SCORE

সর্বশেষ

একসাথে দুই ‘এলিট ক্লাবে’ সাকিব

সাকিব আল হাসান আর রেকর্ড, যেনো এক সুতোয় গাঁথা। ক্যারিয়ারে ইতোমধ্যে মালিক হয়েছেন অসংখ্য রেকর্ডের, সেই সাথে রেকর্ড বই এলোমেলো করে নতুন করে নিজের নামে লিখেছেন অসংখ্য মাইলফলক স্পর্শের গল্প। ভিভো ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) চলতি আসরে নিজের পঞ্চম ম্যাচ খেলতে নেমে আজ আবারও একই সাথে দুটো মাইলফলক স্পর্শ করে এলিট ক্লাবে নাম যোগ করার সাথে পরিবর্তন এনেছেন রেকর্ড বইয়ে।

সাকিবদের জয়ের ছন্দ ধরে রাখার চ্যালেঞ্জ

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট ইতিহাসে ডোয়াইন ব্রাভো, লাসিথ মালিঙ্গা, সুনিল নারাইন, শহীদ আফ্রিদিদের পর পঞ্চম বোলার হিসেবে ৩০০ উইকেট শিকারি বোলারদের ক্লাবে প্রবেশ করলেন বাংলাদেশের সাকিব আল হাসান। শুধু তাই নয় একই সাথে ডোয়াইন ব্রাভোর পর দ্বিতীয় অলরাউন্ডার হিসেবে টি-টোয়েন্টিতে ৪ হাজার রান ও ৩০০ উইকেট শিকারিদের এলিট ক্লাবেও আজ নাম লেখিয়েছেন ৩১ বছর বয়সী বাঁহাতি এ স্পিনার।

Also Read - দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের জন্য বাংলাদেশের দল ঘোষণা

আইপিএলে পুরনো হোম গ্রাউন্ড ইডেন গার্ডেনে স্বাগতিক কলকাতা নাইট রাইডার্সের বিপক্ষে ২১ বলে ২৭ রানের ইনিংস খেলার পথে টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে প্রবেশ করেছিলেন চার হাজারি ক্লাবে। একই ম্যাচে গুরুত্বপূর্ণ দুটি উইকেট নিজের ঝুলিতে নিয়ে হাতছানি দিয়ে রেখেছিলেন পরবর্তী ম্যাচেই অলরাউন্ডারদের দুর্লভ অর্জনের এলিট ক্লাবে প্রবেশ করার। শেষ পর্যন্ত কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব ও চেন্নাই সুপার কিংসের বিপক্ষে উইকেটশূন্য থাকলে অপেক্ষা বাড়ে তার। অবশেষে,  যা আজ পূর্ণ করলেন বাংলাদেশের সাকিব।

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিপক্ষে ইনিংসের সপ্তম ওভারে বল করতে এসে ব্যক্তিগত প্রথম ওভারের তৃতীয় বলে প্রতিপক্ষ দলের অধিনায়ক রোহিত শর্মাকে ধাওয়ানের ক্যাচে পরিণত করে বিরল এ অর্জনে নাম লেখান বাংলাদেশের এ অলরাউন্ডার।

টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে বিশ্বের সব ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক ক্রিকেট আসরে বাংলাদেশকে প্রতিনিধিত্ব করা ৩১ বছর বয়সী এ অলরাউন্ডার ক্রিকেটের ছোট্ট এ ফরম্যাটে এখনো পর্যন্ত ম্যাচ খেলেছেন ২৬০টি (আজকের ম্যাচসহ)। যেখানে ব্যাট হাতে ২০.৬৫ গড়ে ৪,০৬৯ রান করেছেন। ক্যারিয়ারে এখনো অবধি শতকের দেখা না পেলেও এ অলরাউন্ডার অর্ধশতকের ইনিংস খেলেছেন মোট ১৪ বার।

ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি বল হাতেও নিজের সেরাটা দিয়ে নিজেকে অনেকের ধরাছোঁয়ার বাইরে নিয়ে গেছেন বাংলাদেশের এ অলরাউন্ডার। ২৬০ ম্যাচের মধ্যে ২৫৪ ইনিংসে বল করে নিজের ঝুলিতে ৩০০টি উইকেট নিয়েছেন বাঁহাতি এ স্পিনার। ইনিংসে ৫ উইকেটের দেখা পেয়েছেন তিনবার আর চার উইকেটের দেখা মোট সাতবার। পরিসংখ্যানের মতো উজ্জ্বল তার ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ের স্পেলটিও। ৬ রানের বিনিময়ে ৬ উইকেট শিকারের দুর্দান্ত মুহূর্তটি তার ক্যারিয়ারে এসেছিল ক্যারিবিয়ান সুপার লিগে (সিপিএল)।

টি-টোয়েন্টির শীর্ষ পাঁচ উইকেট শিকারি বোলার-

নাম                      ম্যাচ               উইকেটসংখ্যা
ডোয়াইন ব্রাভো       ৩৮০                ৪১৭
লাসিথ মালিঙ্গা        ২৫৬                 ৩৪৮
সুনিল নারাইন        ২৭৭                 ৩২৫
শহীদ আফ্রিদি         ২৭৪                 ৩০০
সাকিব আল হাসান  ২৬০                ৩০০*


আরও পড়ুনঃ ‘প্রথম সুযোগেই সেরা স্পিনারকে দলে নিয়েছি’

Related Articles

ভারতছাড়া হচ্ছে আইপিএল!

বিগ ব্যাশকেও বিদায় বললেন জনসন

দুই বছর বিদেশি লিগে খেলবেন না মুস্তাফিজ

১০০ বলের ফরম্যাটের প্রস্তুতি শুরু করেছে ইংল্যান্ড

আইপিএল খেলে যাবেন ডি ভিলিয়ার্স