একশ করার পরিকল্পনা ছিল না : শান্ত 

রানের দেখা পাচ্ছিলেন না বলে নাজমুল হোসেন শান্তকে নিয়ে বেশ সমালোচনা হচ্ছিল। সেই সমালোচনার জবাব তিনি দিয়েছেন টেস্টের মঞ্চে ওয়ানডে মেজাজে শতক হাঁকিয়ে। যদিও ব্যাটিংয়ের নামার সময় শতকের কোনো পরিকল্পনাই ছিল না তার। 

একশ করার পরিকল্পনা ছিল না শান্ত 

Advertisment

অবশ্য চারদিক থেকে যে চাপ ভর করছিল শান্ত’র ওপর, এমন পরিস্থিতিতে শতকের প্রত্যাশা করা রীতিমত বিলাসিতাই হয়ে উঠত বোধহয়! সাদমান ইসলাম তখন ক্রিজে, সাইফ হাসান সাজঘরে ফিরেছেন। ইনিংস ঘোষণার আগে দ্রুত গতিতে রান তোলা বড্ড প্রয়োজন। শান্ত সেই প্রয়োজনটুকু ঠিকই বুঝতে পারলেন।

তাই দ্বিতীয় উইকেট জুটি শুরুই হল শান্তর মারকুটে ব্যাটিং দিয়ে। ইনিংসের শুরু থেকেই সাবধানী ব্যাটিং করা সাদমান খোলস ছেড়ে বের হননি। শান্ত একাই তাই দ্রুত রান তোলার প্রচেষ্টা চালিয়ে যান। তার ফলস্বরূপ ইনিংস ঘোষণার পর মাঠ ছাড়ছেন যখন, ১১৮ বল মোকাবেলা করেও নামের পাশে জ্বলজ্বল করছে ১১৭ রান!

 

View this post on Instagram

 

A post shared by bdcrictime.com (@bdcrictime)

শান্ত জানালেন, সাদমানের সাথে ব্যাটিংয়ের সময় কী পরিকল্পনা ছিল তার। তিনি বলেন, ‘ব্যাটিংয়ে দুইজন দুইজনকে সহায়তা করছিলাম, কীভাবে খেলা উচিৎ বা কীভাবে আগাবো। এটা আমাদের জন্য ইতিবাচক ছিল। একশ নিয়ে কেউই চিন্তা করিনি।’

‘পরিস্থিতি অনুযায়ী খেলার চেষ্টা করেছি। মূল মনোযোগ ছিল বল বাই বল খেলার, দিনশেষে দুইজনই বড় স্কোর পেয়েছি আলহামদুলিল্লাহ। আগে থেকে কোনো পরিকল্পনা ছিল না যে অনিক ভাই একশ করেছে তাই আমারও করতে হবে। এমন কোনো কিছুই ছিল না। আমরা শুধু বল দেখেছি আর খেলেছি।’– বলেন তিনি।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।