Scores

আরিফুল ঝড়ে প্রাইম ব্যাংকের রান পাহাড়

ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলি স্টেডিয়ামে আবাহনীর আমন্ত্রণে প্রথমে ব্যাট করে রান পাহাড়ে চড়েছে প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব। অধিনায়ক এনামুল হক বিজয়ের রেকর্ড গড়া শতকের পর আরিফুল হকের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে ৫০ ওভার শেষে ৫ উইকেটে ৩০২ রান সংগ্রহ দলটির। প্রাইম ব্যাংকের পক্ষে সর্বোচ্চ ১০২ রান এসেছে বিজয়ের ব্যাট থেকে।

আরিফুল হক ২০১৯

শতকের হ্যাটট্রিক করে বিজয়ের দলীয় ২২৬ রানে আউটের পর ক্রিজে আসেন আরিফুল। তিনি যখন ব্যাট করতে নামেন তখন দলের সংগ্রহ ছিল ৩ উইকেটে ২২৬ রান। এরপর ম্যাচের বাকিটা সময় নিজের করে নেন তিনি।

Also Read - শতকের হ্যাটট্রিকে 'রেকর্ড' বইয়ে বিজয়


শেষ ৪২ বলে স্কোরবোর্ডে ৭৪ রান যোগ করে প্রাইম ব্যাংক। যার মধ্যে ৫১ রানই এসেছে আরিফুলের ব্যাট থেকে। তাও আবার মাত্র ২৭ বল থেকে। ৭ চারে অপরাজিত ৫১ রানের ইনিংসটি সাজান ডানহাতি এ ব্যাটসম্যান। তাছাড়া ১ ছক্কা ও চারে ৫ বলে ১৫ রান করে দলকে শেষ দিকে বড় সংগ্রহ দাঁড় করাতে ভূমিকা পালন করেন অলক কাপালিও।

এর আগে টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ৫০ রানে জাকির হাসানের উইকেট হারায় দলটি। তাকে ফিরিয়ে দিয়ে আবাহনীকে প্রথম ব্রেক থ্রু এনে দেন মোসাদ্দেক হোসেন।

এরপর ম্যাচে দাপট দেখায় প্রাইম ব্যাংকের ব্যাটসম্যানরা। দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে বিজয় ও অভিমন্যু মিলে যোগ করেন ১৫৪ রান। শতক থেকে ১৫ রান দূরে থাকতে অভিমন্যু ফাঁদে পা দেন সানজামুল ইসলামের। যার ফলে ব্যক্তিগত ৮৫ রানে থামে তার ইনিংস।

সতীর্থ শতক হাঁকাতে ব্যর্থ হলেও এরপর ঠিকই শতক তুলে নেন বিজয়। আউট হন শতক হাঁকানোর কিছুক্ষণ পরই। ৫ চার ও ২ ছক্কায় ১২৮ বলে ১০২ রানের ইনিংসটি সাজান তিনি। তার উইকেটটি শিকার করেন নাজমুল ইসলাম।

আল-আমিন হোসেন ও নাজমুল ইসলামকে এরপর সৌম্য ও রুবেল দ্রুত ফেরালেও আরিফুল-অলকে বড় সংগ্রহ পেতে বেগ পেতে হয়নি প্রাইম ব্যাংককে।

আবাহনীর বোলারদের মধ্যে রুবেল, মোসাদ্দেক, সৌম্য, নাজমুল ও সানজামুল প্রত্যেকেই লাভ করেছেন একটি করে উইকেট।

সংক্ষিপ্ত স্কোর-
প্রাইম ব্যাংক: ৫০ ওভারে ৩০২/৫
বিজয় ১০২, অভিমন্যু ৮৫, আরিফুল ৫১*, আল-আমিন ১৯; সৌম্য ৪১/১।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

‘লোভের বশে’, ‘লুকিয়ে’ ডিপিএল খেলেছেন সাইফউদ্দিন!

সৌম্যকে যেভাবে সাহায্য করেছেন জাফর

ওয়াসিম জাফরের পরামর্শ কাজে লাগানোর প্রত্যাশা

তাণ্ডবের আগে ‘নার্ভাস’ ছিলেন সৌম্য

গর্বিত ‘অধিনায়ক মোসাদ্দেক’, কৃতিত্ব মাশরাফিকে