Scores

আজীবন নিষিদ্ধই থাকছেন শ্রীশান্ত!

প্রাক্তন ভারতীয় পেসার শ্রীশান্তের ওপর আজীবন নিষেধাজ্ঞা বহাল রাখল দেশটির সুপ্রিম কোর্ট। আইপিএলে স্পট ফিক্সিং কাণ্ডে অভিযুক্ত ছিলেন শ্রীশান্তে। এরপরই ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড শ্রীশান্তকে আজীবন নির্বাসনে পাঠায়।

আজীবন নিষিদ্ধই থাকছেন শ্রীশান্ত

বিসিসিআইয়ের সেই রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে নির্বাসন তুলে নেওয়ার জন্য সুপ্রিম কোর্টে আবেদন জানান শ্রীশান্ত। বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি অশোক ভূষণ ও কেএস জোশেফের বেঞ্চ সেই আবেদন খারিজ করে দেন। এবং শ্রীশান্ত আজীবন নির্বাসনের শাস্তি বহাল রাখেন।

Also Read - ধোনি-যাদবে সিরিজে এগিয়ে গেল ভারত


২০১৩ সালে আইপিএলে দুর্নীতি, বেটিং এবং ক্রিকেটকে কলঙ্কিত করার অভিযোগে দোষী সাব্যাস্ত হন শ্রীশান্ত। এরপর বিসিসিআই শ্রীশান্তকে ক্রিকেট থেকে আজীবন নির্বাসনের সাজা দেয়।  সেই মামলায় তার ওপর এই আজীবন নিষেধাজ্ঞা বহাল রাখে আদালত।

গত বৃহস্পতিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি অশোক ভূষণ ও কেএস জোসেফের বেঞ্চ শ্রীশান্তের করা সেই আবেদন খারিজ করে দেন এবং শ্রীশান্ত আজীবন নিষিদ্ধের শাস্তি বহাল রাখেন।

এদিকে এর আগে বোর্ডের দেওয়া নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার পক্ষে রায় দিয়েছিল কেরালা হাইকোর্ট। সেই রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে হাইকোর্টে আবেদন করে বিসিসিআই। রায়ে তার ওপর আজীবন নিষেধাজ্ঞা বহাল রাখেন আদালত।

নিষেধাজ্ঞা তুলতে আবারও দেশের সর্বোচ্চ আদালতের কাছে আপিল করেন শ্রীশান্ত। কিন্তু সুপ্রিম কোর্টেও ধাক্কা খান তিনি। শ্রীশান্তের আবেদন খারিজ করে দেয় দেশের সর্বোচ্চ আদালত সুপ্রিম কোর্ট। মানে এরপর ক্রিকেটে ফেরার আর কোনো পথই খোলা রইলো না শ্রীশান্তের জন্য। সুপ্রিম কোর্টে রিটটি খারিজ হওয়ার ফলে তাকে ক্রিকেট থেকে চূরান্ত ভাবে নিষিদ্ধ করা হলো।

শ্রীশান্ত প্রথমে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগের রাজস্থান রয়্যালসের সাথে চুক্তিবদ্ধ ছিলেন তিনি। ২০০৮ সালে সোহেল তানভীরের পর শ্রীশান্ত দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেট সংগ্রাহক ছিলেন। ২০০৯ সালে আইপিএলের দ্বিতীয়ার্ধ্বে অংশ নেন। কিন্তু আঘাতের কারণে দলের বাইরে ছিলেন। ২০১০ সালে কিংস ইলাভেন পাঞ্জাব ও ২০১১ সালে কোচির সাথে খেলেন।

২০১২ সালে রাজস্থান রয়্যালসের সাথে থাকলেও আঘাতের কারণে খেলেননি। ২০১৩ সালে পাতানো খেলা নিয়ে বিতর্ক চলতে থাকলে রাজস্থান কর্তৃপক্ষ তার সাথে চুক্তি বাতিল করে।এরপরই ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড শ্রীশান্তকে আজীবন নির্বাসনে পাঠায়।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

এবার আর কোহলির কথা শুনবে না বিসিসিআই

কোচিং স্টাফে বড় রদবদল আনছে ভারত

শচীন-সৌরভদের আবারো নোটিশ দিল বিসিসিআই

এক পক্ষের নমনীয়তায় ধোনির গ্লাভস বিতর্কের সমাপ্তি

ধোনির কাজে ‘আইন লঙ্ঘন’, নাখোশ আইসিসি