আফিফের সাথে অভিজ্ঞদেরকে নিয়ে দল সাজিয়েছে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স

দলের বেশিরভাগ ক্রিকেটারই বেশ অভিজ্ঞ। দেশি তারকা আফিফকে সরাসরি চুক্তিতে দলে নিয়েছে চট্টগ্রাম।

আফিফের সাথে অভিজ্ঞদেরকে নিয়ে দল সাজিয়েছে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স

রাইসান কবির
ক্রীড়া প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে -

আপডেট হয়েছে -

খেলার সারসংক্ষেপ

  • আফিফের সাথে অভিজ্ঞদেরকে নিয়ে দল সাজিয়েছে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স
  • দলে আছেন ফরহাদ রেজা, জিয়াউর রহমানের মত অভিজ্ঞরা
  • প্রথম ভারতীয় ক্রিকেটার হিসেবে বিপিএল মাতাতে আসছেন উন্মুক্ত চাঁদ
  • বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) নবম আসরের প্লেয়ারস ড্রাফট সমাপ্ত হয়েছে। ফ্র্যাঞ্জাইজিগুলো নিজেদের মত করে দলে ভিড়িয়েছে তাদের পছন্দের ক্রিকেটারদেরকে। প্রায় সব দলই তারকা ক্রিকেটারদের দিকেই বেশি ঝুঁকেছে।
    চট্টগ্রামের জার্সিতে এবারও দেখা যাবে আফিফকে। ফাইল ছবি
    ড্রাফটের আগেই সরাসরি চুক্তিতে একজন করে দেশি ক্রিকেটারকে দলে টানার সুযোগ পেয়েছিল ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো। এখনও পর্যন্ত শিরোপার দেখা না পাওয়া চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স সেই কোটায় দলে টেনেছে তরুণ তারকা ক্রিকেটার আফিফ হোসেন ধ্রুবকে। এছাড়াও ড্রাফটের আগে বিদেশি অনেক ক্রিকেটারকেও সরাসরি চুক্তিতে দলে নিয়েছে তারা। ড্রাফট থেকে ১০ জন দেশি ক্রিকেটারের পাশাপাশি ২ জন বিদেশি ক্রিকেটারকে দলে টেনেছে চট্টগ্রাম।
     
    সরাসরি চুক্তিতে আফিফকে দলে নিয়েছে চট্টগ্রামবিপিএলের গত আসরেও চট্টগ্রামের হয় খেলেছেন আফিফ। শেষদিকে দলকে নেতৃত্বও দিয়েছেন কয়েকটি ম্যাচ। বাংলাদেশের হয়ে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে নিয়মিতই খেলে থাকেন আফিফ। ইতোমধ্যেই দলের বড় এক ভরসার নাম হয়ে উঠেছেন তিনি। বল হাতে এখনও পর্যন্ত খুব বেশি কার্যকরী না হলেও ব্যাট হাতে দারুণ আফিফ। জাতীয় দল, বিপিএলসহ ঘরোয়া সকল টুর্নামেন্টেই ব্যাট হাতে আলো ছড়িয়েছেন আফিফ।
     
    জাতীয় দলের হয়ে এখনও পর্যন্ত ৫৫ ইনিংস খেলে ১০০৩ রান করে ফেলেছেন আফিফ। স্ট্রাইকরেট ১২০.৫৫, গড় ২১.৩৪। বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের বাস্তবতা বিবেচনায় নিলে খুব একটা খারাপ নয়। সদ্য সমাপ্ত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও ভালোই করেছেন আফিফ। জয়ী ২ ম্যাচে ব্যাট হাতে খেলেছেন কার্যকরী ইনিংস। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ কান্ডারী আফিফই। বিপিএলের আসন্ন মৌসুমেও নিশ্চিতভাবে নিজেকে আরও ভালোভাবে মেলে ধরতে চাইবেন তিনি। চট্টগ্রামের সবচেয়ে বড় ভরসাটা তাই আফিফই হতে যাচ্ছেন।
      বিশ্বকাপের দারুণ খেলা ডাচ ব্যাটার ম্যাক্স ও'দুদকে দলে টেনেছে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। ফাইল ছবি
    আফিফ ছাড়াও দলে আছেন আরেক সম্ভাবনাময় তরুণ ক্রিকেটার পেস বোলিং অলরাউন্ডার মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী। বাংলাদেশের হয়ে অনুর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী এই ক্রিকেটার বিপিএলের গত আসরেও খেলেছেন চট্টগ্রামেই। গত আসরে দারুণ খেলেছিলেন মৃত্যুঞ্জয়, সেই পারফরম্যান্স দিয়েই সকলের নজরে আসেন তিনি। এরপর ঘরোয়া টুর্নামেন্টগুলোতেও ভালো করছেন নিয়মিত। বাংলাদেশ জাতীয় দলে এখনও পর্যন্ত ডাক না পেলেও আছেন দলের ধারেকাছেই। সর্বশেষ বিশ্বকাপের দলের বিবেচনাতেও শোনা গেছে মৃত্যুঞ্জয়ের নাম। জাতীয় দলের দরজায় কড়া নাড়তে থাকা মৃত্যুঞ্জয় নিশ্চিতভাবেই আসন্ন বিপিএল দিয়ে নিজের দাবিটা আরও জোরালোভাবে জানিয়ে রাখতে চাইবেন।

