আজমল-গুলকে পেছনে ফেলে বিশ্বের তৃতীয় সেরা সাকিব

0
3802

এই ম্যাচের আগে উইকেট সংখ্যা ছিল ৮৫। তার চেয়ে বেশি সংখ্যক উইকেট শিকার করেছেন কেবল দুজন। তার সমান উইকেটও ছিল দুজনের। অর্থাৎ- শনিবার আর একটি উইকেট পেলেই বনে যাবেন টি-২০ ক্রিকেটের ইতিহাসের তৃতীয় সেরা বোলার।

আজমল-গুলকে পেছনে ফেলে বিশ্বের তৃতীয় সেরা সাকিব
সাকিব আল হাসান। ছবি: বিডিক্রিকটাইম

এমন সহজ ‘সমীকরণ’কে সামনে রেখে বাংলাদেশি ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান স্পর্শ করেছেন আরও একটি রেকর্ড। মিরপুরে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে সফরকারী উইন্ডিজের ইনিংসের ৩টি উইকেট শিকার করেছেন সাকিব। আর তাতেই তিনি বনে গেছেন টি-২০ ফরম্যাটের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের তৃতীয় সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি।

সিরিজের দ্বিতীয় টি-২০ শেষে সাকিবের উইকেট সংখ্যা ছিল ৮৫। টি-২০ ক্রিকেটের ইতিহাসে সাকিবের চেয়ে বেশি উইকেট শিকার করেছেন মাত্র দুইজন- পাকিস্তানের শহীদ আফ্রিদি (৯৮ উইকেট) ও শ্রীলঙ্কার লাসিথ মালিঙ্গা (৯২ উইকেট)। সাকিবের সমান ৮৫টি করে উইকেট ছিল পাকিস্তানের উমর গুল ও সাঈদ আজমলের। শনিবার ম্যাচের পঞ্চম ওভারে ক্যারিবীয় ওপেনার শাই হোপকে সাজঘরে ফিরিয়েই সাকিব ছাড়িয়ে যান আজমল ও গুলকে। পরবর্তীতে আরও দুটি উইকেট শিকার করেছেন সাকিব। ইনিংসের শেষদিকে তার দুর্দান্ত বোলিংয়ে পুরো ২০ ওভার খেলা হয়নি সফরকারী দলের। শেরফানে রাদারফোর্ড ও ফাবিয়ান অ্যালেনকে সাজঘরে ফিরিয়ে সাকিব উইকেট সংখ্যা নিয়ে যান ৮৮ তে।

Advertisment

সাকিবের এই কীর্তিতে সর্বোচ্চ উইকেটশিকারির তালিকায় এক ধাপ করে পিছিয়েছেন তৃতীয় স্থান হারানো গুল ও চতুর্থ স্থান হারানো আজমল (দুজনের উইকেট সংখ্যা সমান হলেও পরিসংখ্যানে এগিয়ে গুল)। তালিকায় ষষ্ঠ স্থানে আছেন আফগান স্পিনার মোহাম্মদ নবী। তার শিকারে রয়েছে ৬৭টি উইকেট। সপ্তম স্থানে থাকা শ্রীলঙ্কার অজন্তা মেন্ডিস টি-২০ ক্যারিয়ারে শিকার করেছেন ৬৬টি উইকেট। সমান সংখ্যক উইকেট শিকার করে অষ্টম স্থানে মেন্ডিসের স্বদেশী নুয়ান কুলাসেকারা। যথাক্রমে ৬৫ ও ৬৪টি উইকেট নিয়ে তালিকার নবম ও দশম স্থানে রয়েছেন ইংল্যান্ডের স্টুয়ার্ট ব্রড ও আফগানিস্তানের রশিদ খান।

টি-২০ ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশি উইকেট শিকার করা বোলারদের তালিকায় শীর্ষ ২০ এ নেই আর কোনো বাংলাদেশি। ২৬তম অবস্থানে রয়েছেন পেসার মুস্তাফিজুর রহমান। তার উইকেট সংখ্যা ৪৮।

আরও পড়ুন: সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে আগে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