এক রানের আক্ষেপ সোহাগ গাজীর

0
1462

জাতীয় ক্রিকেট লিগের শেষ রাউন্ডের খেলা শুরু হয়েছে আজ (২০ ডিসেম্বর)। চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হয়েছে রংপুর বিভাগ ও বরিশাল বিভাগ। প্রথম দিন শেষে ৬ উইকেটে ২৮০ রান করেছে বরিশাল। এক রানের আক্ষেপে পুড়েছেন স্পিন অলরাউন্ডার সোহাগ গাজী।

 

Advertisment

সকালে টসে জিতে প্রথমে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেন বরিশালের অধিনায়ক ফজলে রাব্বী। তবে শুরুটা ভালো হয় নি বরিশালের। দলীয় ১ রানেই অধিনায়ক রাব্বী সাজঘরে ফেরেন। এরপর ২০ রানের মাথায় দ্বিতীয় উইকেট হারিয়ে বিপদে পরে বরিশাল। প্রথম দুইটি উইকেটই নেন শুভাশিস রায়। এরপর তৃতীয় উইকেটে ২৯ রানের জুটি গড়েন ওপেনার রাফসান ও আল-আমিন। দলীয় ৫০ রানে রাফসানের বিদায়ের পর হাল ধরেন জাতীয় দলের ক্রিকেটার মোসাদ্দেক হোসেন। এরপর ছোট ছোট পার্টনারশিপ করে এগোতে থাকে বরিশাল।

আল আমিন ৫০, মোসাদ্দেক ৩৫ রান করে বিদায় নেন। এরপর জুটি বাঁধেন নুরুজ্জামান ও অলরাউন্ডার সোহাগ গাজী। নুরুজ্জামান ধীর গতিতে রান করলেও গাজী ছিলেন ওয়ানডে মেজাজে। ১০৩ বলে ১৩ চার আর ১ ছক্কায় ৯৯ রান নিয়ে যখন ব্যাট করেছিলেন তখন সাজেদুল ইসলামের বলে নাসির হোসেনের হাতে ক্যাচ দিয়ে আউট হোন গাজী। ১ রানের আক্ষেপে পুড়েছেন এই ডানহাতি ব্যাটস্যান। দিন শেষে ১২১ বলে ৫১ রানে অপরাজিত আছেন নুরুজ্জামান।

প্রথম দিনে ৭৭ ওভার ব্যাটিং করে  ৬ উইকেটে ২৮০ রান করেছে বরিশাল বিভাগ। রংপুরের পক্ষে তানভীর হায়দার ও শুভাশিস রায় দুইটি করে উইকেট নেন।

[আরো পড়ুনঃ মিরাজ-মুস্তাফিজ তোপে ১১৩ রানেই শেষ ঢাকা
সকালে টসে জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন খুলনার অধিনায়ক আব্দুর রাজ্জাক। অধিনায়কের সিদ্ধান্তকে যথার্থ প্রমাণ করতে সময় নেয় নি খুলনার বোলাররা। দলীয় স্কোর ৪ রানের মাথায় রনি তালুকদারকে আউট করে শুভসূচনা করেন মুস্তাফিজ। দলীয় ১৬ রানের মাথায় দ্বিতীয় উইকেট হারায় ঢাকা। এবারও উইকেট শিকারী মুস্তাফিজ। ঢাকার তৃতীয় উইকেটের পতন ঘটে দলীয় ২৬ রানের মাথায়। এবার আঘাত হানেন জাতীয় দলের আরেক পেসার রুবেল হোসেন।]