Scores

আশরাফুলের আইসিএলের দল গোছানোর খবর আংশিক সত্য : নাফীস

ফিক্সিং ইস্যুতে তো বটেই, মোহাম্মদ আশরাফুলকে নিয়ে বিতর্ক হয়েছিল ২০০৮ সালের আইসিএল ইস্যুতেও। অনুমোদনহীন ইন্ডিয়ান ক্রিকেট লিগে খেলে নিষিদ্ধ হয়েছিলেন বাংলাদেশ এক ঝাঁক ক্রিকেটার। আশরাফুলের নেতৃত্বাধীন সময়ে ঢাকা ওয়ারিয়র্স নামের সেই দলটি আশরাফুলই গঠন করেছিলেন বলে অভিযোগ করেন অনেকে।

আশরাফুলের আইসিএলের দল গোছানোর খবর সত্য নাফীস

বাংলাদেশের ক্রিকেটাকাশে কালো রেখা আইসিএল। জাতীয় দলের মায়া ছেড়ে শীর্ষস্থানীয় কয়েকজন ক্রিকেটার গিয়েছিলেন ভারতের নিষিদ্ধ লিগটিতে খেলতে। পরবর্তীতে তাদের নিষিদ্ধ করে বিসিবি। সেই নিষেধাজ্ঞা বিশেষ বিবেচনায় উঠে গেলেও শাহরিয়ার নাফীসের মত অনেকের ক্যারিয়ারেই গতিরোধক হয়ে দাঁড়ায় এই আইসিএল।

Also Read - বিশ্বকাপ পেছানোয় স্থগিত দুই সিরিজে আগ্রহী বিসিবি






যদিও নাফীসের দাবি, লোভনীয় প্রস্তাব পেয়ে আইসিএলে যোগ দেওয়ার পরই তারা জানতে পেরেছিলেন, এই টুর্নামেন্টে খেললে পড়তে হবে বোর্ডের রোষানলে। সম্প্রতি নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক পেইজে একটি ভিডিও আপলোড করেছেন নাফীস। সেখানে আইসিএল ইস্যুতে মুখ খুলেছেন।

তিনি বলেন, ‘তখন আমরা পাকিস্তান সফরে যাওয়ার জন্য অনুশীলন করছিলাম। একদিন বিকালে তখনকার অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুল, যে আমার খুবই কাছের বন্ধু, সে এসে আমাকে বলল- দোস্ত, তোর কাছে এরকম প্রস্তাব আসলে কী করবি? প্রশ্নটা শুনে একটু অবাকই হয়েছিলাম। চিন্তা-ভাবনা করে বলেছিলাম- এমন প্রস্তাব এলে আমি বিবেচনা করব না, কারণ আমি এসব নিয়ে ভাবছি না।’






তবে সেই নাফীসই পরে আইসিএলে খেলতে রাজি হয়ে যান। তার দাবি, রাজি হওয়ার পেছনে বড় ভূমিকা ছিল বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ, ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ, ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের মত আসরের পাশাপাশি বাংলাদেশের অনেক ক্রিকেটারের এজেন্ট হিসেবে কাজ করা ভারতীয় কৌস্তভ লাহিড়ীর।

নাফীস বলেন, ‘এর পরের ঘটনাপ্রবাহ আমাকে আইসিএল নিয়ে চিন্তা করতে প্রভাবিত করেছিল। পাকিস্তান থেকে আসার পর আমাকে ভারত থেকে আইসিএল এজেন্ট কৌস্তভ লাহিড়ী প্রস্তাব দেন। আশরাফুল তো অফিসিয়াল অথোরিটি না। কৌস্তভ লাহিড়ী প্রস্তাব দেওয়ার পর আমি আইসিএলের ব্যাপারে ভাবা শুরু করি।’

আশরাফুলের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছিল- তিনি নিজ উদ্যোগে আইসিএলের দল গুছিয়ে পরে নিজেই আসর বয়কট করেন। যদিও আশরাফুল একাধিকবার দাবি করেছেন, আইসিএলে কারা খেলতে যাচ্ছেন বা কবে যাচ্ছেন তা তিনি জানতেন না। অবশ্য নাফীস বলছেন, আশরাফুলের ঢাকা ওয়ারিয়র্স দল গোছানোর খবর মিথ্যা নয়!

তিনি বলেন, ‘দল কৌস্তভ লাহিড়ীই গুছিয়েছিলেন। উনি সব খেলোয়াড়ের সাথে আলাদাভাবে যোগাযোগ করেছিলেন। আশরাফুল নিজে দল গুছিয়ে পরে যায়নি- এটা আংশিক সত্য। আইসিএলের প্রথম প্রস্তাব আশরাফুলের কাছেই এসেছিল। সে তখন বাংলাদেশের অধিনায়ক ও অন্যতম সেরা খেলোয়াড় ছিল। আইসিএল কর্তৃপক্ষ আনুষ্ঠানিক প্রস্তাব নিয়ে আশরাফুলের কাছেই এসেছিল। আশরাফুলের কাছে প্রস্তাব আসার পর ব্যাপারটা এমন ছিল- আশরাফুল তো খেলবেই, সে দলও গঠন করবে। ঐ ব্যাপারে অনেকদূর পর্যন্ত এগিয়েছিল এবং আশরাফুল একটা দল গুছিয়েছিল। তখন কৌস্তভ লাহিড়ী নতুন করে দল গঠন করেন। আশরাফুলের দলের সবাই পরে আইসিএলে যায়নি।’

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

 

Related Articles

“টাকার জন্য নয়, নিজেকে প্রমাণের জন্য আইসিএলে গিয়েছিলাম”

ক্যারিয়ার বাঁচাতেই আইসিএল বেছে নেন নাফীস

আইসিএল খেলতে যাওয়ার কারণ জানালেন আফতাব

১৫ কোটি টাকার প্রস্তাব পেয়েও আইসিএলে যাইনি : আশরাফুল