একাই ভারতের ‘১০’ উইকেট নিয়ে ইতিহাস গড়লেন এজাজ

0
2869

মুম্বাইয়ের ছেলে এজাজ প্যাটেল, খেলাও হচ্ছে মুম্বাইয়ে। তবে তিনি স্বাগতিক দলে নন, সফরকারী দলের হয়ে খেলছেন। নিউজিল্যান্ডের হয়ে খেলা এই এজাজ ইতিহাসই গড়ে বসলেন চলমান ভারত-নিউজিল্যান্ড মুম্বাই টেস্টে।

একাই ভারতের '১০' উইকেট নিয়ে ইতিহাস গড়লেন এজাজ
একে একে ইনিংসের ১০টি উইকেটই তুলে নিয়েছেন এজাজ।

মুম্বাই টেস্টে ভারত ৩২৫ রানে অলআউট হয়েছে। নিউজিল্যান্ডের পক্ষে সবকটি উইকেটই নিয়েছেন এজাজ। ইনিংসে ১০ উইকেট নেওয়া ইতিহাসের তৃতীয় বোলার তিনি। এর আগে এই কীর্তি দেখিয়েছেন জিম ল্যাকার ও অনিল কুম্বলে। এজাজের মত তারাও ছিলেন স্পিনার।

Advertisment

তবে ল্যাকার বা কুম্বলে কেউই ম্যাচের প্রথম ১০ উইকেট শিকার করতে পারেননি। আবার সফরকারী দলের সদস্য হিসেবেও ১০ উইকেট নেওয়ার রেকর্ডও এবারই প্রথম। এজাজের কীর্তি তাই তাদের চেয়েও আগে থাকার যোগ্যতা রাখে।

ভারত প্রথম দিন শেষ করেছিল ৪ উইকেটে ২২১ রান নিয়ে। বৃষ্টিবিঘ্নিত প্রথম দিনের চারটি উইকেটই শিকার করেছিলেন এজাজ। দ্বিতীয় দিন ভারত দাঁড়াতেই পারেনি তার সামনে। মায়াঙ্ক আগারওয়াল ১৫০ ও অক্ষর পেটেল ৫২ রান করে সাজঘরে ফিরলে খেই হারিয়ে ফেলে ভারত। ১০৯.৫ ওভারে গুটিয়ে যায় ৩২৫ রানে।

একাই ভারতের '১০' উইকেট নিয়ে ইতিহাস গড়লেন এজাজ
দলকে বারবার এমন উদযাপনের উপলক্ষ্য এনে দিয়েছেন এই স্পিনার।

১০ উইকেট পেতে এজাজকে বল করতে হয়েছে ৪৭.৫ ওভার। ইংল্যান্ডের স্পিনার ল্যাকার অজিদের ১০ উইকেট পেয়েছিলেন ৫১.২ ওভার বল করে। পাকিস্তানের বিপক্ষে কুম্বলের অবশ্য লেগেছিল মাত্র ২৬.৩ ওভার।

টেস্ট ইতিহাসে ইনিংসে ১০ উইকেট নেওয়ার কীর্তি আছে এই তিনজনেরই। ইনিংসে ৯টি উইকেট শিকারের রেকর্ড আছে ১৭ জনের। বাংলাদেশের তাইজুল ইসলাম ২০১৪ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৮ উইকেট পেয়েছিলেন, যা টেস্ট ইতিহাসের সেরা বোলিং ফিগারের তালিকায় ৩৩তম।

উল্লেখ্য- ভারতের সব উইকেট শিকার করার ইনিংসে এজাজের বোলিং ফিগার এমন- ৪৭.৫-১২-১১৯-১০।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনের চ্যাটে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime Crickey সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।