ঈদ-উল-আজহার ১০ দিনের ছুটি পাচ্ছেন টাইগাররা

ইংল্যান্ড সিরিজকে কেন্দ্র করে ঈদ-উল-ফিতরের পর ২০ জুলাই শুরু হয়েছিলো টাইগারদের কন্ডিশনিং ক্যাম্প। সেখানে টানা ১৫ দিন ধরে চলে ক্রিকেটারদের ফিটনেস ট্রেনিং। এরপর শুরু হয় স্কিল ট্রেনিং। তারপর ফিল্ডিং ঝালাই করে নেবার কাজ। অন্যদিকে কন্ডিশনিং ক্যাম্প শুরুর এক মাস পর ২০ আগস্ট থেকে শুরু হয় ব্যাটিং-বোলিং অনুশীলন। আর তিনটি অনুশীলন ম্যাচ দিয়েই এবারের ক্যাম্প শেষ হবার কথা। এরিমাঝে হয়ে গেছে দুইটি অনুশীলন ম্যাচ। আজ (মঙ্গলবার) হবে তৃতীয় ও শেষ অনুশীলন ম্যাচ। এরপর ক্রিকেটাররা পাবেন ঈদের ছুটি।

rrrr

Advertisment

আগামীকাল (বুধবার) থেকে শুরু হচ্ছে টাইগারদের ঈদ-উল-আজহার ছুটি। এবারের ঈদের জন্য ক্রিকেটাররা মোট দশ দিনের ছুটি পাবেন। তাই পরিবার, আত্মীয়-স্বজনের সাথে ঈদের আনন্দ কাটাতেই গ্রামে ছুটে যাবেন তারা। তবে এরি মাঝে শনিবার (৩ সেপ্টেম্বর) ঈদের ছুটিতে সাতক্ষীরায় গ্রামের বাড়ি চলে গেছেন মুস্তাফিজ। অন্য ক্রিকেটাররা কে কোথায় ঈদ করবেন তা এখনো জানা যায় নি।

এদিকে ঈদের ছুটির আগে আফগানিস্তানের বিপক্ষে টাইগারদের চূড়ান্ত স্কোয়াড ঘোষনা করার কথা থাকলেও সেটি আর হচ্ছে না। ঈদের পরে ১৭ সেপ্টেম্বর ঘোষনা করা হবে বাংলাদেশের জাতীয় দলের স্কোয়াড। পাশাপাশি একই দিনে বিসিবি একাদশের স্কোয়াডও ঘোষনা করা হবে বিসিবি থেকে এক সূত্রের মাধ্যমে জানানো হয়েছে।

১৭ সেপ্টেম্বর স্কোয়াড ঘোষনার দিন শেষ হবে টাইগারদের ঈদের ছুটি। আগামী ১৮ সেপ্টেম্বর (রবিবার) থেকে মূল স্কোয়াড নিয়ে শুরু হবে ক্যাম্প। এই ক্যাম্পে শুধু চুড়ান্ত স্কোয়াডের সদস্যরাই অংশ নিতে পারবেন। যারা সুযোগ পাবেন না তারা ন্যাশনাল ক্রিকেট লিগে (এনসিএল) অংশ নিতে পারবেন।

এদিকে বাংলাদেশ জাতীয় দলের প্রধান কোচ চান্ডিকা হাতুরুসিংহে ঈদের ছুটিতে ইতিমধ্য অস্ট্রেলিয়ায় চলে গেছেন। পরিবারের সাথে ছুটি কাটাতে ২ সেপ্টেম্বর দেশ ছাড়েন তিনি। তবে ১৮ সেপ্টেম্বর ক্যাম্প শুরুর আগেই দেশে ফিরবেন তিনি।

এদিকে বাংলাদেশের সাথে তিনটি একদিনের ম্যাচ খেলতে ২১ সেপ্টেম্বর ঢাকায় আসবে আফগানিস্তান ক্রিকেট দল। ২৩ সেপ্টেম্বর ফতুল্লায় বিসিবি একাদশের বিপক্ষে একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে সফরকারীরা। এরপর ২৫ তারিখ থেকে শুরু হবে তিন ম্যাচের একদিনের সিরিজ।

উল্লেখ্য, এরপরেই বাংলাদেশে আসবে ইংল্যান্ড ক্রিকেট দল। আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর দুইটি টেস্ট ও তিনটি একদিনের ম্যাচের সিরিজ খেলতে বাংলাদেশে আসবে ইংল্যান্ড। আগামী ৭ অক্টোবর মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। একই মাঠে পরের ম্যাচ ৯ অক্টোবর। আর চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে ১২ অক্টোবর তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে । এদিকে একই ভেন্যুতে ২০ অক্টোবর শুরু হবে বাংলাদেশ ও ইংল্যান্ডের মধ্যকার প্রথম টেস্ট। ২৮ অক্টোবর মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শুরু হবে শেষ টেস্ট। তাই, ঈদের ছুটির পরপরেই টাইগারদের আন্তর্জাতিক ব্যস্ততা শুরু হয়ে যাবে।