‘আমি শচীন টেন্ডুলকার বা গ্লেন ম্যাকগ্রা নই’

0
2549

গত প্রায় একমাস থেকে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে মাশরাফির নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার বিষয়টি। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের হয়ে নড়াইল-২ আসন থেকে নির্বাচন করছেন বাংলাদেশের সবচেয়ে সফল এই ওয়ানডে অধিনায়ক। এদিকে আজ (৪ ডিসেম্বর) এক সংবাদ সম্মেলনে নির্বাচন প্রসঙ্গে নানান প্রশ্নের জবাব দিয়েছেন মাশরাফি।

 

মাশরাফি বিন মূর্তজা

 

Advertisment

মাশরাফির নির্বাচন করা নিয়ে জনমতে পক্ষে-বিপক্ষে আলোচনা হচ্ছে। অবসর নেবার আগেই কেন রাজনীতি? এমন অসংখ্য প্রশ্ন তুলেছেন তাঁর ভক্তরা। আজ মিরপুর একাডেমী ভবনের কাছে নির্বাচনে অংশ নেয়া প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তর দেন মাশরাফি।

২০১৯ সালের ৩০ মে ইংল্যান্ডে শুরু হচ্ছে ক্রিকেট বিশ্বকাপ। সবকিছু ঠিক থাকলে বিশ্বকাপে বাংলাদেশকে নেতৃত্ব দিবেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। এমন গুরুত্বপূর্ণ টুর্নামেন্টের আগে মাশরাফি অংশ নিচ্ছেন জাতীয় নির্বাচনে। এর কারণ হিসেবে তিনি বলেন, ‘আমার রাজনীতিতে আসার কারণ প্রথমত নড়াইলবাসীর জন্য কিছু করা এবং আমার এলাকার উন্নয়নে নিজেকে জড়িয়ে রাখা। আমি হয়তো আগামী ৭-৮ মাস তথা বিশ্বকাপের পর আর ক্রিকেটে থাকবো না। আমি শচীন টেন্ডুলকার বা গ্লেন ম্যাকগ্রা নই যে ক্রিকেট বিশ্ব আমাকে মনে রাখবে। আমি আমার সামর্থ্য অনুযায়ী খেলেছি, আমার সর্বশক্তি দিয়ে চেষ্টা করেছি।’

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের হয়ে নির্বাচনে অংশ নিবেন মাশরাফি। আর এটাকে বড়  সুযোগ হিসেবেই দেখছেন তিনি। নির্বাচনে জিতলে নড়াইল-২ এর উন্নয়ন করতে চান তিনি। মাশরাফি বলেন, ‘এখন আমার ক্যারিয়ার শেষের দিকে। একটা সুযোগ এসেছে নিজের এলাকার জন্য কিছু কাজ করার এবং বঙ্গবন্ধু কন্যা, আওয়ামী লীগ চেয়ারপার্সন শেখ হাসিনা আমাকে এ সুযোগটা দিয়েছেন। এটা আমার জন্য অনেক বড় সুযোগ এবং আমি চেষ্টা করবো যদি জিততে পারি, আমি এলাকার উন্নয়নে কাজ করতে চাই।’

উল্লেখ্য, চলতি মাসের ৩০ তারিখ অনুষ্ঠিত হবে একাদশ জাতীয় নির্বাচন।

[আরও পড়ুনঃ খেলার মাঝে নির্বাচন নিয়ে প্রশ্ন শুনতে চাননা মাশরাফি]