Scores

অল্পের জন্য ‘ইতিহাস’ হাতছাড়া তামিমের

হ্যামিল্টন টেস্টে বাংলাদেশের ম্লান পারফরম্যান্সের দিনে উজ্জ্বল ছিলেন তামিম ইকবাল। সীমিত ওভারের ক্রিকেটের মেজাজে খেলে বাঁহাতি ওপেনার ম্যাচের প্রথম দিন তুলে নেন ক্যারিয়ারের নবম শতক। তবে এদিন অনন্য এক কীর্তি গড়ার সুবর্ণ সুযোগ হাতছাড়া করেছেন তিনি।

অল্পের জন্য ‘ইতিহাস’ হাতছাড়া তামিমের

ইতিহাসের সপ্তম ক্রিকেটার হিসেবে টেস্টের প্রথম সেশনেই শতক হাঁকানোর কীর্তিটিই এদিন অল্পের জন্য গড়তে পারেননি তামিম। একের পর এক চার হাঁকিয়ে ইনিংস সাজানো তামিমকে সেই কীর্তি গড়তে দেননি মুমিনুল হক। ব্যাপারটি শ্রবণকটু হলেও আসলেই তাই!

Also Read - তামিমের শতকের দিনে ম্লান বাংলাদেশ

ইনিংসের ১০ম ওভারের দ্বিতীয় বলে সাদমান ইসলাম যখন সাজঘরে ফিরেছেন, তামিম তখন অপরাজিত ৩০ বলে ৩৩ রান করে। এরপর লাঞ্চের আগে তামিম মোকাবেলা করেছেন আরও ৫৫ বল, অর্থাৎ মোট ৮৫ বলের মোকাবেলায় ৮৬ রান করে লাঞ্চ বিরতিতে মাঠ ছাড়েন তামিম।

অল্পের জন্য ‘ইতিহাস’ হাতছাড়া তামিমের

লাঞ্চ বিরতির ৮ বল আগে সাজঘরে ফেরা মুমিনুল হক খেলেছিলেন ৪৬ বল (যা থেকে এসেছিল ১২ রান)। কিউই পেসারদের সামলাতে তামিম সাবলীল থাকলেও মুমিনুল খেলছিলেন ধীরে। টেস্ট ম্যাচের বিবেচনায় মুমিনুলের ব্যাটিংকেই অধিক আদর্শ বলে গণ্য করা যায়। তবে এই আদর্শ ব্যাটিংই অপ্রত্যাশিতভাবে তামিমকে প্রথম সেশনে শতক তুলে নেওয়ার সুযোগ থেকে ‘বঞ্চিত’ করেছে!

স্ট্রোক খেলা তামিম লাঞ্চ বিরতির আগে আরও ক’টা বল মোকাবেলা করলে হয়ত শতক নিয়েই মধ্যাহ্নভোজ সারতে পারতেন। সেক্ষেত্রে তামিমের পাঁড় ভক্তরা মুমিনুলের ধীর ইনিংসকে কাঠগড়ায় দাঁড় করাতে পারেন। নিউজিল্যান্ডের প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম নিউজিল্যান্ড হেরাল্ডও তামিমের প্রথম সেশনে শতক না পাওয়ার পেছনে মুমিনুলের ঐ ইনিংসকে দায় দিয়ে লিখেছে, ‘…এরপর মুমিনুল হক ব্যাট হাতে ওমন অবরোধ দাঁড় করানোয় তামিমের ১৫ রানের কমতি থেকেই যায়, তা না হলে এটি দুর্দান্ত অর্জন হতে পারত।’

প্রসঙ্গত, টেস্টের প্রথম সেশনেই শতক হাঁকানোর কীর্তি আছে মাত্র ছয় ক্রিকেটারের। এরা হলেন- ভিক্টর ট্রাম্পার, চার্লস ম্যাকার্টনি, ডন ব্র্যাডম্যান, মজিদ খান, ডেভিড ওয়ার্নার ও শিখর ধাওয়ান।

প্রথম সেশনে শতক তুলে নেওয়ার এমন সুবর্ণ সুযোগ অবশ্য আগেও একবার হাতছাড়া করেছেন তামিম। ২০১০ সালের ২০ মার্চ ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ঢাকা টেস্টে উড়ন্ত সূচনা করা তামিম ইনিংসের ২৩তম ওভারের প্রথম বলে ৭১ বলে ৮৫ রান করে আউট হয়ে যান। জেমস ট্রেডওয়েলের বলে ম্যাট প্রায়োরের ঐ ক্যাচ নিয়ে অবশ্য বিতর্কও আছে!

Related Articles

স্মিথ-ওয়ার্নার, মাঠ ছাড় তোমরা!

উইলিয়ামসন-টেলরের দৃঢ়তায় উড়ে গেল ভারত

ভেন্যু কার্ডিফ বলেই টাইগাররা আত্মবিশ্বাসী

প্রস্তুতি ম্যাচকে হালকাভাবে নিচ্ছে না বাংলাদেশ

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ইংল্যান্ডের হয়ে ফিল্ডিংয়ে কলিংউড!