এবার আবুধাবির ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে দল কিনলেন শাহরুখ

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) কলকাতা নাইট রাইডার্স দল দিয়ে ক্রিকেটে যাত্রা শুরু হয় শাহরুখ খানের মালিকানার নাইট রাইডার্স গ্রুপের। নাইট রাইডার্স গ্রুপ একে একে পা বাড়িয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও যুক্তরাষ্ট্রের ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটে। এবার তারা দল কিনেছে সংযুক্ত আরব আমিরাতে।

যুক্তরাষ্ট্রে স্টেডিয়াম বানাচ্ছে নাইট রাইডার্স
একের পর এক দল কিনছে শাহরুখের নাইট রাইডার্স গ্রুপ। ফাইল ছবি

বিশ্বব্যাপী নাইট রাইডার্স গ্রুপকে ছড়িয়ে দেওয়ার যে প্রচেষ্টা বলিউড কিং শাহরুখ খানের, তা যেন আরও একটু আলোর মুখ দেখল। ভারত, দক্ষিণ আফ্রিকা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, যুক্তরাষ্ট্র, এবার আরব আমিরাত- একে একে পাঁচটি দেশের ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগের সাথে জরিয়েছে শাহরুখ খানের নাইট রাইডার্সের নাম।

Advertisment

আইপিএলে কলকাতা নাইট রাইডার্স দলের সাফল্যের পর আরও একটি দল গড়ে নাইট রাইডার্স গ্রুপ- যার নাম ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স। ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগেও (সিপিএল) এখন অন্যতম সফল দল ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স। ক্যারিবিয়ান দ্বীপপুঞ্জে ক্রিকেট মাঠে সাফল্যের পর যুক্তরাষ্ট্রের মেজর লিগ ক্রিকেটেও (এমএলসি) অংশ নিতে যাচ্ছে নাইট রাইডার্স গ্রুপ। প্রতিষ্ঠানটি যুক্তরাষ্ট্রে স্থাপন করছে স্টেডিয়ামও। ইতিপূর্বে দক্ষিণ আফ্রিকার ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে কেপটাউন নাইট রাইডার্স নামে দল ছিল শাহরুখের।

 

এবার শাহরুখ ঘাঁটি গাড়ছেন মরু দেশ আরব আমিরাতে। ইউএই টি-টোয়েন্টি লিগে শাহরুখ একটি দল কিনেছেন, যে দলের নাম হবে আবুধাবি নাইট রাইডার্স।

ইউএই টি-টোয়েন্টি লিগ কর্তৃপক্ষের প্রকাশ করা এক বিবৃতিতে শাহরুখ খান বলেন, ‘গত কয়েক বছর ধরেই নাইট রাইডার্স ব্র্যান্ড বিশ্বজনীন করে তুলতে কাজ করছি আমরা। আরব আমিরাতে ক্রিকেট জনপ্রিয় করার দিকেও আমাদের নজর রয়েছে। ইউএই টি-টোয়েন্টি লিগের অংশ হতে পেরে আমরা গর্বিত। কোনো সন্দেহ নেই, এই লিগটাও তুমুল জনপ্রিয় হতে চলেছে।’

 

এই লিগে ইংলিশ ফুটবল ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের মালিকপক্ষেরও একটি দল রয়েছে। প্রথম আসরেই তাই ইউএই টি-টোয়েন্টি লিগ কুড়াচ্ছে আলোচনা।

ইউএই টি-টোয়েন্টি লিগের চেয়ারম্যান বলেন, ‘টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটের উন্নতিতে নাইট রাইডার্স গ্রুপের দক্ষতা এবং দায়বদ্ধতা প্রশ্নের উর্ধ্বে। গোটা বিশ্বে একাধিক টি-টোয়েন্টি লিগে জড়িত থাকাতেই তা প্রমাণিত। ইউএই টি-টোয়েন্টি লিগে আমাদের সঙ্গে নাইট রাইডার্স কর্তৃপক্ষ যোগ দেওয়ায় আমরা আনন্দিত। এতে ক্রিকেট মহলে নিঃসন্দেহে লিগটির জনপ্রিয়তা বাড়বে।’