একাদশে ফিরেই হেডের শতক, ব্যর্থ স্মিথ-ওয়ার্নার-খাজা

0
1172

অ্যাশেজ সিরিজের পঞ্চম ম্যাচে গোলাপি বলের লড়াইয়ে মুখোমুখি হয়েছে অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ড। বৃষ্টিবিঘ্নিত প্রথম দিনে অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ ৬ উইকেটে ২৪১ রান। করোনার কারণে চতুর্থ টেস্টে খেলতে না পারা ট্রেভিস হেড একাদশেই শতক হাঁকিয়েছেন।

একাদশে ফিরেই হেডের শতক, ব্যর্থ স্মিথ-ওয়ার্নার-খাজা
একাদশে ফিরেই শতক হাঁকিয়েছেন ট্রেভিস হেড

হোবার্টে টস জিতে আগে বোলিং করতে নামে ইংল্যান্ড। ওলি রবিনসন ও স্টুয়ার্ট ব্রডের নতুন বলের আক্রমণের সামনে অসহায় হয়ে পড়ে অস্ট্রেলিয়া। ১০ ওভারের ভেতর তিনটি উইকেট শিকার করে ইংল্যান্ড। ১২ রানে তিন উইকেটে হারায় অস্ট্রেলিয়া। ২২টি বল খেলেও রান পাননি ডেভিড ওয়ার্নার। উসমান খাজা করেন ২৬ বলে ৬ রান। স্টিভ স্মিথও রানের খাতা খোলার আগেই বিদায় নেন।

Advertisment

চতুর্থ উইকেটে ৭১ রানের জুটি গড়েন হেড ও মারনাস লাবুশেন। ওয়ানডে মেজাজে ব্যাটিং করেন তারা দুইজনই। ৫৩ বলে ৪৪ রানের ইনিংস খেলে থামেন লাবুশেন। ব্রডের এক অসাধারণ ডেলিভারিতে পুরোপুরি পরাস্ত হয়ে মাঠ ছাড়েন এই ডানহাতি ব্যাটার।

লাবুশেন ফিরলেও শতক হাঁকান ফর্মের তুঙ্গে থাকা থাকা হেড। হেডের ব্যাট থেকে আসে ১১৩ বলে ১০১ রান। তার ইনিংসে ছিল ১২টি চার। ক্রিস ওকসের শিকার হওয়ার আগে ক্যামেরন গ্রীনের সাথে ১২১ রানের জুটি গড়েন হেড। অর্ধশতক হাঁকিয়ে গ্রীন থামেন ৭৪ রানে। তার ১০৯ বলের ইনিংসে ছিল আটটি চার।

একাদশে ফিরেই হেডের শতক, ব্যর্থ স্মিথ-ওয়ার্নার-খাজা
মারনাস লাবুশেনকে বোল্ড করেন স্টুয়ার্ট ব্রড

বৃষ্টির বাঁধায় ৫৯.৩ ওভারে থেমে যায় খেলা। আর একটি বলও মাঠে গড়ায়নি। ফলে এখানেই শেষ হয় প্রথম দিন। অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ দাঁড়ায় ৬ উইকেটে ২৪১ রান। ক্রিজে আছেন অ্যালেক্স ক্যারি ও মিচেল স্টার্ক। ইংল্যান্ডের পক্ষে ব্রড ও রবিনসন দুইটি উইকেট নিয়েছেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

অস্ট্রেলিয়া ২৪১/৬ (৫৯.৩ ওভার)
হেড ১০১, গ্রীন ৭৪, লাবুশেন ৪৪;
রবিনসন ২/২৪, ব্রড ২/৪৮।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনের চ্যাটে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime Crickey সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

বিডিক্রিকটাইমের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি।