উজ্জ্বল দুই মেহেদী; রাজশাহীর মাঝারি সংগ্রহ

0
548

ফরচুন বরিশালের মেহেদী হাসান মিরাজ ও মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহীর শেখ মেহেদী হাসান দুইজনেই বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের ষষ্ঠ ম্যাচের প্রথম অর্ধে যথাক্রমে বল ও ব্যাট হাতে আলো ছড়িয়েছেন। মিরাজের কিপটে বোলিংয়ের পরেও মেহেদীর দুর্দান্ত ব্যাটিং শৈলী দেখান। তবে রাজশাহী পেয়েছে মাঝারি সংগ্রহ, ৯ উইকেটের বিনিময়ে ১৩২ রান।

ব্যাট ও বল হাতে উজ্জ্বল দুই দলের দুই মেহেদী

Advertisment

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে আগে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন বরিশালের অধিনায়ক তামিম ইকবাল। আনিসুল হক ইমনকে সাথে নিয়ে ভালো শুরু করেন রাজশাহীর অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। কিন্তু সেই ধারা তারা ধরে রাখতে পারেননি। পাওয়ারপ্লেতে ৩৯ রান যোগ করে এই উদ্বোধনী জুটি। আবু জায়েদ রাহী এসে শান্তকে শিকার করে ভাঙেন জুটি। ফেরার আগে শান্ত করেন ১৯ বলে ২৪ রান।

তারপরেই হঠাৎ করে ধ্বস নামে রাজশাহীর ব্যাটিং লাইনআপে। পরবর্তী ২৪ রানের ভেতরে ৫টি উইকেট হারায় তারা। শান্ত ফেরার পরের ওভারেই এক দুর্দান্ত বলে রনি তালুকদারকে বোল্ড করেন মেহেদী হাসান মিরাজ। তারপর ক্রিজে আসেন আশরাফুল। দারুণ এক চার হাঁকিয়ে ইনিংস শুরু করলেও রান আউটে কাটা পড়েন তিনি। একই ওভারে থিতু ব্যাটসম্যান ইমনকে ফেরান মিরাজ। ইমন করেন ২৭ বলে ২৪ রান।

ষষ্ঠ উইকেটে জুটি গড়েন ফজলে মাহমুদ রাব্বি ও শেখ মেহেদী হাসান। ফজলে আউট হলে ভাঙে এই জুটি। তাসকিনের শিকার হওয়ার আগে তিনি করেন ৩১ রান (৩২ বল)। ফরহাদ রেজা এসেই ফিরে যান ১ রান করে। শেষ ওভারে ৩টি উইকেট পান কামরুল ইসলাম রাব্বি। ২৩ বলে ৩৪ রানের কার্যকরী ইনিংস খেলে বিদায় নেন। তার ইনিংসে ছিল ৩টি ছক্কা।

নির্ধারিত ২০ ওভারে রাজশাহী সংগ্রহ করেছে ১৩২ রান। বরিশালের পক্ষে ৪ ওভারে ১৮ রান খরচ করে ২টি উইকেট শিকার করেন মিরাজ। চার ২১ রান দিয়ে শেষ ওভারের তিনটিসহ মোট ৪টি উইকেট পান রাব্বি।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহী ১৩২/৯ (২০ ওভার)
মেহেদী ৩৪, ফজলে ৩১, শান্ত ২৪, ইমন ২৪;
রাব্বি ৪/২১, মিরাজ ২/১৮;

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।