ইংল্যান্ডের জন্য লাল বলের ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টুর্নামেন্ট চান কেপি

সময়টা ভালো যাচ্ছে না ইংল্যান্ড টেস্ট দলের। ২০২১ সালে ১৫ টেস্ট খেলে ইংল্যান্ড জিতেছে মাত্র ৪ ম্যাচে। গত ১২ ম্যাচ হিসেবে নিলে সেখানে ইংল্যান্ডের জয় মাত্র ১ ম্যাচে। এমন দুর্দশায় চিন্তার ভাঁজ পড়েছে সাবেক ইংলিশ ক্রিকেটারদের কপালেও। তাদের মধ্যে কেভিন পিটারসেন দিয়েছেন ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টুর্নামেন্ট আয়োজনের প্রস্তাবনা।

ইংল্যান্ডের জন্য লাল বলের ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টুর্নামেন্ট চান কেপি
কেভিন পিটারসেন মনে করেন কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপ ক্রিকেটের মান ধীরে ধীরে কমে যাচ্ছে। আন্তর্জাতিক টেস্ট ক্রিকেটের মানের সাথে কাউন্টি ক্রিকেটের মানের ব্যবধান বাড়তে থাকায় লাল বলে ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক ক্রিকেট টুর্নামেন্ট চান কেপি।

Advertisment

এক কলামে তিনি লিখেন, “সেরা খেলোয়াড়রা এটি (কাউন্টি ক্রিকেট) খেলতে চান না। তাই তরুণ ক্রিকেটাররা আমি বা অন্যান্য বড় ক্রিকেটাররা যেমন শিখতে পেরেছিল তেমন শিখতে পারছে না। বাজে উইকেটে  ব্যাটররা গড়পড়তা মানের বোলারের বলে আউট হয়ে যাচ্ছে।” 

এ ডানহাতি ব্যাটসম্যান বলেন, “আমি যখন ইংল্যান্ডে প্রথম-শ্রেণির ক্রিকেট খেলতে শুরু করি তখন একটা কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপের ম্যাচের উত্তেজনা টেস্ট ম্যাচের মতোই ছিল। এটা বেশ কঠিন ছিল। আমি প্রতি সপ্তাহেই দারুণ কিছু খেলোয়াড়ের বিপক্ষে খেলার মাধ্যমে নিজেকে তৈরি করেছি।”
প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ১৬ হাজারের বেশি রান করা কেভিন পিটারসেন স্মৃতিচারণ করে লিখেন, “২০০৩ সালের লিচেস্টারশায়ারে ভিরেন্দর শেবাগ, ব্র্যাড হজ, পল নিক্সন, জেরেমি স্নেপ, ফিল ডিফ্রেইটাস এবং চার্লি ডাগনাইলরা ছিল। কিন্তু আমি যখন ২০১৫ সালে লিচেরস্টারশায়ারের বিপক্ষে অপরাজিত ৩৫৫ করলাম, মনে হলো প্যাডস না পড়েই আমি ২৫০ করতে পারতাম। তখনই আমি বুঝতে পারলাম কাউন্টি ক্রিকেটের মান কতটা পড়েছে।”

দ্য হান্ড্রেডের মতো একটি লাল বলের ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টুর্নামেন্ট আয়োজন করলে বিভিন্ন দেশের ক্রিকেটারদের এ টুর্নামেন্টে আনা যাবে বলে মনে করেন তিনি। কেপি বলেন, “তারা (ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো) অন্য দেশের সেরা খেলোয়াড়দের দলে টানতে অর্থ খরচ করবে এবং তাদের সাথে খেলে আমাদের ইংল্যান্ডের ক্রিকেটাররাও লাভবান হবে।”  


বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনের চ্যাটে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime Crickey সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।