ইংল্যান্ডের সহায়তায় এগিয়ে আসছে অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড

ভদ্রলোকের খেলা খ্যাত ক্রিকেটের আঁতুড়ঘর ইংল্যান্ড। সেই ইংল্যান্ডেই এখন ক্রিকেট বন্ধ। কারণটা সবারই জানা- করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব। একদিকে করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে ঘুম হারাম ব্রিটিশ রাষ্ট্রনায়কদের। অন্যদিকে ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি) চিন্তাগ্রস্ত- কীভাবে মাঠে ফেরানো যায় ক্রিকেট, অন্ততপক্ষে ঘরোয়া ক্রিকেট।

ইংল্যান্ডের সহায়তায় এগিয়ে আসছে অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড -

Advertisment

তবে ইংল্যান্ডের সেই দুশ্চিন্তা কমাতে পাশে দাঁড়িয়েছে অস্ট্রেলিয়ার বোর্ড ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ)। ইংল্যান্ডের গ্রীষ্ম মৌসুমের সূচির ম্যাচগুলো অস্ট্রেলিয়ায় আয়োজনের প্রস্তাব দিয়েছে সিএ।





একই প্রস্তাব দিয়েছে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেটও (এনজেডসি)। এদিকে শোনা যাচ্ছে, সংযুক্ত আরব আমিরাতও ইংল্যান্ড বোর্ডকে তাদের দেশে গ্রীষ্ম মৌসুমের ম্যাচগুলো আয়োজনের প্রস্তাব জানিয়েছে।

আরব আমিরাতের প্রস্তাবের বিষয়ে না জানলেও অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের প্রস্তাবের কথা স্বীকার করেছেন ইসিবির প্রধান নির্বাহী টম হ্যারিসন। তিনি জানিয়েছেন, সিএ ও এনজেডসি ঘরোয়া কাউন্টি লিগ ও লিস্ট ‘এ’ টুর্নামেন্ট তাদের দেশে আয়োজনের প্রস্তাব দিয়েছে।






তিনি বলেন, ‘আমরা অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের কাছ থেকে প্রস্তাব পেয়েছি। এগুলো নিয়ে অবশ্যই আলোচনা হবে। তাই এখন কিছু বলতে পারছি না। তবে আবুধাবি থেকে এখনো কোনো প্রস্তাব আমার কাছে আসেনি। তবে তার মানে এই নয় যে তারা কোনো প্রস্তাব করেনি।’

ইউরোপের অন্যান্য দেশের মত ইংল্যান্ডেও করোনাভাইরাস পরিস্থিতির ক্রমশ অবনতি হচ্ছে। হ্যারিসন জানিয়েছেন, বিকল্প ভেন্যুতে আয়োজন হলেও দর্শকশূন্য মাঠেই খেলা হবে।

করোনাভাইরাসের কারণে কমবেশি ভোগান্তিতে পড়েছে সবগুলো বোর্ড। এমন পরিস্থিতিতেই ইংল্যান্ডের ধনী বোর্ডকে সহায়তা করার প্রস্তাব দিয়েছে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড। যদিও অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড নিজেদের ক্রিকেট চালিয়ে যাওয়া নিয়েই দুশ্চিন্তায় রয়েছে।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।