এক সিরিজ দিয়ে কাউকে বিচার করা ঠিক হবে না : সাকিব

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সদ্য সমাপ্ত টি-টোয়েন্টি সিরিজে ব্যাটসম্যানরা পার করেছেন কঠিন সময়। আর তাই শুধু এই সিরিজ দিয়ে কারও পারফরম্যান্স বিচার না করার আহ্বান জানিয়েছেন সিরিজের সেরা খেলোয়াড় সাকিব আল হাসান।

এক সিরিজ দিয়ে কাউকে বিচার করাও ঠিক হবে না সাকিব

Advertisment

সাকিব সিরিজ সেরার পুরস্কার পেলেও ব্যাট হাতে সুবিধা করতে পারেননি তিনিও। দুই দলের অন্য বেশিরভাগ ব্যাটসম্যানের মত সাকিবও ব্যাট হাতে রানের জন্য ধুঁকেছেন। সাবলীল ব্যাটিং থেকে অনেকটাই দূরে থাকা এই সিরিজের পারফরম্যান্স দিয়ে তাই ব্যাটিং সামর্থ্য বিচার করার সুযোগ নেই।

সাকিবও তাই বলছেন, ম্যাচগুলো লো স্কোরিং হলেও ব্যাটিং ইউনিটের পারফরম্যান্স নিয়ে তার অসন্তুষ্টি নেই। দিনশেষে দল তো জিততে পেরেছে একটি বাদে বাকি চার ম্যাচেই!

সাকিব বলেন, ‘সন্তুষ্টি আছে। হয়ত আরও ১০-১৫ রান করে প্রতি ম্যাচেই করতে পারতাম। প্রতি ম্যাচে একটা সময় ছিল যখন এটা সম্ভব ছিল। তবে উইকেট নতুন ব্যাটসম্যানের জন্য সবসময় কঠিন ছিল। ব্যাটসম্যানদের নিয়ে খুব বেশি কিছু বলার নেই আর এক সিরিজ দিয়ে কাউকে বিচার করাও ঠিক হবে না। কন্ডিশন ব্যাটসম্যানদের জন্য খুবই কঠিন ছিল।’

এই সিরিজে বাংলাদেশ দল পায়নি দুই সিনিয়র ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল ও মুশফিকুর রহিমের সার্ভিস। ছিলেন না লিটন দাসও, যিনি জাতীয় দলে এখন নিয়মিত ক্রিকেটার। তাদের ছাড়াই দল ৪-১ এ সিরিজ জেতায় স্বস্তি প্রকাশ করেছেন সাকিব। একইসাথে তার অভিমত, বড় দলের মত বাংলাদেশেও এখন একাদশে জায়গা ধরে রাখার জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা শুরু হবে।

তিনি বলেন, ‘অবশ্যই বাড়তি পাওয়া যে বেশ কয়েকজন নিয়মিত ক্রিকেটার ছাড়াও সিরিজ জিততে পেরেছি। এটা আরও প্রেরণা দিবে। তারা যখন দলে ফিরবে তখন শক্তি আরও বেড়ে যাবে। স্বাভাবিকভাবেই এটা অনেক বেশি প্রতিযোগিতা বাড়াবে। বড় দল হয়ে ওঠার জন্য যে প্রতিদ্বন্দ্বিতা দরকার আমার মনে হয় সেটা এখন থেকে শুরু হবে।’

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।