং, যা কিনা প্রতিপক্ষের দুর্বলতার সুযোগ কাজে লাগিয়ে দলকে এনে দিচ্ছে সাফল্য- তা নিয়ে চলছে সমালোচনা। তবে দলের ভালোর জন্য কাজ করতে গিয়ে এসব সমালোচনায় কান দিচ্ছেন না তিনি।

ওয়াগনার বলেন, ‘এ নিয়ে কী কথা হচ্ছে আমি সেদিকে নজর দিচ্ছি না। বলতে গেলে এ নিয়ে খুব বেশি ভাবিও না। দলের জন্য আমার কিছু করার দায়িত্ব এসেছে, তাই দলের জন্য ভূমিকা রাখতে চাই। তারা যা চাইবে সেজন্য সেরাটাই করবো।’

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

একাধিক রেকর্ড দিয়ে অ্যাশেজ শেষ করলেন স্মিথ

শেষ দুই ম্যাচের বাংলাদেশ দলে একাধিক চমক

বাংলাদেশকে হারিয়ে আফগানিস্তানের বিশ্বরেকর্ড

মুশফিক-রিয়াদ-সৌম্যর অবস্থান পরিবর্তন যে কারণে

নো বল আর অতিরিক্ত রান দেওয়াকে দুষছেন সাকিব