Score

আমিরাতে খেলার জন্য এনওসি’র আবেদন সাকিবের

এবছরের শেষের দিকে অনুষ্ঠিতব্য সংযুক্ত আরব আমিরাত (ইউএই) টি টোয়েন্টি লিগে বাংলাদেশ জাতীয় দলের অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের খেলার বিষয়ে  দু একদিনের মধ্যেই সিদ্ধান্ত নেবে বিসিবি। দুবাই, আবু ধাবি ও শারজার মাটিতে এ ফ্র্যাঞ্চাইজিতে অংশ নেয়ার জন্য ইতিমধ্যে আগামী ২৩ ডিসেম্বর থেকে ১ জানুয়ারী পর্যন্ত এনওসি’র আবেদন করেছে সাকিব।

ইতিহাসের তৃতীয় ক্রিকেটার হিসেবে রেকর্ড গড়লেন সাকিব

বিসিবি’র মিডিয়া কমিটি’র চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস এর বরাত দিয়ে ইএসপিএন ক্রিকইনফো জানায়, “সাকিব টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে অংশ নেয়ার জন্য এনওসি’র আবেদন করেছে। কিন্তু এবিষয়ে এখনও কোন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি। তবে আগামী দু একদিনের মধ্যেই সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।”

Also Read - স্পট ফিক্সিংয়ের প্রশ্নে ১৫ ম্যাচ

গতমাসে এশিয়া কাপের সময় সাকিবের হাতের ইনজুরি খুবই বাজে অবস্থার দিকে অগ্রসর হয়েছিল। অস্ট্রেলিয়ায় চিকিৎসা নিতে যাওয়ার আগেই ঢাকায় জরুরীভাবে একটি অপারেশন করাতে হয়েছিল তাকে।  তবে দীর্ঘস্থায়ী এ হাতের ইনজুরি থেকে ক্রমশ উন্নতির দিকে এগোচ্ছে সাকিব আল হাসান। গত সপ্তাহে অস্ট্রেলিয়া থেকে চিকিৎসা শেষে ফিরে তিনি বলেছিলেন, তার মাঠে ফিরে আসা নির্ভর করবে কত দ্রুত তার হাতের সংক্রমণের উন্নতি হয় তার উপর।  তখন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে আসন্ন হোম সিরিজেই মাঠে ফিরতে পারেন বলে আশা দিয়েছিলেন তিনি।

রোববার আগামী বছর ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া আইসিসি বিশ্বকাপের পরিকল্পনা মাথায় নিয়ে আয়োজিত সভায় বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসান পাপন সাকিব ও তামিম ইকবালসহ সব আহত খেলোয়াড়দের টুর্নামেন্টের আগে অতিরিক্ত সাবধানতার সাথে চিকিত্সা শেষ করার তাগিদ দেন বলেও জানায় ইএসপিএনক্রিকইনফো।

বর্তমানে সাকিবকে ছাড়াই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে হোম সিরিজে লড়ছে স্বাগতিক বাংলাদেশ।  আসন্ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে অংশ নিতে হলে নভেম্বর মাঝামাঝি সময়ের মধ্যেই ফিটনেস টেস্টে উত্তীর্ণ হতে হবে সাকিব আল হাসানকে।

Related Articles

আসছে নতুন টি-টোয়েন্টি লিগ