Scores

এই মিরাজ অনেক আত্মবিশ্বাসী

এশিয়া কাপের পরই আত্মবিশ্বাসের অনেক উঁচুতে রয়েছেন জাতীয় দলের তরুণ অলরাউন্ডার মেহেদী হাসান মিরাজ। এ তরুণ ক্রিকেটার ভয়কে কীভাবে জয় করেছেন? সেটা অবশ্য জানিয়েছেন নিজেই। মূলত সিনিয়র ক্রিকেটার ও টিম ম্যানেজমেন্টের সমর্থনেই এটি সম্ভব হয়েছে।

“মাশরাফি ভাই বললেন- ওপেনিংয়ে নামতে পারবি?”

পুরো এশিয়া কাপে ওপেনিং জুটি নিয়ে বেশ ভুগেছে বাংলাদেশ দল। ওপেনাররা ব্যর্থ হওয়াতে চাপে ছিলেন মিডল ও লোয়ার অর্ডারের ব্যাটসম্যান। শেষ পর্যন্ত এটির সমাধান খুঁজে পেয়েছেন ফাইনালে ভারতের বিপক্ষে ম্যাচের আগে। দলপতি মাশরাফি মুর্তজা হুট করেই মেহেদী হাসান মিরাজকে ওপেনিংয়ে নামার প্রস্তাব দেন। তাতে অবশ্য কোন ভাবনা-চিন্তা ছাড়াই রাজি হয়ে যান মিরাজ।

যে ব্যাটসম্যান কখনো ওপেনিংয়ে নামেনি, ঐ ব্যাটসম্যান ফাইনালে এশিয়া কাপের মতো বড় মঞ্চে চাপ কতটুকু নিতে পারবেন? তবে সবকিছু দূর করে দিয়েছেন মিরাজ। আরেক ওপেনার লিটন কুমার দাসকে নিয়ে ভারতীয় বোলারদের বিপক্ষে যেভাবে খেলেছেন মনেই হচ্ছিলো না প্রথমবারের মতো ওপেনিংয়ে নেমেছেন এই অলরাউন্ডার। তবে হুট করে এই ভয় জয় করেছেন কীভাবে মিরাজ?

Also Read - জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচের দল ঘোষণা


“যখন টিম ম্যানেজমেন্ট সমর্থন দেয়, আমাদের সিনিয়র খেলোয়াড় সবাই যখন সমর্থন দেয়, আত্মবিশ্বাসটা অনেক বেড়ে যায়। ফাইনালের আগের রাতে যখন আমাকে বলা হয় ওপেন করতে হবে, তখন মাশরাফি ভাই, রিয়াদ ভাই বললেন, পারবি, সমস্যা নেই। তখন নিজের প্রতি আত্মবিশ্বাসটা বেড়ে গেল। তাঁরা আরও কিছু কথা বলেছে, যেটা শুনে আরও বেশি আত্মবিশ্বাস পেলাম। এই জিনিসটাই, নিজের আত্মবিশ্বাস আর সবার সমর্থন কাজে দেয় ভালো করতে।”

এশিয়া কাপের ফাইনালে ওপেনিংয়ে নামাটা নিশ্চয়ই চ্যালেঞ্জ ছিল মিরাজের জন্য। অবশ্য চ্যালেঞ্জ পছন্দ করেন এই তরুণ অলরাউন্ডার। তাই তো লোয়ার অর্ডার থেকে এক লাফে ওপেনিংয়ে!

“সব সময় চ্যালেঞ্জ নিতে পছন্দ করি। কঠিন পরিস্থিতির চ্যালেঞ্জ আমি উপভোগ করি।”

আগামী ২১ অক্টোবর থেকে শুরু হচ্ছে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ। সেই সিরিজে তার আত্মবিশ্বাস নিশ্চয়ই কাজে লাগাতে চাইবেন মেহেদী হাসান মিরাজ। এছাড়াও এই সিরিজেও ওপেনিংয়ে দেখা যেতে পারে মিরাজকে!

আরও পড়ুনঃ প্রস্তুতি ম্যাচের দল ঘোষণা বিসিবির

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

মাধ্যমিকের প্রশ্নপত্রে নিজের নাম দেখে কৃতজ্ঞ তামিম

মেডিকেল রিপোর্টের উপরেই নির্ভর করছে সাকিবের এনওসি

মিঠুনের ‘মূল চরিত্রে’ আসার তাড়না

‘আঙুলটা আর কখনো পুরোপুরি ঠিক হবে না’

এক নয় মাশরাফির তিন ইনজুরি