Scores

শ্বাসরুদ্ধকর সুপার ওভারে ভারতকে সিরিজ জেতালেন রোহিত

কিউই অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে ভারতের জড়ো করা ১৭৯ রানের পুঁজি এক সময় নিউজিল্যান্ডের জন্য ছোট বলেই মনে হচ্ছিল। তবে শেষদিকে নাটকীয়তা ছড়িয়ে ম্যাচ হয়ে গেল টাই! শেষমেশ তাই জয়ীর খোঁজে আশ্রয় নিতে হল সুপার ওভারের। তাতে নখ কামড়ানো ম্যাচে ভারত নিউজিল্যান্ডকে হারের স্বাদ দিয়েছে, ২ ম্যাচ হাতে রেখে নিশ্চিত করেছে সিরিজ জয়ও। হ্যামিল্টনে পাঁচ ম্যাচ সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে দারুণ রোমাঞ্চের জন্ম দিয়েছে স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড ও সফরকারী ভারত। 

উইলিয়ামসনের তাণ্ডবে উড়ে গেল ভারত

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই বোলারদের উপর চড়াও হয়ে খেলতে থাকেন ভারতের ওপেনার রোহিত শর্মা। তার সাথে স্বাচ্ছন্দে খেলছিলেন আরেক ওপেনার লোকেশ রাহুলও। উদ্বোধনী জুটিতে দুজনে মিলে দলকে এনে দেন উড়ন্ত সূচনা। ৯ম ওভারের শেষ বলে রাহুল যখন নিউজিল্যান্ডের প্রথম শিকার হয়ে সাজঘরে ফিরছেন, দলীয় সংগ্রহ তখন ৮৯।

Also Read - দায়িত্ব বাড়ায় নিজের জন্য সুযোগ দেখছেন সৌম্য






১৯ বলে ২৭ রান করা রাহুলের বিদায়ের পর সাজঘরে ফেরেন ২৩ বলে অর্ধ-শতক পূর্ণ করা রোহিতও। ৬টি চার ও ৩টি ছক্কায় ৪০ বলে ৬৫ রান করা রোহিত বিদায় নিলে চাপে পড়ে যায় ভারত।

সেই চাপ জয় করতে পারেননি শিভাম দুবে (৩) বা শ্রেয়াস আইয়ারও (১৭)। বিরাট কোহলি এক প্রান্ত আগলে রেখে রানের গতি বাড়ানোর চেষ্টা চালিয়ে যান। তবে তাকেও সাজঘরে ফিরতে হয়। তার আগে ২৭ বলে ৩৮ রান করেন মাত্র ১টি ছক্কা ও ২টি চার হাঁকিয়ে।






অবশ্য শেষদিকে মনিশ পাণ্ডের ৬ বলে ১৪ ও রবীন্দ্র জাদেজার ৫ বলে ১০ রানের ছোট দুটি ইনিংস দলীয় পুঁজিকে লড়াকু রূপ দান করে। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ভারতের সংগ্রহ দাঁড়ায় ১৭৯ রান। নিউজিল্যান্ডের পক্ষে হামিশ ব্যানেট তিনটি উইকেট শিকার করেন।

জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে উদ্বোধনী জুটিতে ৪৭ রন জড়ো করেন মার্টিন গাপটিল ও কলিন মুনরো। গাপটিল (৩১) ২১ বলের মোকাবেলায় ঝড়ো ইনিংস খেলে সাজঘরে ফেরেন ষষ্ঠ ওভারে। পাওয়ারপ্লের পরপরই সাজঘরে ফেরেন মুনরোও (১৪)।

স্বাগতিকরা আরও চাপে পড়ে যায় মিচেল স্যান্টনার ১১ বলে ৯ ও কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম ১২ বলে ৫ রান করে বিদায় নিলে। তবে অধিনায়ক উইলিয়ামসন দলের পক্ষে হাল ধরেন। আরেক অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান রস টেলরকে সঙ্গে নিয়ে জয়ের পথেই এগোচ্ছিলেন।

তবে ক্যারিয়ারের প্রথম শতক হাঁকানোর সুযোগ হাতছাড়া করেন মাত্র ৫ রানের জন্য, শেষ ওভারে মোহাম্মদ শামির শিকারে পরিণত হয়ে। তার আগে ৪৮ বলের মোকাবেলায় ৯৫ রান করেন, হাঁকিয়েছেন ৮টি চার ও ৬টি ছক্কা। তার বিদায়ে শেষ ওভার নাটকীয় রূপ নেয়। এই ওভারে জয়ের জন্য কিউইদের প্রয়োজন ছিল ৯ রান। শামির প্রথম বলেই ছক্কা হাঁকিয়ে টেলর সমীকরণকে সহজ করে তোলেন। পরের বলে ১ রান নিয়ে স্ট্রাইক দেন উইলিয়ামসনকে, যিনি লোকেশ রাহুলের হাতে বন্দি হয়ে সাজঘরে ফেরেন।

