এবার টেস্ট খেলায় মনোযোগী হবে বাঘিনীরা

সময় পরিবর্তনের সাথে বাংলাদেশের নারী ক্রিকেটারদের সাফল্যের ডানায় যুক্ত হয়েছেীকের পর এক নতুন পালক। ফাইনালে ভারতকে হারিয়ে এশিয়া কাপ জয়ের স্মৃতি এখনো জ্বলজ্বলে। দেশের হয়ে প্রথম বড় কোনো টুর্নামেন্টের ট্রফি এনে দেয়া মেয়েরা তো টেস্ট খেলার দাবি করতেই পারে।

 

বিশ্বকাপের আগে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলবেন নারীরা
বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল। ফাইল ছবি

 

বর্তমানে কোনো খেলা নেই নারী ক্রিকেটারদের। বেশ কিছুদিন ধরে বিশ্রামেই দিন কাটছে। তবে ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি থেকেই ব্যস্ততা বাড়বে তাঁদের। আট দলের অংশগ্রহণে শুরু হবে টাইগ্রেসদের জাতীয় লিগ। এরপরই ইংল্যান্ডের একটি একাডেমি দলের সাথে দেশের মাটিতে বেশ কয়েকটি ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি খেলার কথা রয়েছে সালমা-রুমানাদের। এছাড়া জুলাইতে পাকিস্তান সফরের সম্ভাবনার কথাও জানান নারী দলের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা।

Also Read - চার ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ সরফরাজ আহমেদ


সাম্প্রতিক সময়ে দেশে এবং দেশের বাইরে টাইগ্রেসরা বেশ কিছু সাফল্য এনে দেয়ায় পর থেকেই আলোচনা হচ্ছে তাদের টেস্ট স্ট্যাটাস পাওয়া নিয়ে। নারীদের টেস্ট স্ট্যাটাস পাওয়ার পথে দিতে হবে কঠিন পরীক্ষা। আর সে জন্যেই শুরুতে দুই দিনের ম্যাচ খেলার পরিকল্পনা। এরপরেই আইসিসির দ্বারস্থ হবার কথা জানান নারী দলের ইনচার্জ নাজমুল আবেদিন ফাহিম।

এ বছরই নারী ক্রিকেটারদের নিয়ে দুই দিনের ম্যাচ আয়োজনের পরিকল্পনা করছে বিসিবি। এরপর পর্যায়ক্রমে টেস্ট ম্যাচ খেলার দিকে মনোযোগী হতে চায় টাইগ্রেসরা। এমনটাই জানিয়েছেন নারী ক্রিকেট দলের ইনচার্জ নাজমুল আবেদীন ফাহিম।

বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলের ইনচার্জ নাজমুল আবেদিন ফাহিম বলেন, “এই বছর দুই দিনের খেলার পরিকল্পনা আছে। আশা করছি দুই দিনের কিছু ম্যাচ খেলবে মেয়েরা। আইসিসিকে দেখাতে হবে আমরা এই ধরনের খেলা খেলছি। আশা করছি এই বছর খেলবো তার প্রেক্ষিতে টেস্ট খেলতে পারবো।”

জাতীয় লীগ এবং ইংল্যান্ড সিরিজ নিয়েও তিনি কথা বলেন, “ফেব্রুয়ারির দশ তারিখ থেকে জাতীয় লীগ শুরু হবে। যেখানে আট টা ডিভিশন অংশগ্রহণ করবে। এটার পরে ইংল্যান্ড থেকে একটা টিম আসবে। এর পরে মেয়েদের প্রিমিয়ার লীগ হবে।”

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন