Scores

আমার স্বপ্ন অনেক বড় : তাসকিন

তাসকিন আহমেদের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে শুরুটা দারুণ হলেও বছর দুয়েকের মাথায় নিষ্প্রভ হয়ে গিয়েছিলেন এই পেসার। তবে পরিশ্রমের ফল যে মিষ্টি হয় সেই কথাটিই আরেকবার চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়ে দলে ফিরেছেন ও প্রত্যাবর্তনও দারুণ হয়েছে তার। এখন তার স্বপ্ন অনেক বড়- বিডিক্রিকটাইমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে জানান তাসকিন।

অজুহাত না খুঁজে নিউজিল্যান্ডে ভালো খেলতে প্রতিজ্ঞ তাসকিন

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজ দিয়ে দীর্ঘদিন পরে একাদশে ফেরেন তাসকিন। সেই ম্যাচে পান ১টি উইকেট। এরপরে নিউজিল্যান্ডে ৩টি ওয়ানডে খেলে পান ২টি উইকেট ও শ্রীলঙ্কায় ২টি টেস্ট খেলে পান ৮টি উইকেট। পরিসংখ্যানের থেকেও তাসকিনের মাঠের পারফরম্যান্স ছিল আরও উজ্জ্বল, ভাগ্য ভালো থাকলে পেতে পারতেন আরও উইকেট।

Also Read - আল জাজিরার প্রতিবেদনে দুর্নীতির প্রমাণ পায়নি আইসিসি


প্রত্যাবর্তন ও শ্রীলঙ্কায় পারফরম্যান্স নিয়ে তাসকিন বলেন,শ্রীলঙ্কায় (খেলা) অনেক বেশি চ্যালেঞ্জিং ছিল। ফ্ল্যাট উইকেট ছিল, অনেক কষ্ট করে বোলিং করতে হয়েছিল। কষ্ট করার পেছনে একটাই লক্ষ্য থাকে যেন জাতীয় দলে খেলার সুযোগ সবসময় পাই। আল্লাহর কাছে শুকরিয়া যে আগের চেয়ে উন্নতি হচ্ছে।’

তবে আত্মতৃপ্তিতে ভুগছেন না এই পেসার, ‘এখনই এমন কিছু করে ফেলিনি যে খুশি হতে হবে। আমার স্বপ্ন অনেক বড়। সবাই দোয়া করবেন যেন আমি আমার স্বপ্ন পূরণ করতে পারি, লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারি।’

বর্তমান পারফরম্যান্স ও ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নিয়ে তাসকিনের ভাষ্য,যা হয়েছে আলহামদুলিল্লাহ। ভালো হোক, খারাপ হোক সবসময়ই আলহামদুলিল্লাহ বলবো কারণ আল্লাহই সেরা পরিকল্পনাকারী। তিনি সবসময়ই আমাদের জন্য ভালো পরিকল্পনা করেন। আমি খুব বেশি খুশিও না, খুব দুঃখিতও না। মোটামুটি খুশি কারণ আমার স্বপ্ন অনেক বড়। আমি অনেক বড় খেলোয়াড় হতে চাই। ভালো হোক, খারাপ হোক মাঠের বাইরেও সবসময়ই নিজেকে ঠিক রাখতে চাই।’

জাতীয় দল থেকে বাদ পড়ার পরে তাসকিনের মতো করে ফিরে আসার নজির বাংলাদেশে খুব বেশি দেখা যায়নি আগে। এই সাফল্যের পেছনের মানুষগুলো ও তার নীতির কথা অকপটেই জানিয়েছেন তাসকিন। তিনি বলেন,

‘আসলে এখানে কোনো রকেট সায়েন্স নাই, বেসিক কাজগুলোই আমি মনোযোগ দিয়ে করছি। লাইফস্টাইলে একটু পরিবর্তন এনেছি। শৃঙ্খলা সবকিছুই মেনে চলছি। গত দেড়-দুই বছর ধরে এগুলো অনেক মেনে চলার চেষ্টা করেছি। এর পেছনে অনেক মানুষ সাহায্য করেছেন যেমন, দেবু দা, রাবিদ ভাই, সুজন স্যার, জাকির স্যার তারা সবাই আমাকে গত দুই বছর ধরে অনেক সাহায্য করেছেন।’

বিডিক্রিকটাইমের মাধ্যমে তাসকিন নির্বাচকদের ইঙ্গিত দিয়ে রাখলেন তিনি তিন সংস্করণের জন্যই নিজেকে প্রস্তুত রেখেছেন, ‘সবসময়ই বাংলাদেশের পক্ষে তিন সংস্করণেই খেলতে চাই, নির্দিষ্ট কিছু নেই। আমাকে যখনই যেটাই সুযোগ দেওয়া হবে, আমি সেরাটা দিয়ে চেষ্টা করব, বাকিটা আল্লাহর ইচ্ছা।’

Related Articles

আড়াই দিনে ইনিংস ব্যবধানে হারল ওয়েস্ট ইন্ডিজ

সাড়ে ‘৫’ বছর পর টি-টোয়েন্টি দলে ওকস

ভারতকে কটাক্ষ : শঙ্কায় ম্যাককালাম-মরগানের আইপিএল ভবিষ্যৎ

লুঙ্গি-নরকিয়ার তোপে ‘১০০’ রানও করতে পারল না ওয়েস্ট ইন্ডিজ

ভারতের শ্রীলঙ্কা সফরের দল ঘোষণা, নেতৃত্বে ধাওয়ান