    এছাড়া বাকি ক্রিকেটারদের বেশিরভাগই মোটামুটি অভিজ্ঞ। অভিজ্ঞ ওপেনার মেহেদি মারুফের সাথে চ্যালেঞ্জারদের দলে আছেন অলরাউন্ডার শুভাগত হোম চৌধুরী। ঘরোয়া ক্রিকেটের পরিচিত মুখ উইকেটরক্ষক ব্যাটার ইরফান শুক্কুরকেও দলে নিয়েছে চট্টগ্রাম। সেই সাথে দুই অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার ফরহাদ রেজা এবং জিয়াউর রহমানকেও দেখা যাবে চট্টগ্রামের জার্সিতে।

    বিদেশিদের মধ্যে নেদারল্যান্ডসের হয়ে সর্বশেষ বিশ্বকাপে দারুণ খেলা ম্যাক্স ও’দুদ আছেন দলে। এছাড়াও প্রথম ভারতীয় ক্রিকেটার হিসেবে বিপিএলে খেলতে যাচ্ছেন উন্মুক্ত চাঁদ। ব্যাটিংয়ে চট্টগ্রামের বড় ভরসা হয়ে থাকবেন এরাই। তার পাশাপাশি দুই অলরাউন্ডার আশান প্রিয়াঞ্জন এবং কার্টিস ক্যাম্ফারও নিঃসন্দেহে দলের শক্তি বাড়াতে ভূমিকা রাখবেন।  
    অভিজ্ঞ ক্রিকেটার শুভাগত হোম খেলবেন চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সে। ফাইল ছবি
    বোলিংয়েও বেশিরভাগ ক্ষেত্রে অভিজ্ঞদের দিকেই ঝুঁকেছে চট্টগ্রাম। পেস বোলিংয়ে আবু জায়েদ চৌধুরী রাহির সাথে বিপিএলে প্রায়ই ভালো করা মেহেদি হাসান রানাকে দলে টেনেছে তারা। এছাড়া লঙ্কান পেসার বিশ্ব ফার্নান্দোকেও দেখা যাবে চট্টগ্রামের জার্সিতে। বিশেষজ্ঞ স্পিনার হিসেবে কেবল তাইজুল ইসলামকেই দলে টেনেছে ফ্র্যাঞ্চাইজিটি। এছাড়া কাজ চালানোর অফ স্পিন করতে পারেন লঙ্কান অলরাউন্ডার আশান প্রিয়াঞ্জন। সব মিলিয়ে বেশ অভিজ্ঞ এক বোলিং লাইনআপই গড়েছে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স।

    শুরু থেকেই বিপিএলে অংশগ্রহণ করে আসছে চট্টগ্রামের দল। কিন্তু এখনও পর্যন্ত বিপিএলের শিরোপার স্বাদ পায়নি তারা। এবার অভিজ্ঞদেরকে নিয়ে শিরোপার লড়াইয়ে নামবে তারা। বেশ জমজমাট এক বিপিএলই হয়ত অপেক্ষা করছে সকলের জন্য।   


    বাংলাদেশের ক্রিকেটসহ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সব ধরনের খবর সবার আগে পেতে এখানে ক্লিক করে সাবস্ক্রাইব করুন BDCricTime Videos চ্যানেলটি। বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।
     
     
          
    সম্পর্কিত খবর