এখনো আগের মতো খেলতে পারার আত্মবিশ্বাস রফিকের

0
1686

মোহাম্মদ রফিক আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়েছেন প্রায় এক যুগ আগে। এই বোলিং অলরাউন্ডারের আত্মবিশ্বাস এখনো মাঠে নামলে তার সেই আগের মতো দাপুটে খেলা উপহার দেয়ার সক্ষমতা আছে। ফিটনেস সেরকম না থাকলেও ব্যাটিং-বোলিংয়ের ধার কমেনি তার। এসবই তিনি জানিয়েছেন, বিডিক্রিকটাইমের  ঈদের বিশেষ আয়োজনে।

মোহাম্মদ রফিক বিডিক্রিকটাইম

Advertisment

১৯৯৫ সালে ওয়ানডে এবং ২০০০ সালে টেস্টে অভিষেক হয় জাতীয় দলে। যতদিন খেলেছেন দাপটের সাথে খেলে গিয়েছেন তিনি। ভালো ফর্মে থেকেই নিয়েছেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর। ২০০৮ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেয়া রফিকের বিশ্বাস আছে এখনো দুর্দান্ত খেলার। বিডিক্রিকটাইমকে তিনি বলেন,

আমার বিশ্বাস, জাতীয় দলে খেললে ইনশাআল্লাহ্‌ এখনো আমি ভালো ক্রিকেট খেলবো। এখনো যে খেলি (কর্পোরেট ক্রিকেট ও অন্যান্য টুর্নামেন্ট) আমি প্রচুর উইকেট পাই, প্রচুর রানও করি। হয়ত আগের মত ফিটনেস নেই। কিন্তু মাঠে নামলে আমি এখনো ভালো ক্রিকেট খেলব ইনশাআল্লাহ্‌।

রফিকের জাতীয় দলে খেলার সময়ের ড্রেসিংরুমের পরিবেশ সম্পর্কেও জানান। সেই সময়ে বাংলাদেশ দল ধারাবাহিকভাবে জয়ের দেখা পেতো না, ফলে ড্রেসিংরুমের পরিবেশ একটু ভিন্ন ছিল। তাই ড্রেসিংরুমে থাকার চেয়ে টিম হোটেলে চলে যাওয়া বা বাসায় ফেরার দিকেই ঝোঁক ছিল ক্রিকেটারদের।

রফিকের ভাষায়, ‘আমাদের সময়ে ড্রেসিংরুমে মজা ছিল না। তখন তো সবসময় হারতাম, আর জানি হারব। ভালো ক্রিকেট খেলার চেষ্টা করতাম। তাড়াতাড়ি খেলা শেষ করে কখন হোটেলে বা বাসায় যাব এই চিন্তা থাকত। এখন বাংলাদেশের ক্রিকেটে অনেক প্রতিযোগিতা বেড়েছে। দেখা যায় হারুক-জিতুক দুই ঘণ্টা ড্রেসিংরুমেই থাকে।’

মোহাম্মদ রফিকের সাক্ষাৎকারটি দেখুন এখানে

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।