Scores

ইএসপিএনের জনপ্রিয় ১০০তে তিন বাংলাদেশী, প্রথম রোনালদো

বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় ক্রীড়া ওয়েবসাইটের মাঝে শীর্ষ স্থানে থাকা ইএসপিএন আজ তাদের ২০১৯ সালের বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় একশ খেলোয়াড়ের তালিকা প্রকাশ করেছে। ৭৮টি দেশের প্রায় ৮০০ সেরা খেলোয়াড়ের উপর ইএসপিএন রিসার্চ করে এই ১০০ খেলোয়াড়ের তালিকা প্রকাশ করেছে ।

ইএসপিএনের জনপ্রিয় ১০০তে ৩ বাংলাদেশী, প্রথম রোনালদোপ্রথমবারের মতো ৩ জন বাংলাদেশী খেলোয়াড় এই তালিকায় জায়গা করে নিয়েছেন। বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়ক সাকিব আল হাসান, ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা ও সাবেক অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। ১০০ জনের এই তালিকায় ক্রিকেটার ১১ জন। ৮ জন ভারতের ও ৩ জন বাংলাদেশের।

ইএসপিএন এই তালিকা করেছে তিনটি বিষয় বিবেচনা করে। গুগলে তাদের খোজার সংখ্যা, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলোয়ার সংখ্যা ও বিভিন্ন বিজ্ঞাপন থেকে প্রাপ্ত আয়। এই ৩টি বিষয় মিলিয়ে এই তালিকার প্রথম স্থানে আছেন পর্তুগীজ ফুটবলার ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। ২য় স্থানে আছেন আমেরিকার বাস্কেটবল খেলোয়াড় লেবরন জেমস ও ৩য় স্থানে আছেন বার্সেলোনা ও আর্জেন্টাইন সুপারস্টার লিওনেল মেসি।

Also Read - ধোনি ছাড়া কোহলি ‘অর্ধেক-অধিনায়ক’!


ক্রিকেট থেকে সবচেয়ে উপরে রয়েছেন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি, তিনি আছেন ৭ নম্বরে। টেনিস লিজেন্ড রজার ফেদেরার আছেন ৬ নম্বরে, রাফায়েল নাদাল আছেন ৮ এ। ভারতের কোহলি ছাড়াও আছেন মহেন্দ্র সিং ধোনী, যুবরাজ সিং , শিখর ধাওয়ান, রোহিত শর্মা, সুরেশ রায়নার মত খেলোয়াড়েরা। ধোনী ক্রিকেটারদের মাঝে ২য় স্থানে আছেন ও মূল তালিকায় ১৩তম স্থানে।

বাংলাদেশ থেকে প্রথমবারের মতো এই তালিকায় জায়গা পাওয়া সাকিব আল হাসান আছেন ৯০ এ, মুশফিকুর রহিম ৯২তম ও মাশরাফি ৯৮তম স্থানে। সাকিব আল হাসানের পরিচয় দিতে গিয়ে নিদাহাস ট্রফিতে তার প্রতিবাদী আচরনের কথা তুলে ধরা হয়েছে। মুশফিকুর রহিমের বেলায় নিদাহাস ট্রফির সেই বিখ্যাত নাগিন ডান্সের কথা বলা হয়েছে। মাশরাফির বেলায় এশিয়া কাপে তার অসাধারণ অধিনায়কত্বের কথা তুলে ধরা হয়েছে।ভারত বাংলাদেশ ব্যতীত অন্য কোন ক্রিকেটারের সেরা ১০০তে জায়গা হয়নি।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

শ্রীলঙ্কা সফরে বাংলাদেশের অধিনায়ক তামিম

আক্ষেপ নিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বললেন মিরে

বাংলাদেশের বিপক্ষেও উপেক্ষিত চান্দিমাল

‘আমরা কী খেলার সরঞ্জাম পুড়িয়ে চাকরির জন্য আবেদন করব?’

“এভাবে বিদায় নিতে চাইনি”