Scores

‘আফ্রিদি আমার সাথে ধর্মের কারণে বৈষম্য করতো’

করোনা ভাইরাসের কারনে থমকে গিয়েছে পুরো ক্রিকেট বিশ্ব। সকল ধরনের ক্রিকেট আপাতত বন্ধ। শুধু ক্রিকেট নয় সকল ধরনের খেলার আসরই বলতে গেলে এখন বন্ধ। আইসিসি তাদের বিভিন্ন বাছাইপর্বের খেলা আগামী জুলাই মাস পর্যন্ত বন্ধ রেখেছে। লম্বা সময় ক্রিকেট ভক্তদের জন্য থাকছেনা কোনো আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। তবে ক্রিকেট না থাকলেও নানান খবরে সরগরম ক্রিকেট মিডিয়া। বিশেষ করে পাকিস্তান থেকে কিছুদিন পরপরই আসছে বিতর্কিত বিভিন্ন খবর। এইবার সেই তালিকায় যোগ হলো আরো একটি খবর।

পাকিস্তানের হয়ে টেস্টে সর্বোচ্চ উইকেট রয়েছে দানিশ কানেরিয়ার একজন স্পিনার হিসেবে। তবে সেই দানিশ কানেরিয়াকে নিয়েই গত বছর বিস্ফোরক মন্তব্য করেন পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার শোয়েব আখতার। শোয়েব বলেছিলেন ধর্মীয় কারনে কেউ কেউ তার সাথে ভালো ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকতো। কানেরিয়া তখন বলেছিলেন তিনি শীঘ্রই তাদের নাম জানাবেন। তখন না জানালেও সম্প্রতি পিটিআইকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তার কথা জানান দানিশ কানেরিয়া।

Also Read - জুলাইয়ে শ্রীলঙ্কা সফরে সম্মতি আছে ভারতের!


কানেরিয়ার অভিযোগ পাকিস্তানের তারকা ক্রিকেটার শহীদ আফ্রিদির দিকে। কানেরিয়া বলেন, ” আফ্রিদি সবসময় আমার বিপক্ষে ছিলো। সেটা আমরা যখন একসাথে ঘরোয়া ক্রিকেট খেলতাম তখনও, যখন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলতাম তখনও। যদি একজন মানুষ সবসময় আপনার বিপক্ষে হয় এবং আপনি যদি সেই পরিস্থিতিতে থাকেন তাহলে ধর্মীয় কারন ছাড়া আপনি কি চিন্তা করবেন? ”

কানেরিয়া তার বেশি ওয়ানডে না খেলার কারন হিসেবেও আফ্রিদির নাম উল্লেখ্য করেন। কানেরিয়া বলেন,” আমি বেশি ওয়ানডে খেলতে পারিনি তার জন্য এবং সে আমার সাথে বিমাতাসুলভ আচরন করতে যখন আমরা ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলতাম তখনও। সে আমাকে দলের বাইরে রাখতো ও অনেক সময় একই কাজ আন্তর্জাতিকেও করতো কোন কারন ছাড়াই। সে সবসময় অন্য খেলোয়াড়দের সমর্থন করতো কিন্তু আমাকে কখনো সমর্থন করেনি সে। তবে বিধাতাকে ধন্যবাদ আমি এরপরও পাকিস্তানের জন্য খেলেছি অনেক এবং আমি এর জন্য অনেক গর্বিত “।

কানেরিয়া আরে বলেন ” আমি একজন লেগ স্পিনার ছিলাম, সেও একজন লেগ স্পিনার ছিলো। সে একজন বড় তারকা ছিলো এবং পাকিস্তানের জন্যও খেলেছিলো তবে এরপরও আমার সাথে এমন আচরন? কেনো? তারা বলতো একাদশে দুইজন স্পিনার খেলতে পারবেনা। তারা এটাও বলতো আমার ফিল্ডিংয়ে সমস্যা। আপনি আমাকে বলেন সেই সময় কারা অসাধারণ ফিল্ডার ছিলো তখন? তখন বড়জোর দুই একজন ভালো ফিল্ডার ছিলো। পাকিস্তান কখনোই ভালো ফিল্ডিংয়ের জন্য পরিচিত ছিলোনা। যখন আমি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলতাম না তখন সে আমাকে ঘরোয়া ক্রিকেটে এসে দল থেকে বের করে দিতো “।

কানেরিয়া বাকি অধিনায়কদের বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ আনেননি। কানেরিয়া সেই ব্যাপারে বলেন ” আমি ধর্মীয় দিক টানতে চাইনা, আমি শুধু পিসিবির সমর্থন চাই। তারা যদি আমির, আসিফকে সাহায্য করতে পারে আমাকে কেনো নয়? আমি মইন খান, রশিদ লতিফ, ইনজামাম ভাই ও ইউনুস ভাইয়ের অধীনে খেলেছি। আফ্রিদির অধীনে বেশি খেলা হয়নি। ইনজামাম ও ইউনুস ভাই আমাকে অনেক সমর্থন করতো । আমি ইনজামাম ভাইয়ের প্রতি চির কৃতজ্ঞ থাকবো। তার অধীনে আমি অনেক ভালো খেলেছি “।

কানেরিয়ার অভিযোগের কোনো জবাব এখনো দেননি আফ্রিদি। এখন দেখার পালা এই ব্যাপারে আফ্রিদি কি বলেন।

Related Articles

সতীর্থদের পর এবার বোর্ডের বিরুদ্ধে একই অভিযোগ কানেরিয়ার

আকমল ইস্যুতে পিসিবির উপর চটেছেন কানেরিয়া

কানেরিয়ার সাথে এ কেমন নির্মম আচরন করলো পিসিবি!

যুবরাজ-হরভজনের কাছে কানেরিয়ার আর্জি

ভারতের হয়ে খেললেন পাকিস্তানি ক্রিকেটার!