আমার এখনো অনেক উন্নতি করতে হবে : মেহেদী

0
1329

দলের প্রয়োজন ব্যাটিং কিংবা বোলিং দুই বিভাগেই ইনিংস উদ্বোধন করার প্রতীক হয়ে উঠেছেন শেখ মেহেদী হাসান। জাতীয় দলে ব্যাট হাতে মাত্র একবার ইনিংস উদ্বোধন করলেও ঘরোয়া ক্রিকেটে প্রায়ই করেন। জাতীয় দলে এবার বল হাতেও নিয়মিত উদ্বোধন করতে দেখা গিয়েছে তাকে।

আমার এখনো অনেক উন্নতি করতে হবে মেহেদী

Advertisment

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে মেহেদীর পথচলা খুব বেশি দিনের না। সংক্ষিপ্ত সংস্করণের টি-টোয়েন্টি ম্যাচেই কেবল নিয়মিত মুখ তিনি। বল কিংবা ব্যাট হাতে দলের প্রয়োজনে নিজেকে উজাড় করে দিতে পারেন এই অলরাউন্ডার। তিনি নিজে মনে করেন তার উন্নতির এখনো অনেককিছু বাকি। নিজেকে পরিপূর্ণ করে গড়ে তোলার জন্য প্রতিনিয়ত নতুন কিছু শিখতে চান এই ক্রিকেটার।

বিডিক্রিকটাইমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে মেহেদী বলেন, ‘আমি এখনো কোনো কিছুতেই পরিপূর্ণ না। আমার দক্ষতায় আরও অনেক উন্নতি করতে হবে, ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিং তিন বিভাগেই। আমার উন্নতির আরও অনেক জায়গা আছে। দেশের মাটিতে এবং বিদেশের মাটিতে- সব জায়গায় উন্নতি করতে হবে। উন্নতির কোনো শেষ নেই। জীবনে যতদিন ক্রিকেট খেলতে হবে অবশ্যই শিখতে হবে। প্রতিনিয়ত নতুন কিছু আনতে হবে।’

সম্প্রতি জিম্বাবুয়ে ও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে খেলেছেন মেহেদী। দুই দলের মধ্যে বিশাল ফারাক হলেও কোনো দলের বিপক্ষে নেওয়া উইকেটকেই ছোট করে দেখছেন না তিনি।

মেহেদী বলেন, ‘জিম্বাবুয়ে এবং অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বোলিং পার্থক্য অবশ্যই আছে। প্রত্যেকটা উইকেটই গুরুত্বপূর্ণ। প্রত্যেকটা উইকেটই আনন্দের, অস্ট্রেলিয়া কিংবা জিম্বাবুয়ে বা অন্য দল যাইহোক। প্রতিটা উইকেট পেতে বোলারকে অনেক কষ্ট করতে হয়।’

অস্ট্রেলিয়া সিরিজে বল হাতে সুযোগ দারুণভাবে কাজে লাগিয়েছেন মেহেদী। ব্যাট হাতে শুরুতে না পারলেও প্রয়োজনের সময়ে ব্যাট হাতেও দাঁড়িয়ে গিয়েছিলেন তিনি। এই সিরিজকে ক্যারিয়ারের টার্নিং হিসেবে না দেখলেও আত্মবিশ্বাস গঠনের জায়গা হিসেবেই দেখছেন।

মেহেদী বলেন, ‘অস্ট্রেলিয়া সিরিজ আমার ক্যারিয়ারের টার্নিং পয়েন্ট কিনা বলতে পারব না। প্রতিটি খেলোয়াড়ের ক্যারিয়ারেই টার্নিং পয়েন্ট থাকে। আমি বুঝিনি এখনো আমার টার্নিং পয়েন্ট কোনটা। তবে একটি বড় দলের বিপক্ষে সিরিজ জিতলে নিজের প্রতি আত্মবিশ্বাস অনেক বৃদ্ধি পায়। আমারও লক্ষ্য থাকে সুযোগ পেলেই নিজের সেরাটা দেওয়ার।’