Scores

আত্মবিশ্বাস বেড়েছে নাসিরের

Nasir-Hossain-at-Press-conference

মোঃ সিয়াম চৌধুরী

ফর্ম হারিয়ে জাতীয় দলে জায়গা হারিয়েছিলেন। একটা সময় শঙ্কা ছিল বিশ্বকাপে জায়গা পাওয়া নিয়েও। তবে জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে ঘোষিত হতে যাওয়া বিশ্বকাপের দলে জায়গা পাওয়াটা নাসিরের জন্য এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র।

Also Read - মর্যাদার লড়াইয়ে আবাহনীর কাছে হারল মোহামেডান


জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে হোম সিরিজের আগে বিসিবির লাল ও সবুজ দলের মধ্যকার প্রস্তুতি ম্যাচে ভালো করেছিলেন, তবুও জায়গা হয়নি দলে। নির্বাচকেরা আরও একটু সময় দিলেন নাসিরকে। এরপর কলকাতায় আচার্য মেমোরিয়াল ট্রফিতেও পুরো দলের একমাত্র ভরসা হয়ে উপহার দিলেন দুর্দান্ত কিছু ইনিংস। তবুও বিশ্বকাপ দলে নাসিরের উপস্থিতি নিয়ে নানা গুঞ্জন ছিলই। এবার নাসির নিজেই যেন পানি ঢেলে দিলেন সেই গুঞ্জনে। ফিরে পাওয়া ফর্মের ধারাবাহিকতায় উজ্জ্বল নাসির আজ আবাহনীকে ম্যাচ জিতিয়েছেন, তাও আবার চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী মোহামেডানের বিপক্ষে! তাঁর ঝড়ো গতির ইনিংসেই জয় দিয়ে সুপার লীগ পর্ব শুরু করতে পেরেছে ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশনের অন্যতম সেরা দল আবাহনী লিমিটেড।

মূল পর্বে বেশ কয়েকটি ম্যাচে আবির্ভূত হয়েছিলেন দলের ত্রাতা হয়ে। মোহামেডানের বিপক্ষে ম্যাচেও জ্বলে উঠে প্রমাণ করলেন, বিশ্বকাপ দলে তাঁকে দেখতে চেয়ে ভুল করেননি ক্রিকেট স্পেশালিষ্ট ও সাবেক তারকারা। ম্যাচের ১ম ইনিংসে বল হাতে উইকেট নিয়েছেন মাত্র ১টি, তবে সেটিই অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ। ১০৯ রান করে দানবীয় রূপ ধারণ করা আরিফুল হককে ফিরিয়ে মোহামেডানের রানের লাগাম টেনে ধরায় মূল অবদান নাসিরেরই। এছাড়া পুরো ম্যাচে রান বিলিয়েছেন যেন গোনে গোনে, ১০ ওভার বল করে মেডেন না পেলেও দিয়েছেন মাত্র ৩৪ রান। তবে মূল কাজটা করেছেন অবশ্য ব্যাট হাতেই। টপ অর্ডারের ব্যর্থতা ও মিডল অর্ডারের ধীরগতির ব্যাটিংয়ে জয়টা বেশ দূরে সরে যাচ্ছিল। তবে সেটাকে অস্পষ্ট হতে দেননি নাসির। ৫ম ব্যাটসম্যান হিসেবে নেমে মাত্র ৬৯ বল খেলে অপরাজিত ছিলেন ৮২ রান করে। হাঁকিয়েছেন ৫টি করে চার ও ছক্কা। স্ট্রাইক রেট ১১৮.৮৪। ১০৪ মিনিট উইকেটে টিকে থেকে ৪ বল বাকী থাকতে দলকে জিতিয়েই ফিরেছেন ড্রেসিংরুমে।

ম্যাচ সেরা হওয়া নাসিরের আত্মবিশ্বাস বেড়েছে দুর্দান্ত এই ইনিংসে। সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, ‘ব্যাটসম্যানের জন্য প্রতিটি ইনিংসই গুরুত্বপূর্ণ। যে কোনো পর্যায়ের খেলায় রান গুরুত্বপূর্ণ। ক্যারিয়ার ও আত্মবিশ্বাসে এমন ইনিংস অনেক সাহায্য করে। এই ইনিংস আমার আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দিয়েছে। ভালো খেলতে হবে, বিশ্বকাপে খেলতে হবে, এমন কিছু আমার মাথায় ছিল না। আমি শুধু পরিস্থিতি অনুযায়ী খেলার চেষ্টা করেছি।’

জাতীয় দলে জোর করে ঢুকতে চান না জানিয়ে মিস্টার ফিনিশার খ্যাত এই ক্রিকেটার বলেছেন, ‘আমার এমন কোন দাবি নেই। এটা দেখার জন্য নির্বাচকরা আছেন। বোর্ড কর্মকর্তারা আছেন, তারা দেখবেন।’

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন
Tweet 20
fb-share-icon20

Related Articles

ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে হাসপাতালে মাশরাফি

এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ জিতলো ভারত

মেডিকেল রিপোর্টের উপরেই নির্ভর করছে সাকিবের এনওসি

শঙ্কা কাটিয়ে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে খেলছেন মুস্তাফিজ

দুদকের শুভেচ্ছাদূত হলেন সাকিব