Scores

ইনিংস হারের শঙ্কায় চট্টগ্রাম; কক্সবাজারে বরিশাল

জমে উঠেছে জাতীয় ক্রিকেট লিগের চতুর্থ রাউন্ড। যেখানে স্তর-২ এর ম্যাচে ফলাফলের অপেক্ষায় আছে দুইটা ম্যাচই। কক্সবাজারে বরিশাল বিভাগের বিপক্ষে ইনিংস জয়ের স্বপ্ন দেখছে সিলেট বিভাগ। এদিকে চট্টগ্রামে স্বাগতিকদের চেপে ধরেছে ঢাকা মেট্রো। ফলঅনে পড়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে এখনো ২১৬ রানে পিছিয়ে চট্টগ্রাম।

তাসকিনের ফেরা নিয়ে প্রধান নির্বাচকের ভাষ্য

গতকাল (শনিবার) ম্যাচের শুরুর দিনে বরিশালকে মোটে ১৬২ রানে বেঁধে ফেলে সিলেট বিভাগ। দলের হয়ে ৫ উইকেট নিয়েছিলেন পেসার এবাদত হোসেন। এরপর ব্যাট করতে নেমে ১ উইকেট হারিয়ে ৮২ রান সংগ্রহ করে দিনের খেলার শেষ করে সিলেট। আজ দ্বিতীয় দিনে এনামুল হক জুনিয়রকে (২) নিয়ে ৩২ রানে অপরাজিত থেকে ব্যাট করতে নামেন শাহনাজ আহমেদ।

Also Read - মিরপুরে মেহেদী ঝলক, ব্যাট হাতেও উজ্জ্বল শুভাগত


গত দিনের সাথে আজ আরো ৪১ রান যোগ করেন শাহনাজ। সোহাগ গাজীর বলে আউট হওয়ার আগে খেলে যান ৭৩ রানের অনবদ্য এক ইনিংস। এরপর জাকির হাসানের ৫৩ ও জাকের আলির ৩৫ রানের সুবাদে অল-আউট হওয়ার আগে স্কোর বোর্ডে ৩২২ রানের পুঁজি পায় সিলেট। বরিশালের হয়ে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নেন মনির হোসেন।

১৬০ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করতে নামে বরিশাল। যেখানে কোন রান না করেই আউট হয়েছেন ওপেনার রাফসান। পরে দিনের খেলা শেষে ১ উইকেট হারিয়ে ১২ রান তুলতে পারে বরিশাল বিভাগ। সিলেটের থেকে তারা এখনো পিছিয়ে আছে ১৪৮ রানে।

এদিকে দিনের অন্য ম্যাচে চট্টগ্রামে সাদমান ইসলামে ১৭৮ রানের কল্যাণে প্রথম ইনিংসে ৪০৩ রানের সংগ্রহ পায় ঢাকা মেট্রো। পরে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ব্যট করতে নেমে একেবারেই সুবিধা করতে পারেনি চট্টগ্রাম। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে কোচ আফতাব আহমেদের দল। কেউ দায়িত্ব নিয়ে খেলতে না পারলে মোটে ৯৩ রানেই গুটিয়ে যায় স্বাগতিকরা।ফলে ফলোঅনে পড়তে হয় চট্টগ্রাম বিভাগকে।

ফলোঅনে পড়ে আবার ব্যাট করতে নেমেও একই পরিস্থিতিতে পড়তে হয় চট্টগ্রামকে। দলীয় ১৩ রানের মাথায় তারা হারিয়ে বসে দুই ওপেনারকে। পরে পিনাক ঘোষের অপরাজিত ৫৫ রানের উপর ভর করে ৩ উইকেটে ৯৬ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষ করে স্বাগতিকরা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

বরিশাল বিভাগ: প্রথম ইনিংস- ১৬২/১০
নুরুজ্জামান ৪০, সালমান হোসেন ২৫, সোহাগ গাজী ২৩; এবাদত হোসেন ৫/৩৬, নাসুম আহমেদ ৩/৫৭, আবু জায়েদ ১/২৪

দ্বিতীয় ইনিংস- ১২/১
ফজলে মাহমুদ ৭*, মোহাম্মদ আশরাফুল ২*; আবু জায়েদ রাহি ১/৭

সিলেট বিভাগ: প্রথম ইনিংস- ৩২২/১০
ইমতিয়াজ হোসেন ৪৮, শাহনাজ আহমেদ ৭৩, জাকির হাসান ৫৩; মনির হোসেন ৩/৬৯, নুরুজ্জামান ১/১৯ রাফসান আল মাহমুদ ১/৬

ম্যাচ- দুই

ঢাকা মেট্রো: প্রথম ইনিংস- ৪০৩/১০
সাদমান ইসলাম ১৭৮, আল-আমিন ৮৩, শামসুর রহমান ৫০; হাসান মাহমুদ ৩/৭২, ইফরান হোসেন ২/৬৬, নাইম হাসান ২/১১১

চট্টগ্রাম বিভাগ: প্রথম ইনিংস- ৯১/১০
সাদিকুর রহমান ২২, পিনাক ঘোষ ১২, নাইম হাসান ১২; শরিফউল্লাহ ৪/৩০, তাসকিন আহমেদ ৩/৩৪, আসিফ হাসান ২/৭

দ্বিতীয় ইনিংস- ৯৬/৩
পিনাক ঘোষ ৫৫*, তাসামুল হক ১৪*, সাদিকুর রহমান ১১; তাসকিন আহমেদ ১/১৬, আল-আমিন ১/১৮

Related Articles

ব্যাটে-বলে জাতীয় লীগের সেরা ক্রিকেটার

ব্যাট হাতে জাতীয় লিগের সেরা পাঁচে নাসির

জাতীয় লিগের প্রথম স্তরে উঠে এল সিলেট

মাঠের ভেতর সতীর্থকে পেটালেন শাহাদাত

এনসিএলে চার ড্রয়ের দিনে আলো ছড়ালেন যারা