Score

আরিফুলের ডাবল সেঞ্চুরিতে রান পাহাড়ে রংপুর

বগুড়ার শহীদ চান্দু স্টেডিয়ামে প্রথম দিন শেষে ১১৭ রান নিয়ে অপরাজিত ছিলেন আরিফুল হক। আগের দিনের শতক’কে  দ্বিতীয় দিন দ্বি-শতকে পরিণত করার পাশাপাশি ক্যারিয়ার সেরা ইনিংসের দেখা পেয়েছেন তিনি।

জাতীয় ক্রিকেট লিগে আরিফুল হকের শতক উদযাপন।
এনসিএল ২০১৮-১৯ মৌসুমে প্রথম ডাবল-সেঞ্চুরি তুলে নিলেন আরিফুল হক।

তার ২৩১ রানের অনবদ্য ইনিংসে চড়ে প্রথম ইনিংসে বরিশালের বিপক্ষে অল-আউট হওয়ার আগে ৫০২ রানের বিশাল পুঁজি পেয়েছে রংপুর বিভাগ। সোহাগ গাজীর বলে মনির হোসেনের হাতে ক্যাচ দেওয়ার আগে ২১ চার আর ৪ ছয়ে ক্যারিয়ার সেরা ইনিংসটি সাজান আরিফুল।

এর আগে আগের দিনের ৫ উইকেটে করা ৩০০ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু করে রংপুর। দিনের শুরুতেই সাজেদুল ইসলামের উইকেট হারায় দলটি। তবে ক্রিজের একপ্রান্ত আগলে ধরে রেখে ব্যাট করতে থাকেন আরিফুল। ধৈর্যের চরম পরীক্ষা দিয়ে আগের ক্যারিয়ার সেরা ১৬২ রান টপকে প্রথম-শ্রেণির ক্রিকেটে নিজের নতুন ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রানের দেখা পান তিনি।

এরপর পূর্ণ করেন ক্যারিয়ারের প্রথম দ্বি-শতকও (ডাবল সেঞ্চুরি)। তার সাথে যোগ দিয়ে ধীমান ঘোষ ২৮ ও সোহরাওয়ার্দী শুভ ৪৬ রানের কার্যকরী ইনিংস খেলে সাজঘরে ফিরে গেলেও ক্রিজে থেকে লড়ে যান তিনি। দলীয় ৫০০ রানে শেষ পর্যন্ত ২৩১ রান করে থামেন তিনি। নবম ব্যাটসম্যান হিসেবে তার বিদায়ের পর স্কোরবোর্ডে আর ২ রান যোগ করে ৫০২ রানে অল-আউট হয় রংপুর।

Also Read - আশা জাগিয়েও ব্যর্থ সাব্বির

বরিশালের বোলারদের মধ্যে সোহাগ গাজী ও মনির হোসেন তিনটি করে উইকেট লাভ করেন। তাছাড়া কামরুল ইসলাম রাব্বি দুটি উইকেট শিকার করেন।

রংপুরের পাহাড়সম রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে শাহরিয়ার নাফীস ও রাফসান মাহমুদের ব্যাটে দারুণ শুরু পায় বরিশালও। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত এক উইকেটে দলটির সংগ্রহ ৮৬ রান। দলীয় ৭১ রানের সময় নাফীস ব্যক্তিগত ২৪ রানে আউট হলেও অর্ধশতক পূর্ণ করে ৫১ রান নিয়ে ব্যাট করছেন রাফসান। তার সাথে ক্রিজে নতুন ব্যাটসম্যান ফজলে মাহমুদ রাব্বি। তিনি অপরাজিত আছেন ৯ রান নিয়ে।


আরও পড়ুনঃ হংকংয়ের বিপক্ষে বাংলাদেশের দাপুটে জয়

Related Articles

একাদশে সুযোগ পাওয়া নিয়ে ভাবেন না আরিফুল

চাপ নিচ্ছে না বাংলাদেশ

আত্মবিশ্বাসী আরিফুল, আত্মতুষ্ট নন

আরিফুলের লড়াকু ইনিংস সত্ত্বেও বড় লিড জিম্বাবুয়ের

‘অপেক্ষা’র যে রেকর্ডে আরিফুল দ্বিতীয়