SCORE

‘এবারের চ্যালেঞ্জটা আগের তুলনায় সহজ’

আগামীকাল চার জুলাই থেকে অ্যান্টিগায় শুরু হচ্ছে উইন্ডিজ বনাম বাংলাদেশ দলের টেস্ট সিরিজ। এই টেস্ট সিরিজকে নিয়ে অনেকেই রোমন্থন করছেন পুরনো স্মৃতি।

'এবারের চ্যালেঞ্জটা আগের তুলনায় সহজ'

২০০৯ সালে এই সিরিজ দিয়েই প্রথম আবির্ভাব হয় বাংলাদেশ দলের টেস্ট কাপ্তান সাকিব আল হাসানের। মাশরাফি বিন মুর্তজার অবর্তমানে দুই ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে দায়িত্ব পান তরুণ সাকিব। ব্যাটে বলে অসাধারণ পারফরম্যান্স করে ২-০ ব্যবধানে জেতান সিরিজ।

Also Read - জিম্বাবুয়ের ক্রিকেট বাঁচাতে পদক্ষেপ নিচ্ছে আইসিসি

উঠে আসেন অলরাউন্ডার র‍্যাংকিং এর শীর্ষে। এই ম্যাচের আগে নিশ্চয়ই একটু হলেও মনে করার কথা সেই মুহূর্তগুলো। আগের থেকে এবারের দলও অনেক ভালো। সাকিব বলেন, ‘সত্যি কথা বলতে, অতটা উত্তেজনা লাগছে না। আমার মতে এবারের চ্যালেঞ্জটা আগের তুলনায় সহজ। কারণ, সাম্প্রতিক সময়ে দল এখন উন্নতি করছে।’

সেই উত্থানের পর সাকিব পাড়ি দিয়েছেন অনেক পথ। দিনে দিনে নিজেকে করেছেন পরিণত। আর এ নিয়ে অলরাউন্ডারের মত হচ্ছে ভালো শুরুর পর সবাইকে করতে হয় সংগ্রাম। সেই সংগ্রামের মধ্য দিয়ে এসেছেন সাকিবও। এরপর ধীরে ধীরে উন্নতি আর সংগ্রাম চলে একই সাথে। অভ্যাসের মত হয়ে গেলে সহজ হয়ে যায় সবকিছু।

উইন্ডিজ সফরে বাংলাদেশকে যে জিনিসটা সবচেয়ে বেশি চিন্তায় ফেলছে সেটা হচ্ছে পেস বোলারদের ফর্মহীনতা। সাম্প্রতিক সময়ের যত সাফল্য তাঁর প্রায় পুরোটাই এসেছে স্পিন বোলারদের হাত ধরে। তবে দেশের বাইরে স্পিন বোলারদের যোগ্য সহায়তা না দিতে পারলে আসবে না ভালো ফল। সেটাই ভাবাচ্ছে সাকিবকে। তাঁর মতে, ‘আমাদের পেসারদের ঘরে-বাইরে দুই জায়গাতেই সংগ্রাম করতে হয়। সর্বশেষ কোন পেসার এক ইনিংসে ৫ উইকেট নিয়েছে, তা মনে নেই। এই জায়গায় উন্নতি করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।’

আগামীকাল থেকে দ্বিতীয় মেয়াদে টেস্ট অধিনায়কত্ব শুরু হচ্ছে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিবের। এই সিরিজে চাপ থাকবে সাকিবের উপর। টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে উইন্ডিজের বিপক্ষে তাঁর সর্বশেষ স্মৃতি মধুর। সেই পুরনো স্মৃতির পুনরাবৃত্তি করতে পারবেন কি না সাকিব সেটাই এখন দেখার বিষয়।

আরো পড়ুন: উইন্ডিজ সফরের ওয়ানডে দল ঘোষণা

Related Articles

সিপিএলে ত্রিনবাগোর টানা দ্বিতীয় শিরোপা

বাদ পড়লেন স্মিথ-কামিন্স

বোলিংয়ের অনুমতি পেলেন বিটন

দুই ট্রফি নিয়ে দেশে ফিরলো বাংলাদেশ

বাংলাদেশকে কৃতিত্ব দিতে কার্পণ্য নেই ব্র্যাথওয়েটের কণ্ঠে