Scores

আরিফুলের লড়াকু ইনিংস সত্ত্বেও বড় লিড জিম্বাবুয়ের

সিলেট টেস্টের দ্বিতীয় দিনে বাংলাদেশের ব্যাটিং বিপর্যয়ে লড়াকু ইনিংস খেলেন আরিফুল হক। তার লড়াকু ইনিংসের পরেও দ্বিতীয় ইনিংসে ১৩৯ রানের লিড পায় জিম্বাবুয়ে। বাংলাদেশের হয়ে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩১ রান করেন মুশফিকুর রহিম।

 

আরিফুলের লড়াকু ইনিংসেও বড় লিড পেল জিম্বাবুয়ে
বাংলাদেশের পক্ষে সর্বোচ্চ রান করেন আরিফুল। ছবিঃ বিডিক্রিকটাইম

 

Also Read - মুশফিকের ব্যাটে লড়ছে বাংলাদেশ

চা-বিরতির পর তাসের ঘরের মতো উইকেট পড়তে থাকে বাংলাদেশ দলের। দলীয় ২০ রানের আগেই চার উইকেট পড়ে যায় বাংলাদেশের। দারুণ ফর্মে থাকা ইমরুল কায়েস করেছেন মাত্র পাঁচ রান। আরেক দারুণ ফর্মে থাকা লিটন কুমার দাস করেছেন মাত্র ৯। নাজমুল হোসেন শান্ত আউট হয়েছেন পাঁচ রানে। বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ তো কোন রানই যোগ করতে পারেননি নিজের নামের পাশে।

মুমিনুক হক ও মুশফিকুর রহিম কিছুটা প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করলেও সেটি থেমে যায় দলীয় ৪৯ রানে। ব্যক্তিগত ১১ রান করে সিকান্দার রাজার বলে আউট হন তিনি। চা-বিরতির আগে পাঁচ উইকেটে ৭৪ রান নিয়ে দিনের দ্বিতীয় সেশন শেষ করে। তবে চা-বিরতির পরেই দলীয় ৪ রান যোগ করতেই জার্ভিসের করা বাউন্স বুঝতে না পেরে কিপার চাকাভার হাতে ক্যাচ তুলে দেন মুশফিক।

আউট হওয়ার আগে ৫৪ বলে ৩১ রান করেন মুশফিক। তার বিদায়ে দলের হাল ধরার চেষ্টা চালিয়ে যান আরিফুল হক ও মেহেদী হাসান মিরাজ। তাকে নিয়ে ৩০ রানের জুটি গড়েন আরিফুল। ব্যক্তিগত ৩৩ বলে ২১ রান করে উইলিয়ামসের বলে আউট হন মেহেদী হাসান। মিরাজের বিদায়ে আরও বিপদে পড়ে বাংলাদেশ। তারপর দলকে একাই টেনে দায়িত্ব উঠে অভিষিক্ত আরিফুলের কাঁধে। তাইজুলের সঙ্গে ২৩ রানের জুটি এবং নাজমুল অপুর সঙ্গে ১২ রানের জুটি গড়েন তিনি।

আরিফুলের লড়াকু ইনিংসেও বড় লিড পেল জিম্বাবুয়ে
মাহমুদউল্লাহর উইকেটের পর জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটারদের উদযাপন। ছবিঃ বিডিক্রিকটাইম

 

কিন্তু দিনের শেষ বেলায় আরিফুল-আবু জায়েদের ভুল বুঝাবুঝিতে রান আউটের শিকার হন আবু জায়েদ। ফলে আরিফুলের লড়াকু ইনিংস শেষ হয় ৪১ রানে অপরাজিত থেকেই। দ্বিতীয় ইনিংসে, দ্বিতীয় দিনে মাত্র দুই ওভার ব্যাটিং করার সুযোগ পায় জিম্বাবুয়ে। আলো সল্পতার কারণে বেশিক্ষণ গড়ায়নি মাঠে। ফলে দ্বিতীয় দিন শেষে দ্বিতীয় ইনিংসে ১৪০ রানের লিড নিয়েছে জিম্বাবুয়ে।

প্রথম ইনিংসে পাঁচ উইকেট হাতে রেখে দ্বিতীয় দিন শুরু করে জিম্বাবুয়ে। পিটার মুরের অপরাজিত ৬৩ রানে ২৮২ রানে ইনিংস থামে জিম্বাবুয়ের। বাংলাদেশের হয়ে ছয়টি উইকেট লাভ করেন তাইজুল।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

জিম্বাবুয়ে (প্রথম ও দ্বিতীয় ইনিংস) ২৮২ ও ২/০

উইলিয়ামস ৮৮, মুর ৬৩*, মাসাকাদজা ৫২: তাইজুল ১০৮-৬

বাংলাদেশ (প্রথম ইনিংস) ১৪৩

আরিফুল ৪১*, মুশফিক ৩১, মিরাজ ২১, মুমিনুল ১১, লিটন ৯


আরও পড়ুনঃ শাহাদাতকে ছাড়িয়ে মাশরাফিকে টপকানোর অপেক্ষায় তাইজুল

Related Articles

আরিফুল ঝড়ে প্রাইম ব্যাংকের রান পাহাড়

আরিফুলের অলরাউন্ড নৈপুণ্যে জিতলো প্রাইম ব্যাংক

আরিফুলের ঝড়ো অর্ধশতক, লড়াকু সংগ্রহ প্রাইম ব্যাংকের

একাদশে সুযোগ পাওয়া নিয়ে ভাবেন না আরিফুল

চাপ নিচ্ছে না বাংলাদেশ