এপিএলে খেলার অনুমতি পেলেন না সৌম্য-মিথুন

0
2553

আফগানিস্তান প্রিমিয়ার লিগ (এপিএল) খেলতে আজ (৫ অক্টোবর) দুবাইয়ের উদ্দেশ্যে দেশ ছাড়ার কথা ছিল জাতীয় দলের দুই ক্রিকেটার- সৌম্য সরকার ও মোহাম্মদ মিথুনের। কিন্তু তা হচ্ছে না। এই দুই ক্রিকেটারকে অনাপত্তিপত্র (এনওসি) দেয়নি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। 

 

Advertisment

আজ (শুক্রবার) দুবাইয়ে পর্দা উঠতে যাচ্ছে এপিএলের। প্রথম এই আসরের জন্য নিলামে দল পান বাংলাদেশের দুই ক্রিকেটার তামিম ইকবাল ও মুশফিকুর রহিম। তবে ইনজুরির কারণে খেলা হচ্ছে না তাদের। এরপর নিলামে দল না পেলেও পরবর্তিতে ফ্র্যাঞ্চাইজি কান্দাহার নাইটস দলে টানেন বাংলাদেশের তিন ক্রিকেটার-তাসকিন আহমেদ, সৌম্য সরকার ও মোহাম্মদ মিথুনকে।

এপিএলে খেলতে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের কাছ থেকে এনওসি নিয়ে ২ অক্টোবর (মঙ্গলবার) সংযুক্ত আরব আমিরাতের উদ্দেশ্যে দেশ ছাড়েন তাসকিন আহমেদ। কিন্তু জাতীয় ক্রিকেট লিগের (এনসিএল) ম্যাচ থাকায় তাসকিনের সাথে যাওয়া হয়নি সৌম্য সরকার ও মোহাম্মদ মিথুনের। এদিকে এনসিলের ম্যাচ শেষ করে রাজশাহী থেকে গতকাল (৪ অক্টোবর) ঢাকায় আসেন তারা। আর আজ বিকেল ৫টার ফ্লাইটে যাবার কথা ছিল। কিন্তু তা হয়নি!

বিসিবি অনাপত্তিপত্র (এনওসি) দেয়নি এই দুই ক্রিকেটারকে। যার ফলে আফগানিস্তান প্রিমিয়ার লিগের প্রথম আসরে খেলা হচ্ছে না সৌম্য ও মিথুনের। এপিএলের বদলে এনসিএলেই খেলতে হবে তাদের। এনসিএলে দ্বিতীয় চারদিনের ম্যাচ খেলতে খুলনা যাবেন তারা।

জাতীয় দলের সিনিয়র ক্রিকেটাররা ইনজুরি থাকায় জুনিয়রদের জন্য অনেক ব্যস্ত সূচি অপেক্ষা করছে। সামনে জিম্বাবুয়ে ও উইন্ডিজের বিপক্ষে হোম সিরিজ আছে। এরপর বিপিএল। তারপর টানা আন্তর্জাতিক সূচি। সবকিছু বিবেচনাতেই অনাপত্তিপত্র দেয়নি বিসিবি।

উল্লেখ্য, এপিএলে খেলার জন্য কান্দাহার নাইটসের সঙ্গে তাসকিন আহমেদের চুক্তি হয় ৩০ হাজার ডলার বা ২৫ লাখ টাকা। আর সৌম্য-মিথুনের দুজনেরই ২০ হাজার ডলার বা ১৬ লাখ টাকার চুক্তি হয়।

[আরও পড়ুনঃ অস্ট্রেলিয়ার টি-টোয়েন্টি দলে দুই সহ-অধিনায়ক, ফিরলেন লিন]