Scores

ঋণের বোঝা মাথায় নিয়ে উবার চালাচ্ছেন শোয়েব

বাংলাদেশের ক্রিকেটের সমর্থনে স্টেডিয়ামে নিরিলসভাবে গলা ফাটিয়ে সমর্থন জোগান যারা, তাদেরই একজন শোয়েব আলী বুখারি। টাইগার শোয়েব নামে পরিচিত এই পাঁড় ক্রিকেট ভক্ত এবার বিপিএলে নেই গ্যালারিতে। বিপিএলের বিগত সবগুলো আসরে ক্রিকেট অঙ্গনে ব্যস্ত সময় পার করছিলেন, তবে এবার তার হাতে গাড়ির স্টিয়ারিং।

ইংল্যান্ডের ভিসা পেয়েছেন টাইগার মিলন
টাইগার শোয়েব। ছবি: রাফসান রানা।

মোটরগাড়ি ঠিক করার একটি ওয়ার্কশপ ছিল তার। খেলা দেখার পাগলামিতে সেটি বন্ধ করতে হয়েছে। বিশ্বকাপ, শ্রীলঙ্কা আর ভারত সফরের পর মাথায় ঋণের বোঝা। বাধ্য হয়ে শোয়েব এখন উবার চালকের ভূমিকায়।





Also Read - তিন ধাপে টাইগারদের পাকিস্তান সফর, সূচি ঘোষণা


দেশের একজন আইকনিক ক্রিকেট সমর্থককে রাইড শেয়ারিং সার্ভিস উবারের কার চালাতে দেখা মোটেও অস্বাভাবিক নয়। তবে অস্বাভাবিক ঠেকল তার জীবনচিত্র। খেলা দেখার উন্মাদনায় অনেক টাকা ঋণ করেছেন। এবার তাই বিপিএলের মত বড় টুর্নামেন্ট ফেলে অর্থের পেছনে ছুটতে হচ্ছে।

প্রতিদিন ৫-৬ ঘণ্টার ঘুমের সময়টুকু বাদে বাকি সময়ের প্রায় পুরোটাই কার চালান। বিশ্বকাপের সময় স্পন্সর হওয়া প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে স্পন্সরশিপের টাকাটাও পাননি, পাওয়ার আশাও একরকম ছেড়ে দিয়েছেন। বাস্তবতা মেনে টাইগার শোয়েব এখন উবারের ট্রিপে মশগুল। গত বিপিএলেও নিজে গ্যালারিতে ছিলেন, আর এবার তিনি অন্য সমর্থকদের ট্রিপে করে নামিয়ে আসেন মিরপুর স্টেডিয়ামের সামনে।






শোয়েবের অবশ্য আক্ষেপ নেই, অথবা চলল আক্ষেপ লুকানোর চেষ্টা। বিডিক্রিকটাইমকে তিনি বলেন, ‘গাড়ি তো কেউ শখ করে চালায় না। পেটের জন্য চালায়। সব রাস্তা বন্ধ হয়ে গেলে আসলে আল্লাহ একটা রাস্তা খুলে দেন। খেলা দেখতে গেলে ওয়ার্কশপের কাস্টমাররা ফিরে যেত, পরে আর আসতো না। খেলা দেখতে গিয়ে আজকে ওয়ার্কশপও নেই, অবস্থাও অতটা ভালো নেই।’

‘খেলা দেখতে গিয়ে অনেক টাকার ঋণী হয়েছি। স্পন্সর পাওয়া যায় না। বিশ্বকাপ দেখতে ইংল্যান্ড যাওয়ার সময় একটা প্রতিষ্ঠান স্পন্সর হল, কিন্তু সেই টাকা এখনো পাইনি। প্রতি সপ্তাহে ওদের কাছে যাই। মিডিয়ায় বলতে গেলে হয়ত যা পাওয়ার কথা সেটাও পাব না, বা তারা রাগ করবে।’

বিশ্বকাপের পর শ্রীলঙ্কা আর ভারত সফরে গিয়েছিলেন ঋণ নিয়ে। সেই অর্থের পরিমাণ জমতে জমতে বড় আকার ধারন করেছে। শোয়েব বলেন, যে টাকা ঋণ করেছি… কত চাপ আর দুশ্চিন্তায় যে থাকতে হয়। যে ঋণগুলো আছে সেগুলো পরিশোধ করতে চাই।’ আর এ কারণেই ক্রিকেট দেখা ফেলে গাড়ি চালানোয় আক্ষেপ পুষে রাখেননি। 

ঋণের বোঝা কমাতে এখন নাওয়া-খাওয়া বাদ দিয়েই গাড়ি চালাচ্ছেন। যথেষ্ট বিশ্রামহীন এই কাজ ঝুঁকিপূর্ণও বটে। কিন্তু শোয়েবের ভাষ্য, ‘ঝুঁকিপূর্ণ হলেও আসলে কিছু করার নেই। ঋণের টাকা শোধ করতে পারলে ভালো লাগে। দুশ্চিন্তা অনেক বাজে একটা জিনিস।’

এখন দুঃসময়ের মধ্য দিয়ে গেলেও শোয়েবের প্রত্যাশা, ঋণের বোঝা দূর করে আবারো সামনে বাংলাদেশের জন্য, দেশের ক্রিকেটের জন্য গলা ফাটাবেন স্টেডিয়ামে।

টাইগার শোয়েবকে নিয়ে ভিডিও প্রতিবেদন দেখুন-

প্রথমবারের মত বিডিক্রিকটাইম নিয়ে এলো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন। বাংলাদেশ এবং সকল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বল বাই বল লাইভ স্কোর, এবং সাম্প্রতিক নিউজ সহ সবকিছু এক মুহূর্তেই পাবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অনলাইন পোর্টাল BDCricTime এর অ্যাপে। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে গুগল প্লে-স্টোর থেকে সার্চ করুন BDCricTime অথবা ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

ঢাকার রাস্তায় টাইগার শোয়েবের ত্রাণ ছিনতাই

বিশ্বকাপ-জয় উদযাপনে নতুন বেশে টাইগার শোয়েব

এবার ছিনতাইয়ের শিকার টাইগার শোয়েব

শাহরুখের বিপক্ষে গিয়ে যেভাবে রোহিতের প্রিয় হয়েছিলেন শোয়েব

দীর্ঘ অপেক্ষার পর ভিসা হাতে পেলেন শোয়েব