Scores

উত্তরাকে হারিয়ে সেমিফাইনালে শেখ জামাল

বৃষ্টিবিঘ্নিত কার্টেল ওভারের ম্যাচে জয়ের জন্য শেষ ওভারে উত্তরা স্পোর্টিং ক্লাবের প্রয়োজন ছিল ১৫ রান। জিয়াউর রহমানের করা ওভারটিতে ১০ রানের বেশি না নিতে পারলে ৪ রানের জয় পায় শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্রিকেট ক্লাব। এ জয়ের ফলে ডিপিএলটি-টোয়েন্টির সেমিফাইনাল নিশ্চিত হয়েছে শেখ জামালের। অন্যদিকে আসর থেকে ছিটকে গেছে উত্তরার ক্লাবটি।

ফাইল ছবি।

প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ৮ ওভারে স্কোরবোর্ডে আট ওভারে ৭২ রান করে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্রিকেট ক্লাব। জবাবে ব্যাট করতে নামলে ম্যাচে ফের বাধ সাজে বৃষ্টি। তাই কমিয়ে ম্যাচের দৈর্ঘ্য কমিয়ে আনা হয় আরও এক ওভার। তাই উত্তরা স্পোর্টিং ক্লাবের পরিবর্তিত লক্ষ্যমাত্রা দাঁড়ায় ৭ ওভারে ৬৪ রান।

Also Read - পরবর্তীতে আরো বড় পরিসরে হবে ডিপিএল টি-টোয়েন্টি


জয়ের লক্ষ্য নিয়ে ব্যাট করতে নেমে ৪ ওভারের মধ্যে চার গুরুত্বপূর্ণ ব্যাটসম্যানের উইকেট হারিয়ে বসে দলটি। যার ফলে ফিকে হয়ে যায় জয়ের স্বপ্নও। শেষ দিকে মুহিমেনুল খান ও শাকির হোসেন শুভ নিজেদের সর্বোচ্চটা দিয়ে লড়লেও হার এড়াতে পারেননি। উত্তরার পক্ষে সর্বোচ্চ ১৩ রান এসেছে আনিসুলের ব্যাট থেকে। তাছাড়া মুহিমেনুল ও শাকির উভয়েই করেছেন ১২ রান করে।

শেখ জামালের বোলারদের মধ্যে ১১ রান খরচায় সর্বোচ্চ দুটি উইকেট লাভ করেছেন ইলিয়াস সানি। তাছাড়া শহিদুল ইসলাম, সালাউদ্দিন সাকিল ও জিয়াউর রহমান নিয়েছেন একটি করে উইকেট।

এর আগে উত্তরার ক্লাবটির আমন্ত্রণে সাড়া দিয় ইমতিয়াজ হোসেন ও ফারদিন হাসানের ব্যাটে ভালো শুরুর দেখা পায় শেখ জামাল। এ দুই ব্যাটসম্যান মিলে স্কোরবোর্ডে যোগ করেন ৩.৩ ওভারে ৩৬ রান।

৯ বলে ১২ রান করা ইমতিয়াজের উইকেট তুলে নিয়ে জুটি ভাঙ্গেন আসাদুজ্জামান পায়েল। সঙ্গী হারানোর কিছুক্ষণ পর সাজঘরে ফিরেন ফারদিনও। আউট হওয়ার আগে করেন ১৮ বলে ২৫ রান। ১ চার ও ১ ছক্কায় এ রান করেন তিনি।

ক্রিজে নেমে প্রথম বলে ছক্কা হাঁকিয়ে জিয়াউর রহমান ঝড়ো ইনিংসের আভাস দিলেও তা আর হয়ে ওঠেনি। ৪ বলে ৮ রান করে আউট হয়ে যান তিনিও। দুই ওপেনারের পর জিয়ার ফিরে যাওয়ার পর রান তোলার গতি কিছুটা মন্থর হয়ে আসে শেখ জামালের।

শেষ দিকে হাসানুজ্জামান, নুরুল হাসান সোহানরা প্রত্যাশা অনুযায়ী ব্যাট করতে না পারলে নির্ধারিত ৮ ওভার শেষে ৫ উইকেটে ৭২ রানের পুঁজি পায় শেখ জামাল। নাসির ৮ বলে ১১ রান করে শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থাকেন।

উত্তরার বোলারদের মধ্যে সাজ্জাদ হোসেন এক ওভার থেকে ৮ রান খরচায় লাভ করেন ৩টি গুরুত্বপূর্ণ উইকেট।

সংক্ষিপ্ত স্কোরকার্ড-
শেখ জামাল ধানমন্ডি: ৫ উইকেটে ৭২ রান (৫ ওভার)।
ফারদিন ২৫, ইমতিয়াজ ১৮, নাসির ১১*; সাজ্জাদ ১-০-৮-৩।

উত্তরা স্পোর্টিং ক্লাব: ৫ উইকেটে ৫৯ রান (৭ ওভার)।
আনিসুল ১৩, মুহিমেনুল ১২, শাকির ১২; সানি ২-০-১১-২

ফলাফল: শেখ জামাল ৪ রানে জয়ী।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

বোলারদের দিনে উত্তরার কষ্টার্জিত জয়

ব্রাদার্স ইউনিয়নের এ কী হাল!

ডিপিএল খেলা বোলারের অ্যাকশন অবৈধ!

দোলেশ্বরের সামনে পাত্তা পেলো না উত্তরা

দৈর্ঘ্য কমার ম্যাচেও অলআউট হয়ে গাজীর কাছে হারলো উত্তরা