‘এক কথায়’ সফলতার রহস্য জানালেন নাঈম

0
470

বল হাতে বাইশ গজে যতটা আগ্রাসী, মাঠের বাইরে ঠিক ততটাই নির্লিপ্ত নাঈম হাসান। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে দায়িত্বশীল বোলিংয়ে বাংলাদেশকে খেলায় ফিরিয়েছেন তিনি। ম্যাচ শেষে নিজের বোলিংকে মূল্যায়ন করতে গিয়ে এক কথাতেই উত্তর সারলেন নাঈম।

বল হাতে দ্য্যুতি ছড়ালেন নাঈম।

Advertisment

বাংলাদেশি ক্রিকেটে স্বল্পভাষী ক্রিকেটার হিসেবে বেশ নামডাক আছে মোহাম্মাদ মিঠুনের। তবে এদানিংকালে মিঠুনকেও টপকে গেছেন নাঈম। সংবাদ সম্মেলনে নাঈমকে দিয়ে কথা বলানো রীতিমত চ্যালেঞ্জিং কাজ। আজ যেমন সর্বসাকুল্য ৩৬ ওভার বোলিং করা নাঈম এক স্পেলেই টানা ৩২ ওভার বল করেছেন। অথচ গণমাধ্যমের সাথে কথা বলতে এসে ৩২টা শব্দ বলতেও যেন তার ঘোর আপত্তি!

৪ উইকেট নিয়ে বাংলাদেশের সেরা পারফর্মার হয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসা নাঈমের কাছে জানতে চাওয়া হয়, উইকেটে আজ স্পিনারদের জন্য তেমন কিছু ছিল না, তবুও আপনি অনবদ্য বোলিং করেছেন। আসলে কি পরিকল্পনা করে সফল হয়েছেন? জবাবে এক কথায় সফলতার রহস্য জানিয়ে নাঈম বলেন, ‘আমার পরিকল্পনা ছিলো এক জায়গায় বল করা। এটাই।’

সাংবাদিকরাও ছাড়তে নারাজ, প্রশ্নের জালে জর্জরিত করলেন নাঈমকে। অন্যদিনের তুলনায় আজ একটু বেশি গতি দিয়েই বল করেছেন নাঈম। এটা কী ভালো করার অন্যতম কারণ? জবাবে এ অফস্পিনার জানান, ‘আসলে আমাদের স্পিনারদের পেস ভ্যারিয়েশনটা দরকার। আমরা চেষ্টা করেছি একটা জায়গায় বেশিক্ষণ বোলিং করার। রান ছাড়া বোলিং করার।’

দিন শেষে নিজেদের পারফরম্যান্সের মূল্যায়ন করতে গিয়ে নাঈম বলেন, ‘পুরো দিনের বোলিংয়ে আমি খুশি আছি। কারণ তাইজুল ভাই একপাশ থেকে ভালো বোলিং করেছেন, এজন্যই আমি উইকেটগুলো পেয়েছি। কালকে (রোববার) আমি যদি একপাশ থেকে ডট দিই, তাহলে তাইজুল ভাই উইকেট পাবেন। পার্টনারশিপ বোলিং যাকে বলে।’

‘দিনশেষে উইকেট পাওয়াটা দলের জন্য ভালো ছিল। আসলে আমরা যত দ্রুত অলআউট করতে পারি ততোই ভালো। ওর উইকেটটা (ক্রেইগ আরভিন) পাওয়ার পর আর ৪টা উইকেট আছে ওদের। এখন চেষ্টা থাকবে শুধু ভালো জায়গায় বোলিং করে তাড়াতাড়ি অলআউট করা।’ সাথে যোগ করেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলন শেষে সিনিয়র এক সাংবাদিক মজা করে তো বলেই বসলেন, টানা ৩২ ওভারের স্পিলের মত নিজের কথা বলার ভঙ্গিমাটাও যেন আরেকটু বড় করেন নাঈম। উত্তরে, হেসেই বিদায় নিলেন ১৯ বছর বয়সী এ ক্রিকেটার।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।