শামির পরের শর্ট বল ডেলিভারি মিস করলেও পঞ্চম বলে একই রকম ডেলিভারি উইকেটরক্ষক রাহুলের গ্লাভসে জড়ো হতে হতেই টেলরের সাথে প্রান্ত বদল করেন টিম সেইফার্ট। রাহুলের রানআউট হাতছাড়ার আক্ষেপ ঘুচে যায় অবশ্য পরের বলে। জয়ের জন্য শেষ বলে ১ রানের খোঁজে থাকা টেলর বোল্ড হয়ে যান, ১০ বলে ১৭ রান করে। এতে নিউজিল্যান্ডের সংগ্রহও দাঁড়ায় ভারতের সমান- ১৭৯ রান!

ভারতের পক্ষে দুটি করে উইকেট শিকার করেন শার্দূল ঠাকুর ও মোহাম্মদ শামি।

শ্বাসরুদ্ধকর সুপার ওভারে ভারতকে সিরিজ জেতালেন রোহিত

সুপার ওভার

নিউজিল্যান্ডের হয়ে ব্যাট করতে নামেন অধিনায়ক উইলিয়ামসন ও গাপটিল। জাসপ্রিত বুমরাহর (যিনি এর আগে ৪ ওভারে বিলি করেছেন ৪৫ রান) প্রথম ২ বলে ২ রান নেওয়ার পর তৃতীয় বলে ছক্কা হাঁকান উইলিয়ামসন। পরের বলে উইলিয়ামসনের ব্যাট থেকে আসে চার। পরের বল ব্যাটে লাগাতে না পারলেও দৌড়ে প্রান্ত বদল করেন ব্যাটসম্যানরা। বুমরাহকে পিটিয়ে ছাতু বানানোর দিনে সুপার ওভারের শেষ বলে ৪ রান নেন গাপটিল। এতে নিউজিল্যান্ডের সংগ্রহ দাঁড়ায় ১৭ রান।

জবাবে ভারতের হয়ে ব্যাট করতে নামা রোহিত শর্মা প্রথম বলে উইলিয়ামসনের রানআউট হাতছাড়ার সুবাদে সংগ্রহ করেন ২ রান। পরের বলে ১ রান নিয়ে স্ট্রাইকে পাঠান লোকেশ রাহুলকে। তৃতীয় বলে টিম সাউদিকে চার হাঁকান রাহুল। শেষ ৩ বলে ভারতের প্রয়োজন ছিল ১০ রান। চতুর্থ বলে ১ রান নিয়ে রোহিতকে স্ট্রাইকে পাঠান রাহুল, রোহিত পঞ্চম বলে হাঁকান বিশাল এক ছক্কা। শেষ বলে প্রয়োজন ছিল ৪ রান, রোহিত ছক্কা হাঁকিয়ে নিশ্চিত করেন দলের জয়।

নিউজিল্যান্ডের মাটিতে এটিই ভারতের প্রথম টি-টোয়েন্টি সিরিজ জয়।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

টস: নিউজিল্যান্ড

ভারত ১৭৯/৫ (২০ ওভার)
রোহিত ৬৫, কোহলি ৩৮, রাহুল ২৭
ব্যানেট ৫৪/৩, গ্র্যান্ডহোম ১৩/১, স্যান্টনার ৩৭/১

নিউজিল্যান্ড ১৭৯/’৬ (২০ ওভার)
উইলিয়ামসন ৯৫, গাপটিল ৩৪, টেলর ১৭, মুনরো ১৪
শার্দূল ২১/২, শামি ৩২/২

ফল: টাই

সুপার ওভার-

নিউজিল্যান্ড ১৭/০

ভারত ১৯/০

ফল: ভারত জয়ী।

সিরিজ: ভারত ৩-০ ব্যবধানে জয়ী।

প্রথমবারের মত বিডিক্রিকটাইম নিয়ে এলো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন। বাংলাদেশ এবং সকল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বল বাই বল লাইভ স্কোর, এবং সাম্প্রতিক নিউজ সহ সবকিছু এক মুহূর্তেই পাবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অনলাইন পোর্টাল BDCricTime এর অ্যাপে। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে গুগল প্লে-স্টোর থেকে সার্চ করুন BDCricTime অথবা ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন
Tweet 20
fb-share-icon20

Related Articles

সাইকেল চুরির অভিযোগে আটক অস্ট্রেলিয়ান সাবেক ক্রিকেটার

পাকিস্তানের নাগরিকত্বের জন্য আবেদন ক্যারিবীয় তারকার!

‘আমরা এখন আগের থেকে আরও শক্তিশালী’

বাংলাদেশি চ্যানেলে দেখা যাবে নারী বিশ্বকাপ

পাকিস্তানের ক্রিকেটে নিষিদ্ধ উমর আকমল