Scores

আপ্রাণ চেষ্টা করেও ভোলানো যাচ্ছে না স্যামিকে

ড্যারেন স্যামি অভিযোগ এনেছেন, ভারতে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ খেলতে গিয়ে বর্ণবাদের শিকার হয়েছেন। যারা বর্ণবৈষম্য করেছেন তাদেরকে ক্ষমাপ্রার্থনাও করতে বলেছেন তিনি। এরপর স্যামির মান ভাঙাতে চেষ্টা করছেন ভারতীয় সমর্থকেরা। তবে কিছুতেই ভোলানো যাচ্ছে না তাকে।

ড্যারেন স্যামি

বর্ণবৈষম্য নতুন কোন ঘটনা নয়। যুগ যুগ ধরে সাদা-কালো চামড়ার ভেদাভেদ হয়ে আসছে পৃথিবীতে। এনিয়ে অনেক লড়াই সংগ্রাম ইতিহাসের পাতা ভারি করলেও আখেরে লাভ তেমন হয়নি বললেই চলে। সম্প্রতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে জর্জ ফ্লয়েড ‘হত্যাকাণ্ড’ আরও বেশি প্রতিবাদী করে তুলেছে কৃষ্ণাঙ্গদের।

Also Read - রশিদের মতো 'বিপ্লব' ঘটিয়েছেন মুস্তাফিজ!


ফ্লয়েড হত্যাকাণ্ডের পর বর্ণবিদ্বেষের বিপক্ষে দাঁড়িয়েছেন স্যামি। এনিয়ে টুইটারে প্রতিবাদ জানিয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাবেক অধিনায়ক। এরপর স্যামি অভিযোগ নেমেছেন, ভারতে ফ্র‍্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট খেলতে গিয়ে নিজেই বর্ণবৈষম্যের শিকার হয়েছেন তিনি।

স্যামির অভিযোগের সত্যতা মিলেছে ভারতীয় পেসার ইশান্ত শর্মার পুরানো এক পোস্টে। ২০১৪ সালে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ছবি শেয়ার করে ইশান্ত লিখেছিলেন, ‘আমি, ভুবি, কালু এবং গান রাইজার্স।’

এই ঘটনা সামনে আসার পর আরও চটেছেন স্যামি। আইপিএলের যে সকল সতীর্থ তাকে কটাক্ষ করতো, তাদেরকে কারণ দর্শানো এবং ক্ষমা চাওয়ার জন্য বার্তা দিয়েছেন তিনি। এরপর স্যামির মান ভাঙাতে উঠেপড়ে লেগেছে ভারতীয় সমর্থকেরা।

অভিনব খারে নামের এক সমর্থক স্যামিকে উদ্দেশ্য করে টুইটারে লিখেছেন, ‘ড্যারেন স্যামি, কালু মানেই সবসময় বর্ণবিদ্বেষী মন্তব্য নয়। ভারতে প্রায় সব পরিবারেই কালু নামটি ব্যবহার করা হয়। আমার পরিবারেও এর চল আছে। আমার দাদি আমাকে কালু নামে ডাকতেন। এটা নির্ভর করে কোন পরিপ্রেক্ষিতে আর কোন ভঙ্গিমায় বলা হচ্ছে। হ্যাঁ এটা বর্ণবিদ্বেষী হতেই পারে। তবে সবসময় নয়।’

সেই লেখা চোখে ধরেছে স্যামির। তবে এতে যেন আরও বিপত্তি বেড়েছে। সেই টুইটের উত্তরে স্যামি লিখেছেন ‘এই শব্দটি যদি বর্ণবিদ্বেষী মন্তব্যের কারণ হয়ে থাক, তবে সেটা প্রয়োগ করার কোনও দরকার আছে বলে আমার মনে হয় না।’

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

ক্ষমা চেয়েও চাকরি ফিরে পেলেন না সঞ্জয়

আইপিএলে স্পন্সর হিসেবে থাকছে না ভিভো

আইপিএলকে ‘না’ বলায় কোনো আক্ষেপ নেই স্টার্কের

সারা বছর ফুটবলের মত টি-টোয়েন্টি লিগের পরিকল্পনা ক্যামেরুনের

আইপিএল ধারাভাষ্যে ফিরতে আবেদন করেছেন সঞ্জয়