উইজডেন বর্ষসেরার তিনজনই নারী

0
648

২০১৮ সালের উইজডেন বর্ষসেরা ক্রিকেটারদের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। প্রথমবারের মতো সেরা পাঁচ ক্রিকেটারের তিনজনই নির্বাচিত হয়েছেন নারী। এর আগে মাত্র দুজন নারী ক্রিকেটার নির্বাচিত হওয়ার রেকর্ড ছিল।

উইজডেন বর্ষসেরার তিনজনই নারী
উইজডেন ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদ।

ক্রিকেটের বিশ্বায়নের পাশাপাশি নারীদের অবদানও যে বৃদ্ধি পাচ্ছে, সেই ইঙ্গিতই দিল এবারের উইজডেন। ক্রিকেটের বাইবেলখ্যাত উইজডেন ম্যাগাজিনের দৃষ্টিতে যে তিনজন নারী ক্রিকেটার সেরার খেতাব পেয়েছেন, তাদের তিনজনই আবার ইংল্যান্ডের।

Advertisment

এই তিন প্রমীলা ক্রিকেটার হলেন- আনা শ্রাবসোল, হিদার নাইট ও ন্যাট শিভার। আনা শ্রাবসোল জায়গা পেয়েছেন ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদেই। এর আগে যে দুজন নারী ক্রিকেটার বর্ষসেরার খেতাব পেয়েছিলেন তারা হলেন ক্লাইর টেলর (২০০৯) ও শার্লট এডওয়ার্ডস (২০১৪)।

তিন প্রমীলা ক্রিকেটার ছাড়া বর্ষসেরা ক্রিকেটারের পাঁচজনের তালিকায় স্থান পাওয়া বাকি দুজন হলেন উইন্ডিজের শাই হোপ ও এসেক্সের ক্রিকেটার জেমি পোর্টার। হেডিংলি টেস্টের দুই ইনিংসে সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে স্বাগতিক ইংল্যান্ডের বিপক্ষে উইন্ডিজকে দুর্দান্ত এক জয় এনে দেওয়ার জন্য খেতাব পেয়েছেন হোপ। পোর্টার পুরস্কার পেয়েছেন ২৫ বছর পর এসেক্সকে কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপ শিরোপা জেতানোর জন্য।

উইজডেনের বিচারে টানা দ্বিতীয়বারের মতো লিডিং ক্রিকেটার (পুরুষ) নির্বাচিত হয়েছেন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি। এই প্রথম কোনো ক্রিকেটার টানা দুবার লিডিং ক্রিকেটারের পুরস্কার পেলেন। নারী লিডিং ক্রিকেটারের খেতাবও পেয়েছেন ভারতীয় অধিনায়ক- মিতালী রাজ। প্রথমবারের মতো দেওয়া সেরা টি-২০ ক্রিকেটারের খেতাব পেয়েছেন আফগানিস্তানের বিস্ময়কর তরুণ স্পিনার রশিদ খান।

ইংলিশ ক্রিকেটের গ্রীষ্ম মৌসুমে পৃথিবীজুড়ে যেসব ক্রিকেটাররা দুর্দান্ত পারফরমেন্স প্রদর্শন করেন, তাদেরই সেরার খেতাব দেয় উইজডেন ক্রিকেট ম্যাগাজিন। এক্ষেত্রে বিবেচনা করা হয় আন্তর্জাতিক ও ঘরোয়া দুই পারফরমেন্সই। ১৮৬৪ সাল থেকে শুরু হয় উইজডেন ম্যাগাজিনের প্রকাশনা। এর পর থেকে প্রতি বছরই নিয়ম করে প্রকাশিত হয়ে আসছে ম্যাগাজিনটি। সেরা ক্রিকেটারের খেতাব দেওয়ার রীতি শুরু হয় ১৮৮৯ সালে।

আরও পড়ুনঃ চার বিদেশি কিউরেটরকে চার অঞ্চলের দায়িত্ব