Scores

“এখনো ব্যাকফুটে যাইনি আমরা”

 

পচেফস্ট্রুম টেস্টের নিয়ন্ত্রন পুরোপুরি এখন দক্ষিণ আফ্রিকার। টেস্টের পঞ্চম দিনে জয়ের জন্য টাইগারদের প্রয়োজন ৩৭৫ রান অন্যদিকে প্রোটিয়াদের প্রয়োজন ৭ উইকেট। বাস্তবতায় বলছে বাংলাদেশের জয় এক প্রকার অসম্ভব। তবে সারাদিন কাটিয়ে ড্র করা সম্ভব। চতুর্থ দিন শেষে সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশের উইকেটরক্ষক লিটন কুমার দাসের কন্ঠে ঝড়লো একই সুর।

লিটনের ক্যাচের প্রশংসায় বাভুমা

Also Read - লিটনের ক্যাচের প্রশংসায় বাভুমা


চতুর্থ দিনে ৬ উইকেটে ২৪৭ রান করে ইনিংস ঘোষণা করে দক্ষিণ আফ্রিকা। টাইগারদের পাওয়া এই ছয় উইকেটের চারটিতেই অবদান রেখেছেন উইকেটের পিছনে থাকা লিটন কুমার দাস। তিনটি ক্যাচের পাশাপাশি ছিল একটু দুর্দান্ত স্ট্যাম্পিং। চতুর্থ দিন শেষে তাই টাইগারদের প্রতিনিধি হয়ে আসেন লিটন।

জয় কি সম্ভব? এই প্রসঙ্গে লিটন বলেন, “পঞ্চম দিনে আসলে তিনশ-সাড়ে তিনশ রান তাড়া করে জেতা যায় না। আমাদের তিন উইকেটও চলে গেছে। চেষ্টা করব ভালো কিছু করতে। এখনো ব্যাকফুটে যাইনি আমরা। কালকে যদি ভালো দুই একটা জুটি হয় হয়তো কিছু হতে পারে।”

দক্ষিণ আফ্রিকার দেয়া ৪২৪ রানের টার্গেটে চতুর্থ ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে মারাত্মক ব্যাটিং বিপর্যয়ে পরে বাংলাদেশ। শূন্য রানেই হারায় দলের দুই সেরা টেস্ট ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল ও মুমিনুলকে। দিনশেষে টাইগারদের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ৪৯। অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম অপরাজিত আছেন ১৬ রানে। টপ অর্ডারের তিন ব্যাটসম্যানকে হারানো বাংলাদেশের পঞ্চম দিনে জয় ভুলে উইকেটে টিকে থাকাই হবে জন্য বড় চ্যালেঞ্জ।

চতুর্থ দিনের শেষে টাইগারদের ব্যাটিং বিপর্যয় নিয়ে লিটন বলেন, “ওরা (দক্ষিণ আফ্রিকা) ইনিংস ঘোষণার সময় আকাশে একটু মেঘ ছিল। এ ধরনের কন্ডিশন বল শুরুতে একটু মুভমেন্ট করে। আমাদের পরিকল্পনা ছিল স্বাভাবিক খেলা। উইকেট পড়তেই পারে। সেটা নিয়ে চিন্তিত ছিলাম না।”

এদিকে উইকেটের পিছনে দুর্দান্ত সময় কাটাচ্ছেন লিটন। নিজের পারফরম্যান্স নিয়ে এই ক্রিকেটার বলেন, “প্রস্তুতি ম্যাচে কিপিং করেছিলাম বলে ভালোভাবে মানিয়ে নিতে পেরেছি। কন্ডিশন উপভোগ করছি।” 

 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

স্বামীর দল বাংলাদেশ ও নিজের দেশ নিয়ে বিপাকে কেরি!

হাইলাইটসঃ বাংলাদেশ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা

ভিডিওঃ দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টাইগারদের বিজয়ের মুহূর্ত

টুইটারে টাইগার বন্দনা

জয় দিয়ে শুরু স্বপ্নযাত্রা