Scores

‘এটা সত্যিই আমরা আশা করিনি’

২০১৮ সালটা দুর্দান্তভাবে শুরু করেছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম ম্যাচে প্রতিপক্ষকে কোনও রকমের পাত্তাই দেয় নি স্বাগতিকরা। প্রথম তিন ম্যাচে বোনাস পয়েন্ট পাওয়া বাংলাদেশ নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে আজ শ্রীলঙ্কার কাছে হেরেছে ১০ উইকেটের বড় ব্যবধানে। টাইগারদের এমন পারফরম্যান্স যেমন ভক্তরা কল্পনাও করেন নি তেমনটা ছিল বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফির কাছেও।

 

বিজয়-মুস্তাফিজের সাহসী ক্রিকেটের প্রশংসা মাশরাফির
সংবাদ সম্মেলনে মাশরাফি

 

Also Read - বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজ আয়োজনে অনীহা ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার


ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচে বোনাস পয়েন্টসহ জিতে ফাইনাল নিশ্চিত করে বাংলাদেশ। এরপরের ম্যাচেও দাপটের সাথে খেলেছেন মাশরাফিরা। তবে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আজ (২৫ জানুয়ারি) দাঁড়াতেই পারে নি সাকিব-তামিমরা। ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে বড় হার প্রসঙ্গে মাশরাফি বলেন, ‘আমরা জানতাম শ্রীলঙ্কা আমাদের হারাতে পারে। আমরা ওদের কাছে হারতেই পারি। কিন্তু এভাবে হারব সেটা আশা করিনি। আমরা খুবই বাজেভাবে হেরেছি। এটা সত্যিই আমরা আশা করিনি।’

টাইগারদের প্রথম তিন ম্যাচেই ব্যাট হাতে জ্বলে উঠেছিলেন তামিম ইকবাল ও সাকিব আল হাসান। এই ম্যাচে এই দুই ব্যাটসম্যানই ব্যর্থ হোন। কিন্তু আর কেউ দায়িত্ব নিয়ে খেলতে পারেন নি। মাশরাফি বলেন, ‘তামিম-সাকিব চটজলদি আউট হবার পর বিশেষ করে যখন চার উইকেট পড়লো, তখন আমরা আরও একটু রয়ে সয়ে ঠাণ্ডা মাথায় পরিস্থিতি মোকাবেলার চেষ্টা করলে হয়তো ভালো হতো। শুধু টেস্ট ক্রিকেটেই নয়, প্রাথমিক বিপর্যয় কাটাতে কখনও কখনও সীমিত ওভারেও রয়ে সয়ে খেলাটা খুব জরুরি।’

প্রথমে ব্যাট করতে গিয়ে ৩৪ রানেই শুরুর দিকের চার ব্যাটসম্যানকে হারায় বাংলাদেশ। এরপর ধীরে খেলার বদলে ব্যাটসম্যানরা ছিলেন আগ্রাসী। ফলাফল ৮২ রানেই গুটিয়ে গেছে বাংলাদেশ। মাশরাফির চোখে অল্প পুঁজিতে অলআউট হবার প্রধান কারণ ছিল এটি,  ‘আমার মনে হয়, চার উইকেট পড়ে যাওয়ার পরও আমরা উইকেট আগলে রাখার বদলে একটু বেশিই আগ্রাসী ছিলাম। স্ট্রাইকরেটের প্রতি আমরা বেশি মনোযোগী ছিলাম। অমন বিধ্বস্ত সূচনার পর ৫০ স্ট্রাইকরেটেও যদি বড় বা লম্বা জুটি হতো, তাহলে শুরুর ধাক্কা সামলে ১৮০ থেকে ২০০তে পৌঁছানো সম্ভব ছিল। কিন্তু আমরা সেই পথে হাঁটিনি।’

[আরও পড়ুনঃ পানির চেয়েও কোক বেশি খেতেন তামিম!]

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

তামিমের পাশে যাওয়ার সুযোগ সৌম্যর, দূর্ভাগ্য মুশফিকের

ত্রিদেশীয় সিরিজের আফসোস এখনও পোড়ায় মাশরাফিকে

টি-টোয়েন্টিতে ফিরতে চান সাকিব

‘মুশফিক প্রিয় ক্রিকেটার, রুবেল ভালো বন্ধু’

দায়টা কি শুধুই গামিনীর?